• Youtube
  • English Version
  • মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ০৫:৩৭ অপরাহ্ন

করাঙ্গী নিউজ
স্বাগতম করাঙ্গী নিউজ নিউজপোর্টালে। ১৫ বছর ধরে সফলতার সাথে নিরপেক্ষ সংবাদ পরিবেশন করে আসছে করাঙ্গী নিউজ। দেশ বিদেশের সব খবর পেতে সাথে থাকুন আমাদের। বিজ্ঞাপন দেয়ার জন‌্য যোগাযোগ করুন ০১৮৫৫৫০৭২৩৪ নাম্বারে।

স্বতন্ত্র প্রার্থী হচ্ছেন কেয়া চৌধুরী ও শাহেদ গাজী

  • সংবাদ প্রকাশের সময়: বুধবার, ২৯ নভেম্বর, ২০২৩
এম,এ আহমদ আজাদ  নবীগঞ্জ (হবিগঞ্জ) থেকে: হবিগঞ্জ-১ আসন (নবীগঞ্জ-বাহুবল) আওয়ামী লীগের মনোনয়ন বঞ্চিত হয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করছেন সাবেক সংরক্ষিত সংসদ সদস্য আমাতুল কিবরিয়া কেয়া চৌধুরী ও বর্তমান সংসদ সদস্য গাজী মোহাম্মদ শাহনওয়াজ মিলাদ এমপির ভাই গাজী মোহাম্মদ শাহেদ।
বুধবার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন আমাতুল কিবরিয়া কেয়া চৌধুরী ও গাজী মোহাম্মদ শাহেদ।
জানা যায়- হবিগঞ্জ-১ (নবীগঞ্জ-বাহুবল) আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী বর্তমান সংসদ সদস্য গাজী মোহাম্মদ শাহনওয়াজ মিলাদ, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ডা. মুশফিক হোসেন চৌধুরী, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আলমগীর চৌধুরী, সাবেক সংরক্ষিত সংসদ সদস্য আমাতুল কিবরিয়া কেয়া চৌধুরী, বাংলাদেশ যুবলীগের মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক আব্দুল মুকিত চৌধুরী, সাবেক এমপি ইছমত চৌধুরীর মেয়ে নাজরা বেগম, ডেপুটি এর্টনী জেনারেল অ্যাডভোকেট মাজু মিয়া, যুক্তরাষ্ট্র যুবলীগের সাবেক যুগ্ম আহবায়ক শেখ জামাল হোসাইন।
গত রবিবার বিকেলে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে প্রার্থীদের চূড়ান্ত তালিকা ঘোষণা করেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। হবিগঞ্জ-১ আসনে মনোনয়ন পান জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ডা. মুশফিক হোসেন চৌধুরী। বাদ পড়েন এ আসনের হেভিওয়েট সংসদ সদস্য সাবেক মন্ত্রী দেওয়ান ফরিদ গাজীর ছেলে গাজী মোহাম্মদ শাহনওয়াজ মিলাদ। আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পাওয়ার পর জেলা পরিষদের চেয়ারম্যানের পদ থেকে পদত্যাগ করেন ডা. মুশফিক হোসেন চৌধুরী। মনোনয়ন বঞ্চিত হয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেন আওয়ামী লীগের সাবেক সংরক্ষিত সংসদ সদস্য আমাতুল কিবরিয়া কেয়া চৌধুরী ও বাংলাদেশ যুবলীগের কেন্দ্রীয় সদস্য গাজী মোহাম্মদ শাহেদ। বুধবার বাহুবল ও নবীগঞ্জ উপজেলার বিভিন্নস্থানে পথসভা করেন স্বতন্ত্র প্রার্থী আমাতুল কিবরিয়া কেয়া চৌধুরী।
আজ বৃহস্পতিবার সকালে নবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও সহকারি রির্টানিং কর্মকর্তার কার্যালয়ে মনোনয়ন পত্র জমা দেবেন আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী ডা. মুশফিক হোসেন চৌধুরী, জাতীয় পার্টির মনোনীত প্রার্থী সাবেক এমপি এম এ মুনিম চৌধুরী বাবু, স্বতন্ত্র প্রার্থী গাজী মোহাম্মদ শাহেদ। এছাড়া দুপুরে বাহুবল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও সহকারি রির্টানিং কর্মকর্তার কার্যালয়ে মনোনয়ন পত্র জমা দেওয়ার কথা রয়েছে সাবেক সংরক্ষিত সংসদ সদস্য আমাতুল কিবরিয়া কেয়া চৌধুরীর।
এ প্রসঙ্গে হবিগঞ্জ-সিলেট সংরক্ষিত আসনের সাবেক সংসদ সদস্য আমাতুল কিবরিয়া কেয়া চৌধুরী বলেন- আমি দীর্ঘদিন নবীগঞ্জ-বাহুবলের জনগণের জন্য কাজ করেছি, আসন্ন নির্বাচনে জনগণ প্রার্থী হওয়ার জন্য চাপ দিচ্ছে, জনগণের সিদ্ধান্তে আমি নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবো। মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছি, বৃহস্পতিবার মনোনয়ন পত্র দাখিল করবো।
বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের কেন্দ্রীয় সদস্য গাজী মোহাম্মদ শাহেদ মুঠোফোনে বলেন- দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন অংশগ্রহণমূলক করতে প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হাসিনা স্বতন্ত্র প্রার্থীদের প্রার্থী হতে উৎসাহ করছেন, সেজন্য আমি হবিগঞ্জ-১ আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করছি। বৃহস্পতিবার মনোনয়ন পত্র দাখিল করবো। হবিগঞ্জ-১ আসনে মোট ভোটার সংখ্যা ৪ লাখ ৩০ হাজার ৬৯০, মোট ভোট কেন্দ্র সংখ্যা ১৭৬টি।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো সংবাদ