• Youtube
  • English Version
  • শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৯:৫৬ অপরাহ্ন

করাঙ্গী নিউজ
স্বাগতম করাঙ্গী নিউজ নিউজপোর্টালে। ১৫ বছর ধরে সফলতার সাথে নিরপেক্ষ সংবাদ পরিবেশন করে আসছে করাঙ্গী নিউজ। দেশ বিদেশের সব খবর পেতে সাথে থাকুন আমাদের। বিজ্ঞাপন দেয়ার জন‌্য যোগাযোগ করুন ০১৮৫৫৫০৭২৩৪ নাম্বারে।

বাহুবলে সিএনজি গ্যাস পাম্পে হামলার অভিযোগ

  • সংবাদ প্রকাশের সময়: মঙ্গলবার, ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২৩

জুবায়ের আহমেদ,বাহুবল(হবিগঞ্জ)প্রতিনিধি: হবিগঞ্জের বাহুবলে সিটকো সিএনজি গ্যাস পাম্পে হামলা ভাংচুর ও লুটপাটের অভিযোগ উঠেছে। ঘটনাটি ঘটেছে ১৯ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার সকাল ১০ টার দিকে উপজেলার ঢাকা সিলেট মহাসড়কের পাশে সিটকো সিএনজি গ্যাস পাম্পে।

জানা যায়, বাহুবল উপজেলার ঢাকা সিলেট মহাসড়কের পাশে তগলী নামক স্থানে(২০১০)সালে হবিগঞ্জ -১ আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য গাজী মোহাম্মদ শাহনেওয়াজ মিলাদ এমপির ভাই কয়েজ গাজী সহ ৪/৫ জনের পার্টনারশিপে সিটকো সিএনজি গ্যাস পাম্পটি প্রতিষ্ঠিত হয়। এরপর থেকে ম্যানেজার হিসেবে দায়িত্বপালন করে আসছেন হুমায়ুন রশিদ জাবেদ সহ ১০/১২ জন শ্রমিক।

মঙ্গলবার সকাল ১০ টার দিকে সিটকো পাম্পের শেয়ার পার্টনার ঢাকা বনশ্রী এলাকার বাসিন্দা আবু তাহের মিয়ার ছেলে মোঃ আবু জাকির কয়েকজন সঙ্গী নিয়ে পাম্পে আসেন।এসময় পাম্পে কর্মরত শ্রমিকরা কিছু বুঝে উঠার আগেই আবু জাকির তার সাথে থাকা লিয়াকত শেখ এর ছেলে মমিন মিয়া(৩২), সালামত উল্লাহ,র ছেলে খলিল উল্লাহ, আমিরুল ইসলামের ছেলে জে এম সম্রাট সহ কয়েকজন মিলে তাদের উপর হামলা এবং বিভিন্ন আসবাবপত্র ভাংচুর ও ৪ লক্ষ টাকা লুটপাট করে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ করেন কয়েজ গাজী ও ম্যানেজার হুমায়ুন রশিদ জাবেদ।

এসময় তাদের হামলায় সিএনজি পাম্পে কর্মরত সৌরভ আহমেদ, ফুল মিয়া, আব্দুল মালেক, নুরুল আমিন,রাজু মিয়া, বিধান সহ কয়েকজন আহত হওয়ার অভিযোগ করেন তারা। এ ঘটনার পর সিটকো সিএনজি পাম্পে দু’পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়।

খবর পেয়ে তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে বাহুবল মডেল থানার এস আই আর্শিষ তালুকদারের নেতৃত্বে একদল পুলিশ। পরবর্তীতে আবু জাকির, মমিন মিয়া,খলিল উল্লাহ ও জে এম সম্রাটকে থানায় নিয়ে আসা হয়।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো সংবাদ