• Youtube
  • English Version
  • শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ০৪:০২ অপরাহ্ন

করাঙ্গী নিউজ
স্বাগতম করাঙ্গী নিউজ নিউজপোর্টালে। ১৫ বছর ধরে সফলতার সাথে নিরপেক্ষ সংবাদ পরিবেশন করে আসছে করাঙ্গী নিউজ। দেশ বিদেশের সব খবর পেতে সাথে থাকুন আমাদের। বিজ্ঞাপন দেয়ার জন‌্য যোগাযোগ করুন ০১৮৫৫৫০৭২৩৪ নাম্বারে।

এবার শায়েস্তাগঞ্জের বাজার কাঁপাবে ২৫মন ওজনের গরু

  • সংবাদ প্রকাশের সময়: বুধবার, ১২ জুন, ২০২৪

শাহ্ মোস্তফা কামাল, শায়েস্তাগঞ্জ থেকে: এবার শায়েস্তাগঞ্জের বাজার কাঁপাতে তৈরি করা হয়েছে ২৫মন ওজনের জায়েদ খানকে। অতি যত্নে ও গরু প্রতিপালনে দক্ষ লোক দ্বারা বিক্রি উপযুক্ত করা হয়েছে এই গরুটিকে। শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলার বাজারগুলোতে এখনো গরু কেনা-বেচা শুরু না হলেও আগ্রহী ক্রেতারা গরুর খামারগুলোতে যাতায়াত বৃদ্ধি করেছেন। ইতোমধ্যে খামারগুলোতে গরু দেখাশোনার পাশাপাশি চলছে পশু কেনা-বেচাও।

পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন ও পরিপাটি পরিবেশ থাকায় পরিবার নিয়ে স্বাচ্ছন্দ্যে কোরবানির পশু কেনার সুবিধা পাওয়া যাচ্ছে খামারগুলোতে। বিচিত্র নাম ও নয়নাভিরাম আকার সমৃদ্ধ গরুগুলোই এখন খামারের মূল আকর্ষণ। শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলার সবচেয়ে বড় গরুটির নাম রাখা হয়েছে জায়েদ খান। জায়েদ খানকে

দেখতে ভীড় করছেন ক্রেতা ও দর্শনার্থীরা।শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলার নিশাপট গ্রামে সুজন মিয়ার খামারে গত এক বছর যাবত পরম যত্নে লালন পালন করা হচ্ছে শাহীওয়াল জাতের জায়েদ খানকে। তার খাদ্য তালিকায় রয়েছে ভুসি, খইল, সবুজ ঘাস ও খড়সহ পুষ্টিকর দেশীয় দানাদার খাবার। লাল রঙের ২৫ মণ ওজনের জায়েদ খান লম্বায় ১০ ফুট ও উচ্চতা সাড়ে পাঁচ ফুট ছাড়িয়েছে। ঈদ উপলক্ষে প্রস্তুত করা জায়েদ খানের দাম পাঁচ লক্ষ টাকা হাঁকছেন খামারি। জায়েদ খান ছাড়াও তার খামারে বিক্রি যোাগ্য ৬ টি শাহীওয়াল ও দেশি জাতের গরু রয়েছে।

শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলা প্রাণী সম্পদ অফিসের তথ্যে জানা গেছে, এ বছর শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলায় কুরবানী যোগ্য পশু রয়েছে মোট ২৪শ ৭৯ টি। যার মধ্যে গরু ২হাজার ২১ টি, ছাগল ৩৮১ টি এবং ভেড়া ৭৭ টি।

এ বিষয়ে শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলা প্রাণী সম্পদক র্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) কৃষিবিদ নাজিম উদ্দীনব লেন, সুজন মিয়ার গরুটি এ বছর প্রানী সম্পদপ্র দর্শনী মেলায় ১ম স্থান অর্জন করেছে। এটিই

শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলার মধ্যে সবচেয়ে বড় গরু। আশাকরি তিনি আশানুরূপ মুল্য পাবেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো সংবাদ