করাঙ্গী নিউজ
স্বাগতম করাঙ্গী নিউজ নিউজপোর্টালে। ১৫ বছর ধরে সফলতার সাথে নিরপেক্ষ সংবাদ পরিবেশন করে আসছে করাঙ্গী নিউজ। দেশ বিদেশের সব খবর পেতে সাথে থাকুন আমাদের। বিজ্ঞাপন দেয়ার জন‌্য যোগাযোগ করুন ০১৮৫৫৫০৭২৩৪ নাম্বারে।

চুনারুঘাট ও মাধবপুরে ১৪ প্রার্থীর জামানত বাজেয়াপ্ত

  • সংবাদ প্রকাশের সময়: বৃহস্পতিবার, ৬ জুন, ২০২৪

নিজস্ব প্রতিনিধি, হবিগঞ্জ; হবিগঞ্জ জেলার চুনারুঘাট ও মাধবপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ৪, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৫ ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৫ প্রার্থীর জামানত বাজেয়াপ্ত হয়েছে।

নির্বাচনি আইন অনুযায়ী জামানত ফেরত পেতে প্রত্যেক প্রার্থীকে মোট প্রদত্ত ভোটের ১৫ শতাংশ ভোট পেতে হয়। সে হিসেবে যদি কেউ এরচেয়ে কম ভোট পান তাহলে নির্বাচনি বিধি অনুযায়ী ওই প্রার্থীর জামানত বাজেয়াপ্ত হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করেন জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোহাম্মদ সাইদুর রহমান।

চুনারুঘাট উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে কাস্টিং হয়েছে ১ লাখ ৮ হাজার ৮০৪ ভোট। এ পদে জামানত রক্ষার জনা প্রার্থীকে ১৬ হাজার ৩২০ ভোট পেতে হবে। কিন্তু প্রয়োজনীয় সংখ্যক ভোট না পাওয়ায় চেয়ারম্যান প্রার্থী লুৎফুর রহমান চৌধুরী, মোঃ হাবিবুর রহমান জুয়েল ও মোঃ রায়হান উদ্দিনের জামানত বাজেয়াপ্ত হয়েছে। ভাইস চেয়ারম্যান পদে কাস্টিং হয়েছে ১ লাখ ৮ হাজার ৭৮৪ ভোট।

 

এ পদে জামানত রক্ষার জন্য প্রার্থীকে ১৬ হাজার ৩১৭ ভোট পেতে হবে। কিন্তু প্রয়োজনীয় সংখ্যক ভোট না পাওয়ায় ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী মোঃ আজিজুল হক তালুকদার, মোঃ কবির মিয়া খন্দকার ও মোঃ শাহজাহান মিয়ার জামানত বাজেয়াপ্ত হয়েছে। মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে কাস্টিং হয়েছে ১ লাখ ৮ হাজার ৯৫০ ভোট। এ পদে জামানত রক্ষার জন্য প্রার্থীকে ১৬ হাজার ৩২৭ ভোট পেতে হবে।

 

কিন্তু প্রয়োজনীয় সংখ্যক ভোট না পাওয়ায় মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী আবিদা খাতুন, কাজী সাফিয়া আক্তার, পারুল আক্তার ও মোছাঃ ইয়াছমিন আক্তার মুক্তার জামানত বাজেয়াপ্ত হয়েছে।

 

মাধবপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে কাস্টিং হয়েছে ১ লাখ ৫ হাজার ৫৯ ভোট। এ পদে জামানত রক্ষার জন্য প্রার্থীকে ১৫ হাজার ৭৫৮ ভোট পেতে হবে। কিন্তু প্রয়োজনীয় সংখ্যক ভোট না পাওয়ায় চেয়ারম্যান প্রার্থী সৈয়দ শাহ হাবিব উল্লাহ সূচন এর জামানত বাজেয়াপ্ত হয়েছে। ভাইস চেয়ারম্যান পদে কাস্টিং হয়েছে ১ লাখ ৫ হাজার ৬৭ ভোট।

 

এ পদে জামানত রক্ষার জন্য প্রার্থীকে ১৫ হাজার ৭৬০ ভোট পেতে হবে। কিন্তু প্রয়োজনীয় সংখ্যক ভোট না পাওয়ায় ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী মোঃ আসাদুজ্জামান ও মোঃ সুলাইমান এর জামানত বাজেয়াপ্ত হয়েছে। মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে কাস্টিং হয়েছে ১ লাখ ৫ হাজার ৫২ ভোট।

 

এ পদে জামানত রক্ষার জন্য প্রার্থীকে ১৫ হাজার ৭৫৭ ভোট পেতে হবে। কিন্তু প্রয়োজনীয় সংখ্যক ভোট না পাওয়ায় মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী মোছাঃ জাহানারা বেগমের জামানত বাজেয়াপ্ত হয়েছে।

 

নির্বাচন কমিশন সূত্র জানায়, ইতোপূর্বে জামানত রক্ষার জন্য প্রার্থীকে প্রদত্ত ভোটের ৮ ভাগের এক ভাগ ভোট পেতে হতো। কিন্তু বর্তমানে নির্বাচন কমিশনের নয়া বিধি অনুযায়ী জামানত রক্ষার জন্য প্রার্থীকে প্রদত্ত ভোটের ১৫ শতাংশ ভোট পেতে হয়।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো সংবাদ