• Youtube
  • English Version
  • শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৯:৫২ অপরাহ্ন

করাঙ্গী নিউজ
স্বাগতম করাঙ্গী নিউজ নিউজপোর্টালে। ১৫ বছর ধরে সফলতার সাথে নিরপেক্ষ সংবাদ পরিবেশন করে আসছে করাঙ্গী নিউজ। দেশ বিদেশের সব খবর পেতে সাথে থাকুন আমাদের। বিজ্ঞাপন দেয়ার জন‌্য যোগাযোগ করুন ০১৮৫৫৫০৭২৩৪ নাম্বারে।

শায়েস্তাগঞ্জে ব্রয়লার মুরগিসহ সবজির বাজারে আগুন!

  • সংবাদ প্রকাশের সময়: বুধবার, ১৭ জানুয়ারী, ২০২৪
শাহ্ মোস্তফা কামাল, শায়েস্তাগঞ্জ (হবিগঞ্জ):সকল ভোজ্য দ্রব্যের মূল্য পাগলা ঘোড়ার মতো, দ্রুতগতিতে বাড়ছে। এক কথায় লাগামহীন ঘোড়া বলা যায়। বর্তমান বাজারে কেনাকাটায় দিনমজুরের নাভিশ্বাস উঠেছে। রমজান মাসে অস্থির হয়ে উঠছে ব্রয়লার মোরগীসহ সবজির দাম। দুই দিনের ব্যবধানে খুচরা বাজারে মুরগির দাম বেড়েছে কেজিতে ৩০/৪০ টাকা। কয়েক দিন ধরে শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলায় ২৫০/২৬০ টাকা কেজিতে ব্রয়লার মুরগি বিক্রি হচ্ছে। এতে মোরগ কিনতে গিয়ে হিমশিম খাচ্ছেন মধ্যবিত্ত ও নিত্য আয়ের লোকজন। ব্রয়লার মোরগের দাম বৃদ্ধি পাওয়ায় এর প্রভাব পড়েছে দেশী মোরগের বাজারেও। তাছাড়া মোরগের দাম বৃদ্ধির ফলে ভোক্তাদের মধ্যে দেখা দিয়েছে ক্ষোভ। অপরদিকে সবজির বাজার অস্থিতিশীল হয়ে পড়েছে।
শায়েস্তাগঞ্জ পৌরসভার দাউদনগর বাজারসহ উপজেলার কয়েকটি বাজার ঘুরে দেখা গেছে। রমজান মাসকে ঘিরে ব্রয়লার মুরগি খুচরা দাম প্রতি কেজি ২৫০ থেকে ২৬০ টাকা। আর সোনালী মুরগি ভোক্তা পর্যায়ে প্রতি কেজি ৩৬০ থেকে ৩৮০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। সবজি হিসেবে আলুর দাম সহনীয় পর্যায়ে রয়েছে। তাও, ডায়মন্ড আলু ২৫ টাকা ও ললিতা আলু ২০ টাকা কেজিতে বিক্রি হচ্ছে। মৌসুমী সবজি টমেটোর দাম এখন সর্বনিম্ন ১০ টাকা থাকার কথা থাকলেও তা বিক্রি হচ্ছে ৩০/৪০ টাকা কেজিতে। অপরদিকে গত এক সপ্তাহের ব্যবধানে সকল প্রকার সবজিতে কেজি প্রতি ২০-২৫ টাকা দাম বেড়েছে। কোনো কোনো সবজি দ্বিগুণ দামেও বিক্রি হচ্ছে। ফুলকপি ৬০-৮০ টাকা কেজি বিক্রি হচ্ছে। লাউ বিক্রি হচ্ছে ৪০-৬০ টাকা, টমেটো ৪০ থেকে ৫০ টাকা, শিম ৭০ থেকে ৮০ টাকা, বেগুণ ৫০ / ৬০ টাকা, গাজর ৮০ / ৯০ টাকা, শষা বিক্রি হচ্ছে ৬০ থেকে ৮০ টাকা, ঢেঁড়শ ৭০ থেকে ৭৫ টাকা, কাঁচা মরিচ ১০০ থেকে ১২০ টাকা, পটল ৫০ থেকে ৬০ টাকা, পেপে ৩০ থেকে ৫০ টাকা। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি বেড়েছে লেবুর দাম। প্রতি হালি বিক্রি হচ্ছে ৪০/৬০ টাকা। লেবুর দামে রেকর্ড সৃষ্টি হয়েছে।
জনৈক ক্রেতারা জানান, সবজির দাম সাধারণ মানুষের ক্রয়ক্ষমতার বাহিরে চলে যাচ্ছে। প্রতিটি সবজির দামই বেড়ে চলেছে অস্বাভাবিক গতিতে।
দাউদনগর বাজারের ব্যবসায়ীরা জিতু মিয়া জানান, মাসের ব্যবধানে ব্রয়লার মুরগির দাম প্রতি কেজিতে বেড়েছে প্রায় ১শ টাকা।
ক্রেতা সজল মিয়া জানান, গরু খাসির উচ্চ মূল্যের কারণে ব্রয়লার মুরগি দিয়েই মাংশের অভাব পূরণ করতাম। এখন ব্রয়লার মুরগিও নাগালের বাইরে চলে যাচ্ছে।
ব্রয়লার মুরগির দোকানি জানান, এখন ইতিহাসের সর্বোচ্চ মূল্যে ব্রয়লার মুরগি বিক্রি হচ্ছে। স্বল্প আয়ের মানুষের জন্য ব্রয়লার মুরগি কেনা এখন বিলাসীতার সামিল।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো সংবাদ