1. nafiz.hridoy285@gmail.com : Hridoy Fx : Hridoy Fx
  2. miahraju135@gmail.com : MD Raju : MD Raju
  3. koranginews24@gmail.com : সম্পাদক : সম্পাদক
প্রেমের জেরে সহপাঠীকে খুন, যুবকের যাবজ্জীবন - করাঙ্গীনিউজ
  • Youtube
  • English Version
  • বৃহস্পতিবার, ০৬ অক্টোবর ২০২২, ১১:০৯ পূর্বাহ্ন

করাঙ্গী নিউজ
স্বাগতম করাঙ্গী নিউজ নিউজপোর্টালে। ১৩ বছর ধরে সফলতার সাথে নিরপেক্ষ সংবাদ পরিবেশন করে আসছে করাঙ্গী নিউজ। দেশ বিদেশের সব খবর পেতে সাথে থাকুন আমাদের। বিজ্ঞাপন দেয়ার জন‌্য যোগাযোগ করুন ০১৮৫৫৫০৭২৩৪ নাম্বারে।

প্রেমের জেরে সহপাঠীকে খুন, যুবকের যাবজ্জীবন

  • সংবাদ প্রকাশের সময়: সোমবার, ১২ সেপ্টেম্বর, ২০২২

নিজস্ব প্রতিনিধি, সিলেট: সিলেটের জৈন্তাপুর এলাকায় চারিকাটা হাইস্কুলের ১০ শ্রেণির ছাত্র পলক কুমার রাউৎ হত্যা মামলায় তার এক সহপাঠীকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে আসামিকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও এক বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ডে দণ্ডিত করা হয়েছে।

রোববার দুপুরে সিলেটের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ তৃতীয় আদালতের বিচারক মিজানুর রহমান ভূঁইয়া এ রায় ঘোষণা করেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত স্বপন বিশ্বাস (২৭) জৈন্তাপুর থানার বাউরভাগ উত্তর গ্রামের দুলু বিশ্বাসের ছেলে।

মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরণে জানা গেছে, ২০১৫ সালের ১০ ডিসেম্বর স্কুল থেকে পলক কুমার রাউৎ (১৬) দাতের ব্যথার ওষুধ আনতে জৈন্তাপুরের সারিঘাট যায়। সেখান থেকে ফিরে না আসায় পরিবার কল দিয়ে তার মোবাইল ফোন বন্ধ পায়।

পরদিন ১১ ডিসেম্বর জৈন্তাপুর থানায় এ বিষয়ে একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করা হয়। এরপর ১৭ ডিসেম্বর রাত সোয়া ২টার দিকে বাউরবাগ উত্তর গ্রামের বাসিন্দা পলকের সহপাঠী সফিক আহমদের ছেলে আব্দুল কুদ্দুছ (১৬) ও তার সৎভাই আব্দুল জব্বার সাবু এবং স্বপন বিশ্বাসকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

পরে জানা যায়, প্রেমের জেরে এই তিনজন জৈন্তাপুর থানার পাখি টেকি হাওড় এলাকায় তাকে শ্বাসরোধে হত্যা করে। ১৮ ডিসেম্বর পুলিশ তিনজনকে নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে পলকের গলিত লাশ উদ্ধার করে।

এ ঘটনায় নিহতের বাবা শ্রী পান্না লাল রাউৎ বাদী হয়ে মামলা করেন। দীর্ঘ তদন্ত শেষে পুলিশ আদালতে চার্জশিট দাখিল করে।

দীর্ঘ শুনানি ও ১২ জন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে রোববার আদালত আসামি স্বপন বিশ্বাসকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও এক বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেন।

অপর আসামি আব্দুল কুদ্দুছ ও আব্দুল জব্বার সাবুর বয়স কম হওয়ায় সিলেট নারী ও শিশু নির্যাতন ট্রাইব্যুনালে তাদের বিচারকাজ চলমান রয়েছে।

রাষ্ট্রপক্ষের এপিপি অ্যাডভোকেট এসএম পারভীন ও স্টেট ডিফেন্স অ্যাডভোকেট ফারজানা হাবিব চৌধুরী মামলাটি পরিচালনা করেন।

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো সংবাদ
x