1. nafiz.hridoy285@gmail.com : Hridoy Fx : Hridoy Fx
  2. miahraju135@gmail.com : MD Raju : MD Raju
  3. koranginews24@gmail.com : সম্পাদক : সম্পাদক
চুনারুঘাটে ব্যাটারি চালিত টমটম ও রিক্সা ভাড়া নিয়ে নৈরাজ্যে - করাঙ্গীনিউজ
  • Youtube
  • English Version
  • সোমবার, ০৩ অক্টোবর ২০২২, ০৮:৩২ পূর্বাহ্ন

করাঙ্গী নিউজ
স্বাগতম করাঙ্গী নিউজ নিউজপোর্টালে। ১৩ বছর ধরে সফলতার সাথে নিরপেক্ষ সংবাদ পরিবেশন করে আসছে করাঙ্গী নিউজ। দেশ বিদেশের সব খবর পেতে সাথে থাকুন আমাদের। বিজ্ঞাপন দেয়ার জন‌্য যোগাযোগ করুন ০১৮৫৫৫০৭২৩৪ নাম্বারে।

চুনারুঘাটে ব্যাটারি চালিত টমটম ও রিক্সা ভাড়া নিয়ে নৈরাজ্যে

  • সংবাদ প্রকাশের সময়: বৃহস্পতিবার, ৪ জুলাই, ২০১৯

 

চুনারুঘাট(হবিগঞ্জ)প্রতিনিধিঃ হবিগঞ্জের চুনারুঘাট পৌরশহরে ব্যাটারি চালিত টমটম ও রিক্সা ভাড়ার নৈরাজ্য কিছুতেই থামছে না। এবিষয়ে পৌর কর্তৃপক্ষের ভাড়া নির্ধারণ কোন পদক্ষেপ না থাকায় দ্বিগুণ বেশীও ভাড়া আদায় করছে চালকরা। বিশেষ করে ব্যাটারি চালিত টমটম ও রিক্সা লাইসেন্স বিহীন পৌরশহরে চলাচল করছে।

টমটম ও রিক্সা চালকরা সাধারণ যাত্রীদের সাথে ভাড়া নিয়ে প্রতিনিয়তই ঝগড়াঝাঁটি করতে দেখা যায়। সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন সূত্র জানায়, সাবেক পৌরসভার মেয়র মহুরম মোহাম্মদ আলী থাকাকালীন পৌরশহর এলাকার জন্য প্রথম ব্যাটারি চালিত টমটম ও রিক্সা ভাড়া নির্ধারণ করেন।

পৌরশহরের উত্তর বাজার একচেঞ্জ অফিস হইতে বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় পর্যন্ত, এবং একচেঞ্জ অফিস থেকে বাল্লা রোডের শেষ পর্যন্ত টমটম ভাড়া ৫ টাকা ও রিক্সা ভাড়া ১০ টাকা। পৌরশহরে টমটম – রিক্সা চালক ও যাত্রীদের স্বস্থি ফিরে আসলেও তা বেশিদিন স্থায়ী হয়নি। ক্রমেই বাড়তে থাকে চালকদের দৌরাত্ম। নির্ধারিত ভাড়া কার্যকরে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের তদারকীর অভাবে সর্বমহলে প্রশংসিত এ উদ্যোগ অল্প সময়ে ভেস্তে যায়।

পরবর্তী মেয়র নাজিম উদ্দিন শামসু সিএনজি, ব্যাটারি চালিত টমটম ও রিক্সা চালক-মালিকদের সাথে দফায় দফায় বৈঠক করে যানজট নিরসন করেন। কিন্তু যানজট নিরসন হলেও পৌরশহরে টমটম ও রিক্সা চালকরা অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করছে। পৌর মেয়র মহুরম মোহাম্মদ আলীর তৎকালীন সময়ও এনিয়ে বিভিন্ন সভা-সমাবেশে আলোচনা হলেও কাজের কাজ কিছুই হয়নি।

এনিয়ে প্রতিনিয়ত চালকদের সাথে যাত্রীদের বাকবিতন্ডা এমনকি হাতাহাতি নিত্যনৈমিত্তিক ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছে। এতে স্কুল-কলেজগামী শিক্ষার্থীরা ছাড়াও স্বল্প আয়ের মানুষ দারুন ভোগান্তির শিকার হচ্ছে।

জুলেখা খাতুন নামে এক মহিলা জানান, পৌর এলাকার একচেঞ্জ অফিসের পাশ থেকে রিক্সা জোগে উপজেলা গেইট পর্যন্ত যাই। রিক্সা চালক আমার কাছে ৪০ টাকা দাবি করেন। আমি বাধ্য হয়েছে ৪০ টাকা ভাড়া দিয়েছি।

কলেজ পড়ুয়া ছাত্র জুনায়েদ মিয়া, এমরান মিয়া, জুবায়ের আহমেদ, মোঃ শাহিন মিয়া জানান, পৌরশহর হইতে পৌরশহর পর্যন্ত টমটম উঠানামা করতে ১০ টাকা ও রিক্সা ২০ টাকা ভাড়া দিতে হয়।

এতে আমরা প্রতিনিয়ত দূর্ভোগের শিকার হতে হচ্ছি। যাত্রী হয়রানী বন্ধে প্রশাসনের কার্যকরী উদ্যোগ গ্রহন করা উচিত। অন্যদিকে পৌরশহরে যেখানে – সেখানে বড় ট্রাক আটকিয়ে চাঁদা আদায়ের ফলে পৌরশহরে যানজট সৃষ্টি হচ্ছে। সে দিকে ও পৌর কর্তৃপক্ষের নজর দেওয়া অতি জরুরী।

চুনারুঘাট পৌরসভা মেয়র মোঃ নাজিম উদ্দিন শামসু বলেন, ব্যাটারি চালিত টমটম ও রিক্সা ভাড়া নির্ধারন ও যানজট নিরসনের জন্য ইতিমধ্যে মালিক-চালকদের সাথে পৌর মেয়রের বৈঠক হয়েছে। শীঘ্রই তা কার্যকর করা হবে বলে তিনি জানান।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো সংবাদ
x