1. nafiz.hridoy285@gmail.com : Hridoy Fx : Hridoy Fx
  2. miahraju135@gmail.com : MD Raju : MD Raju
  3. koranginews24@gmail.com : সম্পাদক : সম্পাদক
মৌলভীবাজারে দুই চেয়ারম্যান প্রার্থীর মধ্যে সংঘর্ষ, গোলাগুলি - করাঙ্গীনিউজ
  • Youtube
  • English Version
  • বৃহস্পতিবার, ১৩ মে ২০২১, ১০:২২ অপরাহ্ন

করাঙ্গী নিউজ
স্বাগতম করাঙ্গী নিউজ নিউজপোর্টালে। ১২ বছর ধরে সফলতার সাথে নিরপেক্ষ সংবাদ পরিবেশন করে আসছে করাঙ্গী নিউজ। দেশ বিদেশের সব খবর পেতে সাথে থাকুন আমাদের। বিজ্ঞাপন দেয়ার জন‌্য যোগাযোগ করুন ০১৮৫৫৫০৭২৩৪ নাম্বারে।

মৌলভীবাজারে দুই চেয়ারম্যান প্রার্থীর মধ্যে সংঘর্ষ, গোলাগুলি

  • সংবাদ প্রকাশের সময়: শনিবার, ১ মে, ২০২১

করাঙ্গীনিউজ: মৌলভীবাজারের রাজনগর উপজেলার মুন্সিবাজার ইউনিয়ন পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান ও চেয়ারম্যান পদপ্রার্থীর অনুসারীদের মধ্যে সংঘর্ষে উভয় পক্ষের অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন। এ সময় উভয়পক্ষের মধ্যে গুলি বিনিময়ের ঘটনা ঘটে।

আহতদের মধ্যে বর্তমান চেয়ারম্যান সালেক মিয়ার ভাই জুনেদ মিয়ার (৪০) অবস্থা অশংকাজনক হওয়ায় তাকে সিলেট ওসমানী হাসপাতাল থেকে ঢাকায় নেওয়া হয়েছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ ফাঁকা গুলি ছোড়ে।

শুক্রবার (৩০ এপ্রিল) রাত ১০ টায় এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে রাজনগর থানা পুলিশের একটি টিম ঘটনাস্থলে গেলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ব্যর্থ হয়। পরে জেলা সদর থেকে পুলিশের বিশেষ একটি টিম ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে।

স্থানীয়রা জানান, শুক্রবার বিকাল ৩টায় বাজারে মাছ কিনতে যান মুন্সিবাজার ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান ছালেক মিয়া। এ সময় মুন্সিবাজার ইউনিয়ন পরিষদের সম্ভাব্য চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী রাহেল মিয়ার গ্রামের (নোয়াটিলা) বসর মিয়ার সঙ্গে কথাকাটাকাটি হয়। বসর মিয়া কথাকাটাকাটির বিষয়টি সম্ভাব্য চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী রাহেল মিয়ার কাছে এসে বলেন। তখন চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী রাহেল মিয়া মাছ বাজারে গিয়ে বর্তমান চেয়ারম্যান ছালেক মিয়াকে গালিগালাজ করেন। এটি জানতে পারেন ছালেক মিয়া।

এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে এবং পূর্ব বিরোধের জেরে উভয় পক্ষ সংঘর্ষের প্রস্তুতি নেন। রাত ৮টার দিকে উভয় পক্ষ সংঘর্ষে জড়াতে চাইলে পুলিশ তাদের সরিয়ে দেয়। পরে রাত ১০টার দিকে উভয় পক্ষ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন। উভয় পক্ষের লোকেরা দেশীয় অস্ত্র দিয়ে হামলা করেন এবং গুলি ছোড়েন। এ সংবাদ লেখা পর্যন্ত বাজার ও এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে।

স্থানীয়রা আরও জানান, আগামী ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে উভয়ের নেতাকর্মী ও অনুসারীদের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছিল। যার জেরে এই ঘটনা ঘটে।তাৎক্ষণিকভাবে আহতদের নাম জানা যায়নি।

এ বিষয়ে বর্তমান চেয়ারম্যান ছালেক মিয়া ও চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী রাহেল মিয়ার ব্যক্তিগত মোবাইলে একাধিকবার কল দিলেও তারা রিসিভ করেননি।

রাজনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল হাসেম বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে সক্ষম হয়েছে। তবে কয়জন আহত হয়েছেন এখনও সঠিকভাবে বলা যাচ্ছে না।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো সংবাদ