1. nafiz.hridoy285@gmail.com : Hridoy Fx : Hridoy Fx
  2. miahraju135@gmail.com : MD Raju : MD Raju
  3. koranginews24@gmail.com : সম্পাদক : সম্পাদক
হবিগঞ্জে নৌকার জয় - করাঙ্গীনিউজ
  • Youtube
  • English Version
  • রবিবার, ১১ এপ্রিল ২০২১, ০১:১৫ অপরাহ্ন

করাঙ্গী নিউজ
স্বাগতম করাঙ্গী নিউজ নিউজপোর্টালে। ১২ বছর ধরে সফলতার সাথে নিরপেক্ষ সংবাদ পরিবেশন করে আসছে করাঙ্গী নিউজ। দেশ বিদেশের সব খবর পেতে সাথে থাকুন আমাদের। বিজ্ঞাপন দেয়ার জন‌্য যোগাযোগ করুন ০১৮৫৫৫০৭২৩৪ নাম্বারে।

হবিগঞ্জে নৌকার জয়

  • সংবাদ প্রকাশের সময়: রবিবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী, ২০২১

করাঙ্গীনিউজ: হবিগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে নৌকা প্রতিক নিয়ে ৩২তম মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন হবিগঞ্জ জেলা যুবলীগ সভাপতি আতাউর রহমান সেলিম।

রোববার পঞ্চম ধাপের নির্বাচনে তিনি নৌকা প্রতিক নিয়ে পেয়েছেন ১৩,৩৩২ ভোট।

তার নিকটতম প্রতিদ্বন্ধি আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী সাবেক মেয়র মিজানুর রহমান মিজান নারিকেল গাছ প্রতিক নিয়ে পেয়েছেন ১০,৯৯০ ভোট।

বিএনপির মনোনিত প্রার্থী এনামূল হক সেলিম ধানের শীষ প্রতিক নিয়ে পেয়েছেন ৩,২৪২ ভোট, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ (পীর সাহেব চরমোনাই) মনোনীত হবিগঞ্জ ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতি (ব্যক্স) সভাপতি আলহাজ্ব মোঃ শামছুল হুদা হাতপাখা প্রতিক নিয়ে পেয়েছেন ৫৭৯ ভোট , স্বতন্ত্র প্রার্থী মোঃ বশিরুল আলম কাওছার মোবাইল ফোন ১৮১ ভোট, স্বতন্ত্র প্রার্থী বাংলাদেশ সুপ্রীম কোর্ট’র আইনজীবি গাজী পারভেজ হাসান জগ প্রতিকে পেয়েছেন ১৬৫ ভোট।

হবিগঞ্জ সদর পৌরসভায় নির্বাচিত ওয়ার্ড কাউন্সিলররা হলেন যারা ১নং ওয়ার্ডে আবুল হাসিম, ২নং ওয়ার্ডে জাহির উদ্দিন, ৩নং ওয়ার্ডে পান্না শীল, ৪নং ওয়ার্ডে জুনায়েদ আহমেদ, ৬ নং ওয়ার্ডে টিপু আহমেদ, ৭ নং ওয়ার্ডে সালাউদ্দিন টিটু, ৯ নং ওয়ার্ডে সফিকুর রহমান সেতু।

হবিগঞ্জ পৌর নির্বাচনে সংরক্ষিত মহিলা আসনে নির্বাচিত কাউন্সিলর হলেন যারা-
১,২,৩ নং ওয়ার্ডে প্রিয়াংকা সরকার।
৪, ৫,৬ নং ওয়ার্ডে খালেদা জুয়েল।
৭,৮,৯, নং ওয়ার্ডে সুমা জাহান।

জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা সাদেকুল ইসলাম জানান, রবিবার সকাল ৮ টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) কোন ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনারছাড়াই একটানা ভোটগ্রহন করা হয়।

নির্বাচনে নিরাপত্তার দায়িত্ব পালন করেছেন ১শত ২০ সদস্যের ৬ প্লাটুন ‘বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ’ (বিজিবি), র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ান (র‌্যাব)-এর ৪টি টিমসহ বিপুল সংখ্যক পুলিশ ও আনসার সদস্য। এছাড়াও দায়িত্বে পালনে ছিলেন একজন জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ও ১৬ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট।

জেলা পুলিশ সূত্র জানায়, পৌর এলাকার ২৪টি ভোট কেন্দ্রে ৬শ ৬০ জন পুুলিশ সদস্য সার্বক্ষনিক নিরাপত্তার দায়িত্ব পালন করেছিলেন। এছাড়াও প্রতি কেন্দ্রে ছিল বাংলাদেশ আনসার ও ভিডিপি’র মহিলাসহ ৯ জন সদস্য। সূত্রমতে পৌর এলাকায় ঝুঁকিপূর্ণ কোন কেন্দ্র নেই। তবে প্রত্যেক প্রার্থীর নিজ কেন্দ্রকে অতি গুরুত্বপূর্ণ কেন্দ্র হিসেবে বিবেচনা করা হয়।

এদিকে, হবিগঞ্জ পৌরসভার নির্বাচন উপলক্ষে আচরণবিধি লঙ্ঘন ও অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে এবং সুষ্ট-শান্তিপূর্ণ পরিবেশ তৈরীর লক্ষ্যে পৌর এলাকায় মোটর বাইক চলাচলের উপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছিল জেলা প্রশাসন। ২৬ ফেব্রুয়ারী দিবাগত রাত ১২ টার পর থেকে ১ মার্চ সোমবার ভোর ৬ টায় পর্যন্ত হবিগঞ্জ পৌর এলাকায় সব ধরনের মোটর বাইক চলাচল বন্ধ থাকবে বলে জেলা প্রশাসন কর্তৃক এক গণ বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, ১৮৮১ সালে প্রতিষ্ঠিত ৯ দশমিক ০৫ বর্গ কিলোমিটার আয়তনের প্রথম শ্রেণীর এ পৌরসভায় বসবাস করেন প্রায় লক্ষাধিক মানুষ। নির্বাচন কমিশনের দেয়া সর্বশেষ হিসেব অনুযায়ী ‘পায়জামা আকৃতির শহর’ নামে খ্যাত এ পৌরসভার ভোটার সংখ্যা ৫০ হাজার ৯শ ৩ জন। এর মধ্যে নারী ভোটারের সংখ্যা ২৫ হাজার ৬শ ২০। এখানে সর্বশেষ সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয় ২০১৫ সালের ৩০ ডিসেম্বর। ১৯৪৭ সাল থেকে সংরক্ষিত পৌরসভার দাপ্তরিক তথ্যানুযায়ী এবার নির্বাচিত হন ‘৩২তম নগর পিতা।’

সংবাদটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো সংবাদ