চুনারুঘাটে চোরাচালান নিয়ে সংঘর্ষে নিহত ১

নিজস্ব প্রতিনিধি : হবিগঞ্জের চুনারুঘাট উপজেলার বাল্লা সীমান্তে দু’দল চোরাকারবারীর মাঝে সংঘর্ষে ইয়াকুত (৪৫) নামের এক চোরাকারবারী নিহত হয়েছে।

এ ঘটনায় আহত হয়েছে আরও ৫ জন। এর মধ্যে রমজান আলীর ( ৪৮) অবস্থা গুরুতর।

শনিবার (৫ সেপ্টেম্বর) দিবাগত রাত প্রায় ১০ টায় গাজীপুর ইউনিয়নের সীমান্তবর্তী গ্রাম টেকেরঘাটে এই ঘটনাটি ঘটেছে।

এলাকাবাসি ও পুলিশ জানায়, রাত প্রায় ১০ টার সময় টেকেরঘাট গ্রামের কুখ্যাত চোরাকারবারী জমসের আলীর পুত্র ইয়াকুত ও একই গ্রামের আঃ খালেকের পুত্র রমজান আলীর মাঝে চোরাচালানের মালামাল কেনা-বেচা নিয়ে কথা কাটি হয়।

এক পর্যায়ে উভয়ের মাঝে সংঘর্ষ বাধলে উভয় পক্ষের ৫ জন আহত হয়েছে। এতে ইয়াকুত এবং রমজান গুরুতর আহত হয়। এলাকাবাসি গুরুতর আহত ইয়াকুত ও রমজানকে উদ্ধার করে হাসপাতালে প্রেরন করেন। ইয়াকুত হাসপাতালে পৌছার পুর্বেই রাজার বাজার নামক স্থানে প্রাণ হারায়।

রমজানকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। পুলিশ বলছে, রমজানের অবস্থা সংকটাপন্ন।

সুত্র জানান, রমজান এবং ইয়াকুত ভারতে চুরি করতো। সাম্প্রতি সময়ে এরা চুরি চামারি ছেড়ে চোরাচালানীতে যোগ দেয়। এরা স্থানীয় আসামপাড়া বাজার থেকে মটরসুটি, ছোলা, ছানার ডাল ও ইলিশ মাছ কিনে ভারতের ত্রিপুরাতে পাচার করতো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

1 × five =