Category Archives: সিলেট

পুলিশি বাধায় জকিগঞ্জ যুবদল: ফেসবুকে ভাইরাল হবিগঞ্জ জেলা যুবদল সভাপতি

নিজস্ব প্রতিনিধি: পুলিশি বাধার মুখে সিলেটের জকিগঞ্জে যুবদলের প্রতিনিধি সভা শেষ হয়েছে। সামনে থেকে পুলিশের তিন দফা বাধা উপেক্ষা করে সভা করে এ প্রতিনিধি সভা করে যুবদল। সেখানে অতিথি হিসাবে উপস্থিত হয়েছিলেন হবিগঞ্জ জেলা যুবদলের সভাপতি মিয়া মো. ইলিয়াস।

আজ শনিবার উপজেলার রতনগঞ্জ বাজারে এ সভা অনুষ্টিত হয়। পুলিশের বাধার মুখে হুঙ্কার দিয়ে এগিয়ে যান হবিগঞ্জ জেলা যুবদল সভাপতি। এ বিষয়টি সামাজিক মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়।

হবিগঞ্জ জেলা যুবদল সভাপতির ছবি দিয়ে Sharfin Chowdhury Reaz লিখেন, সিলেটের জকিগঞ্জে যুবদলের কর্মীসভায় পুলিশী বাধার প্রাক্কালে সিলেট বিভাগীয় যুব রাজনীতির কিং মিয়া মোঃ ইলিয়াছ।

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী যুবদল সিলেট জেলার জকিগঞ্জে যুবদলের এক কর্মী সভায় আওয়ামী পেটুয়া পুলিশের বাধার সম্মুখীন হলে গর্জে উঠেন যুবদল কেন্দ্রীয় সহ সাধারণ সম্পাদক, হবিগঞ্জ জেলা যুবদলের সুযোগ্য সভাপতি, নন্দিত জননেতা- মিয়া মোঃ ইলিয়াছ। অতিউৎসাহী পুলিশের উদ্দেশ্যে হুংকার ছুঁড়ে মিয়া মোঃ ইলিয়াছ বলেন, বিএনপি এশিয়া মহাদেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় ও সর্ববৃহৎ রাজনৈতিক দল। এদেশে বিএনপি কোন নিষিদ্ধ রাজনৈতিক দল নয়। বাংলাদেশের সংখ্যাগরিষ্ঠ জনগণের দল বিএনপির সমর্থন ও জনপ্রিয়তায় ঈর্ষান্বিত হয়ে একটি ভোটারবিহীন অবৈধ সরকারের নির্দেশিত তাবেদার হয়ে আপনারা যে দমনপীড়ন চালাচ্ছেন আপনাদেরকেও স্মরণ রাখতে হবে যাদের প্ররোচনায় আপনারা অতিউৎসাহী হয়ে আমাদের গনতান্ত্রিক অধিকার হরণ করার অপচেষ্টা করছেন তারাই এদেশের শেষ সরকার নয়। পৃথিবীর ইতিহাসে কোন অবৈধ স্বৈরশাসক চিরকার ক্ষমতায় টিকে থাকার নজির নেই। এই ভোটারবিহীন অবৈধ সরকারও টিকে থাকতে পারবেনা। সামনে এমন দিন আসছে এই অবৈধ শেখ হাসিনার অনির্বাচিত স্বৈরাচারী সরকার পালাবার পথ খুঁজে পাবেনা। এজন্য অবশ্যই আপনাদেরকে জনগনের কাঠগড়ায় দাঁড়াতে হবে।আমরা ভানের জলে ভেসে আসিনি। তাই প্রজাতন্ত্রের কর্মচারী হিসাবে জনগণের পাশে দাঁড়ান। রাষ্ট্রের মালিক জনগণের গণতান্ত্রিক অধিকার হরণ করা থেকে বিরত থাকুন।

জানা গেছে, সিলেটের বিভিন্ন উপজেলা ও পৌর যুবদলের প্রতিনিধি সভা চলছিলো বেশ কিছু দিন ধরে। এ লক্ষ্যে আজ শনিবার জকিগঞ্জ উপজেলা ও পৌর শাখার প্রতিনিধি সভার আয়োজন করা হয়েছিল স্থানীয় রতনগঞ্জ বাজারের একটি হলে। কেন্দ্রীয় ও সিলেট জেলা যুবদলের নেতারা বেলা ২ টার দিকে সেখানে পৌছে প্রথমে আল্লামা ফুলতলী(র. ) কবর জিয়ারত করেন। সেখান থেকে দলীয় নেতাকর্মীরা রতনগঞ্জ বাজারের দিকে রওয়ানা দিলে পুলিশ প্রথম দফায় বাধা দেয়। নেতাকর্মীরা বাধা উপেক্ষা করে রতনগঞ্জ বাজারের অভিমুখে রওয়ানা হলে আবারো পুলিশ বাধা প্রদক্ষিণ করে। একপর্যায়ে যুবলদের নেতারা সভার স্থল স্থানীয় চেরাগ আলী মার্কেটের হলে অবস্থান নেয়া শুরু করলে তৃতীয় দফা পুলিশি বাধার সম্মুখীন হন দলের নেতাকর্মীরা।

অবশেষে বিকেল সাড়ে ৩ টায় সভার স্থলে প্রবেশ করে এক সংক্ষিপ্ত সভা করেছে যুবদল। জেলা যুবদলের আহবায়ক সিদ্দিকুর রহমান পাপলুর সভাপতিত্বে ও সদস্য সচিব মকসুদ আহমদের পরিচালনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন- কেন্দ্রীয় যুবদলের সহ সভাপতি আনছার উদ্দিন, কেন্দ্রীয় যুবদলের সহ সাধারণ সম্পাদক ও হবিগঞ্জ জেলা যুবলদলের সভাপতি মিয়া মো. ইলয়াস।

এসময় আরো বক্তব্য রাখেন- জেলা যুবদলের আহবায়ক কমিটির সদস্য এড, মোমিনুল ইসলাম মোমিন, মহানগরের সদস্য আনোয়ার হোসেন মানিক, জেলা সদস্য আশরাফ উদ্দিন ফরহাদ, আখতার আহমদ, তোফাজ্জল হোসেন বেলাল, এডভোকেট সাঈদ আহমদ, সাহেদ আহমদ চমন , ময়নুল ইসলাম মঞ্জু, কবির উদ্দিন, মিজানুর রহমান নেছার, লিটন আহমদ, অলি চৌধুরী, কয়েছ আহমদ, অলি উর রহমান, ফখরুল ইসলাম রুমেল, জুনেদ আহমদ, মাহফুজ চৌধুরী, জি এম বাপ্পি ,আলী আহমদ আলম, মকসুদল করিম নুহেল, মতিউর রহমান আফজল , মাসুক আহমদ, যুবদল নেতা আমিনুর রহমান আমিন, লাহিন আহমদ, রফিকুল ইসলাম প্রমুখ।

এছাড়া বক্তব্য রাখেন জকিগঞ্জ উপজেলা যুবদলের সাবেক সভাপতি শফিকুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক মাসুক উদ্দিন, পৌর যুবদলের সাবেক সভাপতি কাউন্সিলর রিপন আহমদ ও সাধারণ সম্পাদক আব্দুশ শাকুর।

এ ব্যাপারে বক্তব্য নিতে জকিগঞ্জ থানার ওসি মীর মো. আব্দুন নাসেরের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

৪ অক্টোবর থেকে সরাসরি সিলেট-লন্ডন ফ্লাইট

নিজস্ব প্রতিনিধি: আগামী ৪ অক্টোবর থেকে সিলেট থেকে লন্ডনে সরাসরি বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ফ্লাইট স্বাভাবিক হবে।

বুধবার (১৬ সেপ্টেম্বর) বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের (বেবিচক) চেয়ারম্যান এয়ার ভাইস মার্শাল মো. মফিদুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, বেবিচক ও ইউকের ডিপার্টমেন্ট অব ট্রান্সপোর্টের (ডিএফিটি) ভার্চুয়াল সভায় এ সংক্রান্ত আলোচনা হয়েছে।

বেবিচক চেয়ারম্যান আরো বলেন, সভায় আগামী ৪ অক্টোবর থেকে সিলেট থেকে লন্ডন রুটে সরাসরি ফ্লাইট পরিচালনার সিদ্ধান্তের কথা জানানো হয়েছে। ইউকে ডিএফটি বলেছে, তারা উদ্যোগ নেবে। ফের ডিএফটি টিম সিলেট ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর পরিদর্শন করবে বলেও জানান তিনি।

সিলেট জেলা ছাত্রদলের ৩২ ইউনিট কমিটি অনুমোদন

করাঙ্গীনিউজ: বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল সিলেট জেলা শাখার আওতাধীন ৩২টি ইউনিটের আহ্বায়ক কমিটির অনুমোদন দেয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার (৮ সেপ্টেম্বর) জেলা ছাত্রদল সভাপতি আলতাফ হোসেন সুমন ও ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন নাদিম সিলেট জেলার বিভিন্ন উপজেলা, পৌর ও কলেজ শাখার এসব কমিটির অনুমোদন দেন।

সকল আহ্বায়ক কমিটিকে ৬০ দিনের মধ্যে ইউনিয়ন, ওয়ার্ড কলেজ ছাত্রদলের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

সদর উপজেলার ২১ সদস্যবিশিষ্ট কমিটি নিম্নরূপ :

দক্ষিণ সুরমা ছাত্রদলের ২১ সদস্যবিশিষ্ট কমিটি নিম্নরূপ :

শাহ খুররম ডিগ্রী কলেজের ২ সদস্য বিশিষ্ট আহ্বায়ক কমিটি :

ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা ছাত্রদলের ২১ সদস্য বিশিষ্ট আহ্বায়ক কমিটি :

ফেঞ্চুগঞ্জ ডিগ্রী কলেজের ২১ সদস্য বিশিষ্ট আহ্বায়ক কমিটি :

বালাগঞ্জ উপজেলা ছাত্রদলের ২১ সদস্যবিশিষ্ট আহ্বায়ক কমিটি :

বালাগঞ্জ ডিগ্রী কলেজ ছাত্রদলের ১৩ সদস্যবিশিষ্ট আহ্বায়ক কমিটি :

বিশ্বনাথ উপজেলা ছাত্রদলের ২০ সদস্যবিশিষ্ট আহ্বায়ক কমিটি :

বিশ্বনাথ পৌর ছাত্রদলের ০৯ সদস্যবিশিষ্ট আহ্বায়ক কমিটি : 

বিশ্বনাথ কলেজ ছাত্রদলের ১২ সদস্যবিশিষ্ট আহ্বায়ক কমিটি : 

ওসমানীনগর উপজেলা ছাত্রদলের ২১ সদস্যবিশিষ্ট আহ্বায়ক কমিটি :

তাজপুর ডিগ্রী কলেজ ছাত্রদলের ১৩ সদস্যবিশিষ্ট আহ্বায়ক কমিটি :

গোলাপগঞ্জ উপজেলা ছাত্রদলের ২১ সদস্যবিশিষ্ট আহ্বায়ক কমিটি :

গোলাপগঞ্জ পৌর ছাত্রদলের ২০ সদস্যবিশিষ্ট আহ্বায়ক কমিটি :

ঢাকা দক্ষিণ ডিগ্রী কলেজ ছাত্রদলের ২১ সদস্যবিশিষ্ট আহ্বায়ক কমিটি : 

বিয়ানীবাজার উপজেলা ছাত্রদলের ১৯ সদস্যবিশিষ্ট আহ্বায়ক কমিটি :

বিয়ানীবাজার পৌর ছাত্রদলের ০৩ সদস্যবিশিষ্ট আহ্বায়ক কমিটি :

বিয়ানীবাজার কলেজ ছাত্রদলের ১৬ সদস্যবিশিষ্ট আহ্বায়ক কমিটি :

জৈন্তাপুর উপজেলা ছাত্রদলের ২১ সদস্যবিশিষ্ট আহ্বায়ক কমিটি : 

জৈন্তাপুর ডিগ্রী কলেজ ছাত্রদলের ০৮ সদস্যবিশিষ্ট আহ্বায়ক কমিটি : 

তৈয়ব আলী ডিগ্রী ছাত্রদলের ০৬ সদস্যবিশিষ্ট আহ্বায়ক কমিটি :

হযরত শাহজালাল ডিগ্রী কলেজ ছাত্রদলের ১১ সদস্যবিশিষ্ট আহ্বায়ক কমিটি : 

গোয়াইনঘাট উপজেলা ছাত্রদলের ২১ সদস্যবিশিষ্ট আহ্বায়ক কমিটি : 

গোয়াইনঘাট সরকারি কলেজ ছাত্রদলের ২১ সদস্যবিশিষ্ট আহ্বায়ক কমিটি :

কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা ছাত্রদলের ১৭ সদস্যবিশিষ্ট আহ্বায়ক কমিটি : 

এম সাইফুর রাহমান ডিগ্রী ছাত্রদলের ০৪ সদস্যবিশিষ্ট আহ্বায়ক কমিটি : 

জকিগঞ্জ পৌর ছাত্রদলের ০৫ সদস্যবিশিষ্ট আহ্বায়ক কমিটি : 

ইছামতি ডিগ্রী কলেজ ছাত্রদলের ০৪ সদস্যবিশিষ্ট আহ্বায়ক কমিটি : 

কানাইঘাট উপজেলা ছাত্রদলের ২১ সদস্যবিশিষ্ট আহ্বায়ক কমিটি :

কানাইঘাট পৌর ছাত্রদলের ০৮ সদস্যবিশিষ্ট আহ্বায়ক কমিটি : 

কানাইঘাট সরকারি কলেজ ছাত্রদলের ০৯ সদস্যবিশিষ্ট আহ্বায়ক কমিটি : 

গাছবাড়ি ডিগ্রী কলেজ ছাত্রদলের ১৭ সদস্যবিশিষ্ট আহ্বায়ক কমিটি :

সাংবাদিক নির্যাতনের প্রতিবাদে মানববন্ধন

নিজস্ব প্রতিনিধি: আমার হবিগঞ্জের চীফ রিপোর্টার তারেক হাবিব, সময় টিভির কক্সবাজার প্রতিনিধি সুজা উদ্দিন রুবেল, এবং বিজয় টিভির সাভার প্রতিনিধি জুলহাস উদ্দিন সন্ত্রাসী হামলার শিকার ও দেশে ধারাবাহিকভাবে গণমাধ্যমকর্মীদের ওপর সন্ত্রাসী হামলা এবং করোনা পরিস্থিতিতে অমানবিকভাবে বিভিন্ন গণমাধ্যমের কর্মী ছাটাইয়ের প্রতিবাদে সিলেটে পালিত হয়েছে মানববন্ধন কর্মসূচি।

সোমবার (৭ সেপ্টেম্বর) দুপুরে সিলেট কেন্দ্রিয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে ইলেকট্রনিক মিডিয়া জার্নালিস্ট এসোসিয়েসন (ইমজা) সিলেট আয়োজিত মানববন্ধনে সিলেটের সকল স্তরের গণমাধ্যমকর্মীরা অংশ নেন।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, দেশে গণমাধ্যমকর্মীদের ওপর হামলা নির্যাতনের কোনো বিচার হচ্ছে না। দীর্ঘ সূত্রিতায় ঝুলে থাকছে একের পর এক সন্ত্রাসী হামলা ও হত্যার ঘটনা। এরই ধারাবাহিকতায় সম্প্রতি সময় টিভির কক্সবাজার প্রতিনিধি সুজা উদ্দিন রুবেল, আমার হবিগঞ্জের চীফ রিপোর্টার তারেক হাবিব এবং বিজয় টিভির সাভার প্রতিনিধি জুলহাস উদ্দিন সন্ত্রাসী হামলার শিকার হন। তাদের ওপর হামলারও কোনো বিচার হবে না বলে সহকর্মীরা আশংকা করছে। গণতান্ত্রিক দেশে গণমাধ্যমের মুখ বন্ধ করলে, গণমাধ্যমের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে না পারলে গণতন্ত্রের কোনো মূল্য থাকে না। যার প্রমাণ দেখা যাচ্ছে সাবেক সেনা কর্মকর্তা বা প্রশাসনের দায়িত্বশীলদের ওপর সন্ত্রাসীদের হামলে পড়ার ঘটনায়।

অবিলম্বে হামলাকারীদের চিহ্নিত করে আইনের আওতায় নিয়ে আসার দাবি জানিয়ে বক্তারা বলেন, গণমাধ্যমকর্মী এবং প্রশাসনের দায়িত্বশীলদের ওপর হামলা কোনো বিচ্ছিন্ন ঘটনা হতে পারে না। যারা দেশের গণতন্ত্রকে অকার্যকর করতে চায়, তারাই এসব ঘটাচ্ছে। কিন্তু আশ্চর্যজনকভাবে সরকার এসব ব্যাপারে নির্বিকার।

বক্তারা বলেন, একদিকে নির্যাতন অন্যদিকে করোনা পরিস্থিতিতে গোপনে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান থেকে সাংবাদিক ছাটাইয়ের প্রতিযোগিতা শুরু হয়েছে। করোনায় আয় নেই এমন অজুহাত দেখিয়ে অনেক গণমাধ্যমকর্মীর বেতন বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। কিন্তু দীর্ঘদিন ধরে কর্মীদের প্ররিশ্রমের কারণে লাভ করে আসা প্রতিষ্ঠানগুলো সংকটকালে কর্মীদের তার কোনো প্রতিদান দিচ্ছে না। সাংবাদিক নির্যাতনের প্রতিবাদ ও সকল ঘটনার সুষ্ঠু বিচারের মাধ্যমে জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন বক্তারা।

ইমজার সাধারণ সম্পাদক ও এটিএন নিউজের সিলেট প্রতিনিধি সজল ছত্রীর সঞ্চালনায় ও ইমজার সভাপতি, যমুনা টিভির সিলেট ব্যুরো প্রধান মাহবুবুর রহমান রিপনের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, সিলেট প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি ও সময় টিভির সিলেট ব্যুরো প্রধান ইকরামুল কবির, ইমজার সাবেক সভাপতি আশরাফুল কবীর, সহ-সভাপতি আনিস রহমান, সাবেক সাধারণ সম্পাদক আব্দুল আলিম শাহ, সিলেট ফটো জার্নালিস্ট এসোসিয়েসনের সভাপতি মামুন হাসান, টিভি ক্যামেরা জার্নালিস্ট এসোসিয়েসনের সাধারণ সম্পাদক ইকবাল মুন্সী প্রমুখ।

মানবনন্ধনে আরো উপস্থিত ছিলেন টিভি ক্যামেরা জার্নালিস্ট এসোসিয়েসনের সভাপতি দ্বিগেন সিংহ, ডেইলি স্টারের শেখ নাসির, ইমজার সহ-সাধারণ সম্পাদক প্রত্যুষ তালুকদার, ইমজার নির্বাহি সদস্য এস আলম আলমগীর, এনটিভির মারুফ আহমদ, চ্যানেল টুয়েন্টিফোরের গোলজার আহমদ, এসএটিভির শ্যামানন্দ শ্যামল, ইমজার প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক হোসাইন আহমদ সুজাদ, ইমজার তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয় সম্পাদক শুভ্র দাস রাজন, যমুনা টিভির নিরানন্দ পাল, মোহনা টিভির শামিম হোসেইন, এটিএন নিউজের অনিল পাল, নিউজটুয়েন্টিফোরের শফি আহমদ, ইন্ডিপেডেন্ট টিভির মাধব কর্মকার, ডিবিসির নিউজের সেলিম হাসান, যমুনা টিভির সোহাগ যাদু, আনন্দ টিভির টুনু তালুকদার, এটিএন বাংলা ইউকের শফিকুল ইসলাম শফি, দৈনিক সংবাদের ইদ্রিছ আলী, এসএ টিভির আবু বকর আল আমিন, রুহিন আহমদ প্রমুখ।

জকিগঞ্জে ৫ ব্যবসায়ীকে জরিমানা

নিজস্ব প্রতিনিধি, সিলেট: সিলেটের জকিগঞ্জে মেয়াদোত্তীর্ণ পণ্য বিক্রয় ও স্বাস্থ্যবিধি না মানায় ৫ ব্যবসায়ীকে জরিমানা করেছেন উপজেলা প্রশাসন পরিচালিত ভ্রাম্যমাণ আদালত।

রোববার বিকেলে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন জকিগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সুমী আক্তার।

এসময় মেয়াদোত্তীর্ণ খাদ্য বিক্রির দায়ে জকিগঞ্জ বাজারের ব্যবসায়ী গন্ধদত্ত গ্রামের আব্দুল মালিকের ছেলে নজরুল ইসলামকে দুই হাজার, বাবুর বাজারের ফল ব্যবসায়ী আব্দুল জলিলের পুত্র আব্দুল ওয়াহিদকে এক হাজার টাকা, স্বাস্থ্যবিধি না মানায় ঔষধ বিক্রেতা হেলাল আহমদকে এক হাজার, ইলাবাজ গ্রামের আব্দুন নুরের ছেলে ওসমান গনি, পশ্চিমবন্দ গ্রামের সজল বিশ্বাসের ছেলে চন্দন বিশ্বাস ও গুয়াবাড়ী গ্রামের আব্দুল মালিকের পুত্র তাজুল ইসলাম প্রত্যেককে পাঁচশত টাকা করে জরিমানা করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

জনস্বার্থে এ ধরণের অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে জানিয়েছেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সুমী আক্তার।

দূর্নীতি-দুশাসন, মহামারি-দুর্ভিক্ষের জন্য দায়ী প্রচলিত সমাজব্যবস্থা

প্রেস বিজ্ঞপ্তি: দূর্নীতি, দুশাসন, দূর্যোগ, মহামারি-মহাদূর্ভিক্ষের জন্য দায়ী নয়াউপনিবেশিক আধাসামন্তবাদী ব্যবস্থা পরিবর্তনের সংগ্রাম বেগবান করার আহবানে দেশব্যাপী কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে জাতীয় গণতান্ত্রিক ফ্রন্ট সিলেট জেলা শাখা শনিবার (৫ সেপ্টেম্বর) বিকেল ৫ টায় বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করে। সংগঠনরে জেলা কার্যালয় থেকে বিক্ষোভ মিছিল শুরু হয়ে নগরীর গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে সিলেট কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারে এক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন জাতীয় গণতান্ত্রিক ফ্রন্ট সিলেট জেলা শাখার সভাপতি মোঃ সুরুজ আলী।

সমাবেশে বক্তারা দেশের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি ও আওয়ামী লীগের ছত্রছায়ায় সন্ত্রাসীদের দৌরাত্মে তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, দেশে আজ সন্ত্রাসের রাজত্ব কায়েম হয়েছে। সরকার সন্ত্রাসীদের দমনের পরিবর্তে প্রতিটি ঘটনাকে বিচ্ছিন্ন ঘটনা এবং ব্যক্তির দায় হিসেবে দেখানোর চেষ্টা করে। অথচ সরকারি দলের মদদে একের পর এক লোমহর্ষক সন্ত্রাসী কার্যক্রম ঘটে চলেছে, যা থেকে রেহাই পাচ্ছেন না সরকারের শীর্ষ পর্যায়ের কর্মকর্তারা পর্যন্ত। যার সর্বশেষ শিকার হয়ে দিনাজপুরের ঘোড়াঘাটার ইউএনও ওয়াহিদা খানম আজ জীবনমৃত্যুর সন্ধিক্ষণে চিকিৎসাধীন। সমাবেশে বক্তারা আরও বলেন, করোনাভাইরাস মহামারী মোকাবেলায় চরমভাবে ব্যর্থ হয়ে সরকার ‘আপনার সুরক্ষা, আপনার হাতে’ স্লোগান সামনে এনে কার্যত নিজেদের দায় অস্বীকার করে চলেছে।

করোনাভাইরাস সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতিতে যখন ব্যাপকভাবে সারাদেশে করোনা পরীক্ষা চালু করা উচিত তখন সরকার করোনা পরীক্ষার ফি জনগণের নিকট হতে আদায় করছে। কনোরা পরিস্থিতিতে কর্মহীন মানবেতর জীবনযাপন করা জনগণের নিকট তা ‘মরার উপর খাড়ার ঘাঁ’ তুল্য। করোনা মহামারির পাশাপাশি আম্ফান ও বন্যার দূর্যোগে দেশের শ্রমিক-কৃষক মেহনতি জনগণের জীবন দিশেহারা। আম্ফান ও বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ কৃষকদের জন্য বিনামূল্যে কৃষি উপকরণ বিতরণ, সকল কৃষি ও এনজিও ঋণ সুদসহ মওকুফ, ধান-পাটসহ কৃষিপণ্যে ক্রয়ে সকল দূর্নীতি-অনিয়ম বন্ধ করে ন্যায্যমূল্য নিশ্চিত করা জরুরী হলেও সরকার এ ব্যাপারে কার্যকর ভূমিকা নেয়নি।

তার ওপর চাল, ডাল, পিয়াজ, আলুসহ সকল নিত্যপণ্যে লাগামহীন উর্দ্ধগতিতে মেহনতি মানুষকে অনাহার-অর্ধাহারে দিনাতিপাত করতে হচ্ছে। বিদ্যুতের ভূতুড়ে বিলের চাপে জনগণকে বাড়তি বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করতে হচ্ছে। এ রকম সময়ে সরকার সাম্রাজ্যবাদ ও তাদের সংস্থাসমূহের নীতি-নির্দেশে পরিকল্পিতভাবে রাষ্ট্রায়ত্ব পাটকলকে ধারাবাহিকভাবে অলাভজনক দেখিয়ে ধ্বংস করার প্রক্রিয়ার চুড়ান্ত পদক্ষেপ হিসেবে পাটকল বন্ধ করা ও শ্রমিকদের কর্মহীন করে শ্রমিক পরিবার এবং পাটের ওপর নির্ভরশীল পাট ও পাটজাত পণ্যের ক্ষুদ্র শিল্প, পাটচাষী ও পাটব্যবসায়ীসহ কোটির অধিক জনগণের জীবন ও জীবিকাকে হুমকির মুখে ফেলে দিয়েছে।

সরকারের এহেন স্বৈরতান্ত্রিক গণবিরোধী কার্যক্রমের বিরুদ্ধে জনগণ যাতে ঐক্যবদ্ধ সংগ্রাম গড়ে তুলতে না পারে সে জন্য ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন-২০১৮সহ কালকানুন জারি করে জনগণের বাক ও মতপ্রকাশের স্বাধীনতাকে রুদ্ধ করার পাশাপাশি বিনাবিচারে হত্যা, খুন, গুম, ক্রসফায়ার চালিয়ে ভীতি ও ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করেছে। এমতবস্থায় জনস্বার্থে দূযোর্গ-মহামারী-দূর্নীতি-ক্ষুধা-দুর্ভিক্ষ মোকাবেলায় সর্বস্তরের জনগণের সোচ্চার ও ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ, খাদ্য, চিকিৎসা ও রেশনিংয়ের দাবিতে সমাবেশে থেকে বৃহত্তর আন্দোলন গড়ে তোলার আহবান জানান।

জাতীয় গণতান্ত্রিক ফ্রন্ট সিলেট জেলা শাখার দপ্তর সম্পাদক রমজান আলী পটুর পরিচালনায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন জাতীয় গণতান্ত্রিক ফ্রন্ট সিলেট জেলার সহ-সভাপতি আবুল ফাজল, জাতীয় ছাত্রদল সিলেট জেলার সাবেক সভাপতি মামুন আহমদ খান, বাংলাদেশ ট্রেড ইউনিয়ন সংঘ সিলেট জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক মো: ছাদেক মিয়া, সাবেক সাধারণ সম্পাদক শ্রমিকনেতা শেখর সেন, সিলেট জেলা প্রেস শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি একে আজাদ সরকার, সিলেট জেলা হোটেল শ্রমিক ইউনিয়নের সহ-সাধারণ সম্পাদক আনছার আলী প্রমুখ।

ফেঞ্চুগঞ্জে ট্রেনে কাটা পড়ে যুবকের মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিনিধি, সিলেট: সিলেটের ফেঞ্চুগঞ্জে ট্রেনের নিচে কাটা পড়ে আল আমিন (২২) নামের এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে।

শনিবার সকালের দিকে এ দুর্ঘটনাটি ঘটে।

সে উপজেলার উত্তর কুশিয়ারা ইউনিয়নের পাঠানচক গ্রামের আয়াজ আলীর ছেলে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সিলেট রেলওয়ে থানার সাব ইন্সপেক্টর দিপন। তিনি বলেন, ঢাকাগামী জয়ন্তিকা এক্সপ্রেসের নিচে কাটা পড়ে যুবক নিহত হয়েছে। বিস্তারিত জানতে দূর্ঘটনাস্থলের সিলেট রেলওয়ে থানা পুলিশের একটি দল গেছে।

প্রতক্ষ্যদর্শীরা জানান, আজ শনিবার দিকে উপজেলার উস্তারের ও মোস্তফার সড়কের রেলওয়ের মধ্যেখানে ঢাকাগামী জয়ন্তিকা এক্সপ্রেসের নিচে কাটা পড়ে আল আমিনের মৃত্যু হয়।

এই সময় তার দেহ ছিন্নভিন্ন টুকরা রেলওয়ের আশেপাশে পাওয়া যায়। তবে কিভাবে আল আমিন ট্রেনের নিচে কাটা পড়ে সেই তথ্য এখনো পাওয়া যায়নি।

সিলেটে বাসচাপায় দাদি-নাতী নিহত

নিজস্ব প্রতিনিধি, সিলেট: সিলেটে রাস্তা পারাপারের সময় বাসচাপায় দাদি ও নাতী নিহত হয়েছেন।

বৃহস্পতিবার রাত ৮টার দিকে সিলেট-ফেঞ্চুগঞ্জ সড়কের পারাইরচক এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। পুলিশ ঘাতক বাস আটক করেছে।

নিহতরা হচ্ছেন, সিলেটের দক্ষিণ সুরমা উপজেলার দাউদপুর গাংপার গ্রামের আহমদ আলীর ছেলে রাহাত (৭) ও তার দাদি বিবিজান বেগম (৬৫)।

মহানগর পুলিশের মোগলাবাজার থানার ওসি ছাহাবুল হোসেন জানান, রাস্তা পারাপারের সময় বাসচাপায় দাদি-নাতী নিহত হয়েছেন। ময়নাতদন্তের জন্য তাদের লাশ উদ্ধার করে ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

সিলেটে প্রতিপক্ষের হামলায় যুবকের মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিনিধি, সিলেট: সিলেট সদর উপজেলার ৩নং খাদিমনগরের ইউনিয়নের ছালেহ পুর গ্রামে প্রতিপক্ষের হামলায় তানভির আহমদ (২০) নামের এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। তিনি ওই গ্রামের শফিক মিয়ার ছেলে।

বুধবার (৩ সেপ্টেম্বর) রাতে সিলেট ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। এরআগে ওইদিন বিকেলে পূর্ব বিরোধের জেরে একই গ্রামের আব্দুল গণির ছেলেরা তাদের বাড়ির সামনে তানভিরের উপর হামলা চালায়। এসময় তারা তানভিরের মাথায় ও ঘাড় বেশ কয়েকটি ছুরিকাঘাত করে। পরে গুরুতর আহতবস্থায় তাকে উদ্ধার করে সিলেট ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

নিহতের পিতা শফিক মিয়া বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, জায়গা সংক্রান্ত বিরোধ চলছে আব্দুল গণির পরিবারের সাথে। পূর্বে গণি মিয়ার ছেলে তোয়াহিদ, ভাতিজা পাপ্পু আমার উপর হামলা চালায়। বিষয়টি মিমাংসা হলে তারা আমার ছেলেকে একাধিকবার আক্রমণ করা চেষ্টা করে। বুধবার বিকেলে আমার ছেলে বাড়ি থেকে বের হয়ে বাজারের দিকে যাওয়ার পথে গণি মিয়ার ছেল ও ভাতিজা তাদের নয়া বাড়ির সামনে হামলা চালায়।

তিনি আরও বলেন, আমার ছেলে মাথায় ও ঘাড়ে ৭-৮টি ছুরিকাঘাত করা হয়েছে। মাথার আঘাতটি গুরুতর হওয়ায় অতিরিক্ত রক্ত করণে আমার ছেলের মৃত্যু হয়েছে বলে হাসপাতালের চিকিৎসকরা জানান। আমার ছেলে ৫ম শ্রেণী পড়ালেখা করার পর আর পড়াশুনা করেনি। ২ ভাই ও ২ বোনের নিহত তানভির আমার বড় ছেলে। গত কয়েকমাস পূর্বে থেকে তাকে ড্রাইভিং শিখাচ্ছি।

 

সিলেটে ওসি-এসপি সেজে প্রতারণা!

নিজস্ব প্রতিনিধি, সিলেট: কখনো ওসি আবার কখনো বা পরিচয় দিত পুলিশ সুপারের (এসপি)। হোয়াটস অ্যাপেও নিজেদের নাম্বারে ব্যবহার করতো পুলিশ কর্মকর্তাদের ছবি। ভুয়া পরিচয়ে হোয়াটস অ্যাপে কথা বলে প্রতারণা করতো প্রবাসীদের সাথে। এমন প্রতারক চক্রের সন্ধান পেয়েছে পুলিশ।

প্রতারক চক্রের মূল হোতা সিলেটের ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলার কাজী বাড়ি গ্রামের মৃত হাবিবুর রহমানের ছেলে কাজী অপুকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তার ভাই কাজী টিপুসহ ওই চক্রের অন্য সদস্যদের ধরতে অভিযান চলছে বলে জানিয়েছেন সিলেটের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. লুৎফর রহমান।

পুলিশ জানায়, গত ফেব্রুয়ারিতে দেশে আসার পর ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলার রাজনপুর গ্রামের আরব আমিরাত প্রবাসী শেখ মোরশেদ আহমদের সাথে পরিচয় হয় কাজী অপু ও কাজী টিপুর সাথে। এক পর্যায়ে নানা প্রলোভন দেখিয়ে মোরশেদকে দিয়ে ১৯ লাখ টাকা দিয়ে ৩টি মাইক্রোবাস (নোহা) গাড়ি ক্রয় করায় তারা।
ক্রয়কৃত গাড়ির কাগজপত্র হালনাগাদ করার কথা বলে গত ৩০ জুন মোরশেদের কাছ থেকে চার লাখ টাকা নেন অপু ও তার ভাই। এরপর থেকে টালবাহনা শুরু করেন তারা। গত ২৭ আগস্ট কাজী অপু একটি মাইক্রোবাসের বিক্রয়ের বায়নামাপত্র দেন শেখ মোরশেদকে। ওই কাগজপত্রে বিআরটিএ কর্মকর্তার দেয়া স্বাক্ষর নিয়ে সন্দেহ হলে খোঁজ নিয়ে প্রতারণার বিষয়টি অবগত হতে পারেন ক্রেতা। এরপর থেকে ফেঞ্চুগঞ্জ থানার ওসি ও সিলেটের পুলিশ সুপার সেজে ফোনে শেখ মোরশেদকে গাড়ির কাগজপত্র হালনাগাদ ও ডিজিটাল নাম্বার প্লেটের ব্যবস্থা করে দেয়ার ব্যাপারে আশ্বস্ত করা হতো।
হোয়াটসঅ্যাপে ওসি ও এসপির ছবি সংযুক্ত করে রাখায় প্রথম দিকে শেখ মোরশেদ প্রতারণার বিষয়টি টেরই পাননি। পরে কাজী অপু ও তার ভাই কাজী টিপুর কারসাজির কথা বুঝতে পেরে বুধবার ফেঞ্চুগঞ্জ থানায় মামলা করেন শেখ মোরশেদ। পুলিশ কাজী অপুকে গ্রেফতার করেছে।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. লুৎফর রহমান জানান, কাজী অপু এডিট করে গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের সাথে তাদের ছবি যুক্ত করে মানুষের সাথে প্রতারণা করতো। গ্রেফতারের পর তার কাছ থেকে প্রতারণা ও জালিয়াতির প্রমাণাদি উদ্ধার করা হয়েছে। এই চক্রের বাকি সদস্যদের গ্রেফতারে তাকে রিমান্ডে আনা হবে বলে জানান মো. লুৎফর রহমান।

বিশ্বনাথে কিশোরীকে ধর্ষণ, ধর্ষক গ্রেপ্তার

বিশ্বনাথ (সিলেট) প্রতিনিধি: সিলেটের বিশ্বনাথে এক কিশোরী (১৮) ধর্ষণের শিকার হয়েছে। এ ঘটনায় ফয়ছল আহমদ (২১) নামের এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে থানা পুলিশ।

সে উপজেলার খাজাঞ্চী ইউনিয়নের কান্দিগাঁও গ্রামের লালু মিয়ার ছেলে।

সোমবার (৩১ আগস্ট) বিকেলে আদালতের মাধ্যমে তাকে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। এর আগে রোববার রাতে স্থানীয় রাজাগঞ্জ বাজার থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন থানা পুলিশের এসআই নুর হোসেন। তিনি বলেন, রোববার ধর্ষককে গ্রেপ্তারের পর সোমবার আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। আর ওই মেয়েকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

নির্যাতিতার বাবা জানান, দারিদ্রতার জন্যে ৫ বছর বয়সে আখলুছ আলী নামের এক সৌদি প্রবাসীর কাছে তার মেয়েকে দত্তক দেন। আখলুছ আলী প্রবাসে থাকায় তার স্ত্রী জোছনা বেগম ওই মেয়েকে নিয়ে একা বাড়িতে বসবাস করছিলেন। গত ২৬ আগস্ট রাতে তাদের ঘরে ঢুকে পাশের বাড়ির বখাটে ফয়ছল জোরপূর্বক ওই মেয়েকে ধর্ষণ করে। পরে পালক মাতা জোছনা বেগম মেয়েটির বাবাকে মোবাইল ফোনে বিষয়টি জানালে ওই রাতেই তারা মেয়েটিকে কাদিপুরস্থ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে ভর্তি করেন।

সেখানে দুইদিন চিকিৎসা দেওয়ার পর ২৮ আগস্ট বিকেলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ মেয়েটিকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠান। বর্তমানে মেয়েটি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওসিসিতে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এ ঘটনায় গত রোববার রাতে নির্যাতিতার বাবা বিশ্বনাথ থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা দায়ের করেন। (মামলা নং ২৪)।

তবে, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আব্দুর রহমান মুসা বলেন, গত ২৮ আগস্ট বিকেল পৌনে ৪টার দিকে ওই মেয়েকে হাসপাতালে আনা হলে সাথে সাথে তাকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওসিসিতে পাঠানো হয়।

 

সিলেটে রিক্সা চালকের লাশ উদ্ধার

নিজস্ব প্রতিনিধি, সিলেট: সিলেটের বিশ্বনাথে রিকশার চাকায় বাঁধা শফিক আলী (৩৪) নামে রিকশাচালকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

শুক্রবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে বিশ্বনাথ উপজেলা সদরের রাজনগর দাস পাড়া গ্রামের পাকা রাস্তা থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়।

শফিক আলী মানিকগঞ্জ জেলার সিংগাইর উপজেলার পারিল নওয়াদা গ্রামের শাহাজাহান মিয়ার ছেলে। তিনি দীর্ঘদিন ধরে বিশ্বনাথ উপজেলার শাহজিরগাঁও গ্রামের হাজী মোস্থফা মিয়ার বাড়িতে সপরিবারে বসবাস করে আসছে।

পুলিশ জানায়, লাশে গলায় লাগানো একটি রশি রিকশার চাকার সঙ্গে বাঁধা ছিল। সুরতহাল রিপোর্ট শেষে রাতেই লাশ ময়নাতদন্তের জন্য সিলেট ওসমানী হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। এছাড়াও ঘটনাস্থল থেকে তার রিকশাটি উদ্ধার করা হয়েছে।

এ ঘটনায় শনিবার নিহতের ছোট ভাই রফিক আলী (২৮) বাদি হয়ে অজ্ঞাতনামা আসামি করে বিশ্বনাথ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। তার মাথার ডান পাশে ভারী অস্ত্র দিয়ে রক্তাক্ত জখম আর গলায় রশি পেঁচিয়ে শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়েছে বলে মামলার এজাহারে উল্লেখ রয়েছে।

এ ব্যাপারে থানার ওসি শামীম মূসা বলেন, হত্যার রহস্য উদঘাটনের জন্য পুলিশি তৎপরতা অব্যাহত রয়েছে।

সিলেটে বাস-অটো সংঘর্ষে নিহত ৩

নিজস্ব প্রতিনিধি, সিলেট: সিলেটের গোলাপগঞ্জে বাস ও অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষে তিনজন নিহত হয়েছেন। দুর্ঘটনায় বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন।

শনিবার সকালে সিলেট-জকিগঞ্জ সড়কের চৌঘরী এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

তাৎক্ষণিকভাবে হতাহতদের পরিচয় জানা যায়নি। আহতদের ‍উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

গোলাপগঞ্জ থানার ওসি মো. হারুনুর রশিদ চৌধুরী দুর্ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

সিলেটের সুরমা নদীতে মুহুরীর লাশ

নিজস্ব প্রতিনিধি, সিলেট: সিলেট আদালতের এক মুহুরীর (আইনজীবী সহকারী) লাশ সুরমা নদী থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। তার নাম মো. আব্দুল ওয়াহিদ (৬০)।

শুক্রবার লাশটি উদ্ধার করে কোতোয়ালি মডেল থানা পুলিশ। লাশটির মাথায় তিনটি কাটা দাগ ও শরীরে বেশ কয়েকটি কাটাছেঁড়ার দাগ রয়েছে।

নিহত আব্দুল ওয়াহিদ দক্ষিণ সুরমার শ্রীরামপুর এলাকার মনির উদ্দিনের ছেলে। বুধবার বাড়ি থেকে বেরিয়ে যাওয়ার পর আর বাড়ি ফেরেননি তিনি।

সুরতহাল রিপোর্টের বরাত দিয়ে সিলেট মহানগর পুলিশের উপকমিশনার জ্যোতির্ময় সরকার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, গত বুধবার থেকে আব্দুল ওয়াহিদ নিখোঁজ ছিলেন। শুক্রবার দুপুরে খবর পেয়ে পুলিশ কানিশাইল এলাকার সুরমা নদী থেকে ভাসমান অবস্থায় তার লাশ উদ্ধার করে।

পুলিশের ধারণা- ওয়াহিদের নিখোঁজ হওয়া ও মৃত্যু দুটোই রহস্যজনক। রহস্য উদঘাটনের লক্ষ্যে লাশ উদ্ধারের পর ময়নাতদন্তের জন্য এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

সিলেটে পরিবহণ ধর্মঘট প্রত্যাহার

নিজস্ব প্রতিনিধি, সিলেট: প্রশাসনের হস্তক্ষেপে সিলেটের জৈন্তাপুরের সারিঘাটে জেলা ট্রাক মালিক গ্রুপ এবং সিলেট জেলা ট্রাক, পিকআপ ও কাভার্ড ভ্যান শ্রমিক ইউনিয়ন তাদের ডাকা ধর্মঘট প্রত্যাহার করে নিয়েছেন।

রোববার (২৩ আগস্ট) বেলা ৩টায় সিলেট জেলা পুলিশ কার্যালয়ে পুলিশ সুপারের নেতৃত্বে এক বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

সেই বৈঠকে বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনার পর নেতৃবন্দ ধর্মঘট প্রত্যাহার করে নেন। এসময় ভার্চুয়াল পদ্ধতিতে বৈঠকে অংশ নেন সিলেটের জেলা প্রশাসক এম.কাজী এমদাদুল ইসলাম।

সিলেট জেলা ট্রাক মালিক গ্রুপের সভাপতি গোলাম হাদী ছয়ফুল বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, সিলেট–তামাবিল মহাসড়কে বাঁশকল বসিয়ে রয়েলটির নামে চাঁদাবাজি, সড়কে চাঁদাবাজিসহ কয়েকটি দাবিতে আমরা ধর্মঘট করছিলাম।

রবিবার (২৩ আগস্ট) দুপুরে প্রশাসনের পক্ষ থেকে আমাদের সাথে বৈঠক করা হবে বলে জানানো হয়। পরে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে আমরা বৈঠকে বসলে আমরা আমাদের দাবি জানাই।

এসময় আমাদের দাবিগুলো তারা যথার্থ মনে করেন এবং আশ্বস্ত করেন এসব বিষয় তারা গুরত্বসহকারে খতিয়ে দেখবেন। এরপর আমাদেরকে অবরোধ তুলে নেয়ার জন্য অনুরোধ করলে আমরা নেতৃবৃন্দরা শ্রমিকদের বুঝিয়ে অবরোধ তুলে নেই।