Category Archives: আন্তর্জাতিক

গাছে উঠে ভাষণ দিলেন শ্রীলঙ্কার মন্ত্রী

করাঙ্গীনিউজ ডেস্ক: নারকেল গাছে উঠে ভাষণ দিয়েছেন শ্রীলঙ্কার এক মন্ত্রী। লোকজনকে নারকেলের সংকট বোঝাতেই নারকেল গাছে উঠে ভাষণ দেওয়ার অভিনব পন্থা অবলম্বণ করেছেন ওই মন্ত্রী।

অরুন্দিকা ফার্নান্দো নামের ওই মন্ত্রী জানিয়েছেন, দেশজুড়ে নারকেলের তীব্র সংকট দেখা দিয়েছে। সে কারণেই তিনি একটি নারকেল গাছ বেয়ে উঠে লোকজনকে উদ্দেশ্য করে ভাষণ দিয়েছেন।

তিনি বলেন, স্থানীয় শিল্প এবং অভ্যন্তরীণ ব্যবহারের জন্য দেশজুড়ে যে পরিমাণ নারকেলের প্রয়োজন তা পাওয়া যাচ্ছে না। দেশজুড়ে র্ব্তমানে ৭শ মিলিয়ন নারকেলের সংকট দেখা দিয়েছে।

নিউজ ফার্স্টের এক প্রতিবেদনে ফার্নান্দোর বরাত দিয়ে বলা হয়েছে, দেশের জমির প্রতিটি প্লট নারকেল চাষের জন্য ব্যবহার করতে হবে। এর মাধ্যমে দেশের অর্থনীতি গতিশীল হবে।

তিনি আরও বলেন, নারকেলের উৎপাদন বাড়িয়ে দেশের চাহিদা পূরণের পাশাপাশি তা বিদেশেও রফতানি করা সম্ভব হবে।

অরুন্দিকা ফার্নান্দো বলেন, দেশে নারকেলের সংকট থাকলেও সরকার দাম কমানোর পরিকল্পনা করছে। সরকার চাচ্ছে খুব দ্রুত এই সমস্যার সমাধান করতে।

গাছে উঠে এভাবে ভাষণ দেওয়ার ঘটনা খুব একটা দেখা যায় না। এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ওই মন্ত্রীকে গাছ থেকে নামাতে গিয়ে বেশ বিপাকে পড়তে হয়েছে তার সমর্থকদের।

প্রণব মুখার্জী আর নেই

করাঙ্গীনিউজ ডেস্ক: ভারতের সাবেক রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জি আর নেই। দিল্লির আর্মি হাসপাতাল রিসার্চ অ্যান্ড রেফারালেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। মৃত্যুকালে বয়স হয়েছিল প্রায় ৮৫ বছর।

আজ সোমবার বিকেল পৌনে ৬টায় তার পুত্র অভিজিৎ মুখার্জী টুইট করে এ খবর জানিয়েছেন।

গত ৯ আগস্ট রাতে নিজের দিল্লির বাড়িতে শৌচাগারে পড়ে গিয়েছিলেন প্রণব মুখার্জী। পর দিন সকাল থেকে তার স্নায়ুঘটিত কিছু সমস্যা দেখা দেয়। বাঁ হাত নাড়াচাড়া করতে সমস্যা হচ্ছিল। চিকিৎসকদের পরামর্শে দ্রুত ভর্তি করা হয় হাসপাতালে।

এমআরআই স্ক্যানে দেখা যায়, তার মাথার ভিতর রক্ত জমাট বেঁধে রয়েছে। জরুরি ভিত্তিতে অস্ত্রোপচারের সিদ্ধান্ত নেন চিকিৎসকরা। কিন্তু অস্ত্রোপচারের পর অবস্থার উন্নতি হয়নি। ১৩ আগস্ট থেকে তিনি গভীর কোমায় চলে যান। প্রণব মুখার্জী দীর্ঘ দিন ধরে ডায়াবেটিসে ভুগছিলেন।

১০ আগস্ট হাসপাতালে ভর্তির পর ধরা পড়ে, তিনি কোভিড-১৯ আক্রান্তও হয়েছেন। সেই অবস্থাতেই ওই দিন রাতে দীর্ঘ অস্ত্রোপচার হয়। তার পর থেকে ভেন্টিলেশনে রাখা হয়েছিল প্রণব মুখার্জীকে। অস্ত্রোপচারের আগে, নিজের করোনা সংক্রমিত হওয়ার খবর টুইট করে জানিয়েছিলেন তিনিই। সেটাই ছিল প্রণব মুখার্জীর শেষ টুইট।

উল্লেখ্য, স্বাধীনতা উত্তর সর্বভারতীয় রাজনীতির সফলতম বাঙালি প্রণব মুখার্জি ২০১২ থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত ভারতের রাষ্ট্রপতি ছিলেন। অর্থ, পররাষ্ট্র, প্রতিরক্ষা, যোগাযোগ, রাজস্ব ইত্যাদি বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রণালয়ে দায়িত্ব পালন করেছেন তিনি। দেশের প্রতি অবদানের জন্য তাকে ভারতের সর্বোচ্চ ও দ্বিতীয় সর্বোচ্চ অসামরিক সম্মান ভারতরত্ন ও পদ্মবিভূষণ এবং শ্রেষ্ঠ সাংসদ পুরস্কারে ভূষিত করা হয়েছে। ১৯৮৪ সালে, যুক্তরাজ্যের ইউরোমানি পত্রিকার একটি সমীক্ষায় তিনি বিশ্বের শ্রেষ্ঠ পাঁচ অর্থমন্ত্রীর অন্যতম হিসেবে বিবেচিত হন।

সৌদিতে করোনা কেড়ে নিল চুনারুঘাটের যুবকের প্রাণ

করাঙ্গীনিউজ: করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে সৌদি আরবে বাংলাদেশি এক ব্যবসায়ীর মৃত্যু হয়েছে। তার নাম মো. সাহাব উদ্দীন (৪০)।

শুক্রবার স্থানীয় সময় রাত ৮টায় জেদ্দা শহরের সুলেমানীয়া হাসপাতালে তিনি চিকিৎসাধীন থেকে মারা যান।

নিহত ব্যবসায়ী সাহাব উদ্দিন হবিগঞ্জের চুনারুঘাট উপজেলার নুর মোহাম্মদপুর গ্রামের আবু সাঈদ মিয়ার ছেলে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেন জেদ্দায় বসবাসরত বাঙ্গালী কমিউনিটির নেতা মো. আবদুল ওয়াদুদ।

জানা যায়, সৌদি আরবের জেদ্দা শহরের ব্যবসায়ী মো. সাহাব উদ্দীন বেশ কিছুদিন ধরে করোনার উপসর্গে ভুগছিলেন। এরপর নমুনা পরীক্ষা করালে তার করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসে।

গত ১৪ আগস্ট সৌদি আরবের জেদ্দা শহরের সুলেমানীয়া হাসপাতালে তাকে ভর্তি করা হয়। ১৪ দিন তিনি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন।

শুক্রবার রাত ৮টায় চিকিৎসাধীন থেকে তিনি মারা যান।

নিহতের পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, প্রায় ২০ বছর আগে জীবিকার তাগিদে সৌদি আরবে পাড়ি জমান সাহাব উদ্দিন। সৌদি আরবের জেদ্দা শহরে নিজের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান দিয়েছিলেন তিনি। তিনি এক ছেলে ও এক মেয়ের জনক।

৫১ মুসল্লিকে হত্যার দায়ে ব্রেন্টন ট্যারেন্টের যাবজ্জীবন

করাঙ্গীনিউজ: নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টার্চে দুটি মসজিদে জুমার সময় এলোপাতাড়ি গুলি করে ৫১ মুসল্লিকে হত্যার দায়ে সাদা শ্রেষ্ঠত্ববাদী ব্রেন্টন ট্যারেন্টকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে। সাজার রায়ে এই ঘৃণ্য অপরাধীর জন্য কোনো প্যারোলের সুযোগ রাখা হয়নি।

দেশটিতে এই প্রথমবারের মতো কোনো অপরাধীকে এমন শাস্তি দেয়া হয়েছে। বার্তা সংস্থা রয়টার্সের খবরে এমন তথ্য পাওয়া গেছে।

ট্যারেন্টকে রায়ের শুনানির জন্য সোমবার আদালতে হাজির করা হয়েছিল। কয়েক দিনের শুনানির পর ভুক্তভোগীদের পরিবার সদস্যদের উপস্থিতিতে তার সাজার রায় ঘোষণা করা হয়েছে।

রোববার রায়ের শুনানির জন্য তাকে ক্রাইস্টচার্চে নিয়ে আসা হয়েছে।

টেলিভিশনের ভিডিও ফুটেজে দেখা গেছে, রোববার বিকালে স্থানীয় বিমানবন্দরে বিমান বাহিনীর একটি বিমান থেকে তাকে নামানো হয়। এ সময় তার শরীরে সুরক্ষা পোশাক ও মাথায় হেলমেট ছিল।

সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যরা তাকে ঘিরে রেখেছিল। এরপর একটি সাদা ভ্যানের পেছনে চড়িয়ে নিয়ে যাওয়া হয় এই উগ্রপন্থীকে।

৫১ মুসল্লিকে হত্যা, ৪১ জনকে হত্যাচেষ্টা ও একটি সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের অভিযোগের দোষ স্বীকার করেছে এই অস্ট্রেলীয় সন্ত্রাসী।

নিউজিল্যান্ড হেরাল্ডের খবরে জানা গেছে, অকল্যান্ডের পারেমোরেমোতে অবস্থিত কারাগার থেকে ঘটনাস্থল ক্রাইস্টচার্চে নিয়ে যাওয়া হয়েছে তাকে।

আদালতের শুনানিতে হামলা থেকে বেঁচে যাওয়া লোকজন ও নিহতদের পরিবারের সদস্যরা তাদের বক্তব্য রাখেন। রায় ঘোষণার আগে ব্রেন্টন ট্যারেন্টকেও জবানবন্দি দেয়ার সুযোগ দেয়া হয়েছে।

নিউজিল্যান্ডে হত্যা মামলায় দোষী সাব্যস্ত হলে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের বিধান আছে। মুক্তির কোনো সম্ভাবনা না রেখেই বিচারকের এমন রায় দেশটিতে একেবারে বিরল।

শরীর চর্চার প্রশিক্ষক ট্যারেন্ট অস্ট্রেলিয়া থেকে নিউজিল্যান্ডে যান ২০১৭ সালে। এরপর অস্ত্র সংগ্রহ করে হত্যার ষড়যন্ত্র করে। ২০১৯ সালের ১৫ মার্চ যার বাস্তবায়ন ঘটে।

তার স্বজনদের সাক্ষাৎকার থেকে জানা গেছে, তার বয়স যখন কুড়ি, তখন বাবার উত্তরাধিকার সূত্রে ইউরোপ ভ্রমণের সময় সে উগ্রপন্থার সংস্পর্শে আসে। আর ইন্টারনেটের মাধ্যমে উগ্রপন্থীদের সঙ্গে পরিচয় ঘটে তার।

মসজিদে হামলার আগে অনলাইনে প্রকাশ করা এক ইশতেহারে মুসলমান ও অ-ইউরোপীয় অভিবাসীদের প্রতি তার ঘৃণার কথা জানায়। ‘ব্যাপক প্রতিস্থাপন তত্ত্বের’ প্রতি তার বিশ্বাসের কথাও প্রকাশ করেছে।

এই তত্ত্বের মতে, শ্বেতাঙ্গদের জন্মহার কমে যাওয়ার কারণে অশ্বেতাঙ্গরা সেই জায়গা দখল করে নেবে।

তার ইশতেহার ও হত্যার ভিডিও নিউজিল্যান্ডে নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

এই ২৯ বছর বয়সী অস্ট্রেলীয় জুমার সময় মুসল্লিদের ওপর এলোপাতাড়ি গুলি চালালে আল-নূর মসজিদের ৪৪ মুসল্লি ও কয়েক মাইল দূরের লিনইউড মসজিদের সাত মুসল্লি নিহত হন।

যাদের সে হত্যা করেছে, তাদের মধ্যে তিন বছর বয়সী শিশুও ছিল।

হত্যাকাণ্ডে পাঁচটি অস্ত্র ব্যবহার করেছে ট্যারেন্ট। যা সে বৈধভাবেই কিনেছে। নিউজিল্যান্ডের ইতিহাসে আর কখনো এমন ভয়াবহ হত্যাকাণ্ড ঘটেনি।

এই ঘটনার পর নিউজিল্যান্ডের বন্দুক আইন সংশোধন করা হয়েছে। এতে বেসামরিক লোকদের জন্য আধাস্বয়ংক্রিয় অস্ত্র নিষিদ্ধ করা হয়েছে। আর ৫৬ হাজার ২৫০টি আগ্নেয়াস্ত্র ক্রেতাদের কাছ থেকে ফেরত নেয়া হয়েছে।

এই হত্যাকাণ্ডের মাধ্যমে ট্যারেন্ট নিজের নৃশংসতা দেখাতে চেয়েছে। যে কারণে মসজিদে গুলি চালিয়ে সে যখন নিরাপদ মানুষের রক্তের বন্যা বইয়ে দিচ্ছিল, তখন সে তা সরাসরি ফেসবুকে সম্প্রচার করেছে।

৫১ মুসল্লি হত্যা: হামলাকারীর সাজার শুনানি শুরু আজ

করাঙ্গীনিউজ ডেস্ক: নিউজিল্যান্ডের দুটি মুসজিদে এলোপাতাড়ি গুলি চালিয়ে ৫১ মুসল্লিকে হত্যাকারী ব্রেন্টন ট্যারেন্টকে রায়ের শুনানিতে সোমবার আদালতে হাজির করা হবে।

কয়েক দিনের শুনানির পর চলতি সপ্তাহে ভুক্তভোগীদের পরিবার সদস্যদের উপস্থিতিতে তার সাজার রায় ঘোষণা হওয়ার কথা রয়েছে।

ইতিমধ্যে রায়ের শুনানির জন্য তাকে ক্রাইস্টচার্চে নিয়ে আসা হয়েছে।

টেলিভিশনের ভিডিও ফুটেজে দেখা গেছে, রোববার বিকালে স্থানীয় বিমানবন্দরে বিমান বাহিনীর একটি বিমান থেকে তাকে নামানো হয়। এ সময় তার শরীরে সুরক্ষা পোশাক ও মাথায় হেলমেট ছিল।

সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যরা তাকে ঘিরে রেখেছিল। এরপর একটি সাদা ভ্যানের পেছনে চড়িয়ে নিয়ে যাওয়া হয় এই উগ্রপন্থীকে।

৫১ মুসল্লিকে হত্যা, ৪১ জনকে হত্যাচেষ্টা ও একটি সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের অভিযোগের দোষ স্বীকার করেছে এই অস্ট্রেলীয় সন্ত্রাসী।

নিউজিল্যান্ড হেরাল্ডের খবরে জানা গেছে, অকল্যান্ডের পারেমোরেমোতে অবস্থিত কারাগার থেকে ঘটনাস্থল ক্রাইস্টচার্চে নিয়ে যাওয়া হয়েছে তাকে।

সোমবার ক্রাইস্টচার্চের একটি আদালতে এই হত্যা মামলার শুনানি হবে। সেখানে হামলা থেকে বেঁচে যাওয়া লোকজন ও নিহতদের পরিবারের সদস্যরা তাদের বক্তব্য রাখবেন।

রায় ঘোষণার আগে ব্রেন্টন ট্যারেন্টকেও জবানবন্দি দেয়ার সুযোগ দেয়া হবে।

নিউজিল্যান্ডে হত্যা মামলায় দোষী সাব্যস্ত হলে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের বিধান আছে। মুক্তির কোনো সম্ভাবনা না রেখেই বিচারক এমন রায় দিতে পারেন, যদিও দেশটিতে এমন রায় একেবারে বিরল।

শরীর চর্চার প্রশিক্ষক ট্যারেন্ট অস্ট্রেলিয়া থেকে নিউজিল্যান্ডে যান ২০১৭ সালে। এরপর অস্ত্র সংগ্রহ করে হত্যার ষড়যন্ত্র করে। ২০১৯ সালের ১৫ মার্চ যার বাস্তবায়ন ঘটে।

তার স্বজনদের সাক্ষাৎকার থেকে জানা গেছে, তার বয়স যখন কুড়ি, তখন বাবার উত্তরাধিকার সূত্রে ইউরোপ ভ্রমণের সময় সে উগ্রপন্থার সংস্পর্শে আসে। আর ইন্টারনেটের মাধ্যমে উগ্রপন্থীদের সঙ্গে পরিচয় ঘটে তার।

মসজিদে হামলার আগে অনলাইনে প্রকাশ করা এক ইশতেহারে মুসলমান ও অ-ইউরোপীয় অভিবাসীদের প্রতি তার ঘৃণার কথা জানায়। ‘ব্যাপক প্রতিস্থাপন তত্ত্বের’ প্রতি তার বিশ্বাসের কথাও প্রকাশ করেছে।

এই তত্ত্বের মতে, শ্বেতাঙ্গদের জন্মহার কমে যাওয়ার কারণে অশ্বেতাঙ্গরা সেই জায়গা দখল করে নেবে।

তার ইশতেহার ও হত্যার ভিডিও নিউজিল্যান্ডে নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

এই ২৯ বছর বয়সী অস্ট্রেলীয় জুমার সময় মুসল্লিদের ওপর এলোপাতাড়ি গুলি চালালে আল-নূর মসজিদের ৪৪ মুসল্লি ও কয়েক মাইল দূরের লিনইউড মসজিদের সাত মুসল্লি নিহত হন।

যাদের সে হত্যা করেছে, তাদের মধ্যে তিন বছর বয়সী শিশুও ছিল।

হত্যাকাণ্ডে পাঁচটি অস্ত্র ব্যবহার করেছে ট্যারেন্ট। যা সে বৈধভাবেই কিনেছে। নিউজিল্যান্ডের ইতিহাসে আর কখনো এমন ভয়াবহ হত্যাকাণ্ড ঘটেনি।

এই ঘটনার পর নিউজিল্যান্ডের বন্দুক আইন সংশোধন করা হয়েছে। এতে বেসামরিক লোকদের জন্য আধাস্বয়ংক্রিয় অস্ত্র নিষিদ্ধ করা হয়েছে। আর ৫৬ হাজার ২৫০টি আগ্নেয়াস্ত্র ক্রেতাদের কাছ থেকে ফেরত নেয়া হয়েছে।

এই হত্যাকাণ্ডের মাধ্যমে ট্যারেন্ট নিজের নৃশংসতা দেখাতে চেয়েছে। যে কারণে মসজিদে গুলি চালিয়ে সে যখন নিরাপদ মানুষের রক্তের বন্যা বইয়ে দিচ্ছিল, তখন সে তা সরাসরি ফেসবুকে সম্প্রচার করেছে।

সৌদির সাগরে ট্রলারডুবিতে ফেঞ্চুগঞ্জের ২ ভাইয়ের মৃত্যু

করাঙ্গীনিউজ: সৌদি আরবের আল লেছব শহরের সাগরে ফিশিং ট্রলার ডুবিতে সিলেটের ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলার দুই ভাইয়ের মৃত্যু হয়েছে।

নিহতরা হলেন- উপজেলার ছত্তিশ গ্রামের ইরফান আলীর ছেলে মোহাম্মদ অসিম (৪২) ও উসমান আহমদ (৩৩)। তাদের মধ্যে উসমানের লাশ সৌদি আরবের নৌ-পুলিশ উদ্ধার করলেও অসিমের লাশ নিখোঁজ রয়েছে।

জানা যায়, গত শুক্রবার স্থানীয় সময় ভোর ৫টায় সৌদি আরবের গম্বুজ শহরের নিজ বাসা থেকে মাছ ধরতে ট্রলার নিয়ে সাগরে যান অসিম ও উসমান। ওইদিন বিকালে অন্যান্য ট্রলারের লোকজন বাসায় ফিরে আসলেও অসিম ও উসমান ফিরে আসেননি। তাদের বড়ভাই জসিম মিয়া সাগরের তীরে গিয়ে তাদের খুঁজতে থাকেন। কোনো খোঁজখবর না পেয়ে বিষয়টি পুলিশকে জানান তিনি।

শনিবার সৌদি আরব সময় সকালে সাগর থেকে উসমানের লাশ উদ্ধার করে দেশটির নৌ-পুলিশ। এখনও নিখোঁজ রয়েছেন অসিম।

সৌদি আরবে থাকা নিহতদের বড়ভাই জসিম মিয়ার বরাত দিয়ে ছত্তিশ গ্রামের বাসিন্দা সাহিল আহমদ বলেন, সাগরের উত্তাল ঢেউয়ে ফিশিং ট্রলারডুবিতে নিহত হয়েছেন অসিম ও উসমান। উসমানের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ নিয়ে গেছে। অসিম এখনও নিখোঁজ রয়েছেন। তারা দু’জন খুবই ভালো মানুষ ছিলেন। নীরবে-নিভৃতে অসহায় মানুষকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিতেন। তাদের মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

কানাডার অর্থমন্ত্রীর পদত্যাগ

করাঙ্গীনিউজ ডেস্ক: কানাডার অর্থমন্ত্রীর পদত্যাগবিদেশ সংবাদদাতব্য সংগঠনের অর্থে পরিবারসহ বিদেশ ভ্রমণ করে সমালোচনার মুখে পড়ে পদত্যাগের ঘোষণা দিয়েছেন জাস্টিন ট্রুডোর মন্ত্রিসভার গুরুত্বপূর্ণ সদস্য অর্থমন্ত্রী বিল মর্নো।

আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমের তথ্য মতে, মর্নো উই চ্যারিটির কর্মকাণ্ড দেখতে পরিবার নিয়ে কানাডা থেকে কেনিয়া এবং ইকুয়েডর যান। পরে জানা যায়, ওই সফরের কোনো খরচ তিনি পরিশোধ করেননি।মর্নো এই কেলেঙ্কারির কথা স্বীকার করেছেন।

সংবাদ সম্মেলনে জানান, হঠাৎ বুঝতে পারেন প্রায় ২৬ লাখ টাকা তিনি পরিশোধ করেননি।এই সংগঠনের সঙ্গে ট্রুডোর পরিবারের সদস্যরা যুক্ত থাকায় তিনিও চাপে আছেন।

প্রধানমন্ত্রীর এক মেয়ে এই চ্যারিটির বেতনভুক্ত কর্মী।মর্নো জানিয়েছেন, লিবারেল পার্টির মন্ত্রিসভা থেকে পদত্যাগ করার পাশাপাশি তিনি সংসদ থেকেও পদত্যাগ করছেন।সাংবাদিকদের তিনি বলেন, এই পদের জন্য আমি নিজেকে আর উপযুক্ত মনে করছি না। প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করে আমি জানিয়েছি যে সামনের নির্বাচনে লড়ার ইচ্ছা আমার নেই।

ফেডারেল নির্বাচনে দুইবারের বেশি দাঁড়ানোর পরিকল্পনা কখনোই আমি করিনি।গত জুনে শিক্ষার্থীদের জন্য উই চ্যারিটি নামের ওই প্রোগ্রাম চালু করে কানাডা প্রশাসন। অলাভজনক এই প্রোগ্রামের আগের নাম ছিল ফ্রি দ্য চিলড্রেন।

সরকারের সঙ্গে চুক্তি অনুযায়ী, এই প্রজেক্টে ৪৩.৫ মিলিয়ন ডলার বিনিয়োগের কথা ছিল। কিন্তু কিছুদিন আগে জানা যায়, এর সঙ্গে ট্রুডো এবং মর্নোর ব্যক্তিগত অন্তর্ভুক্তি আছে।

ভারতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১৯ লাখ ছাড়াল

করাঙ্গীনিউজ ডেস্ক: পাল্লা দিয়ে বাড়ছে ভারতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে ৫২ হাজার ৫০৯ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এ নিয়ে মোট করোনা আক্রান্ত হলেন ১৯ লাখ ৮ হাজার ২৫৪ জন।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের পরিসংখ্যান এ তথ্য জানিয়েছে।

গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে করোনায় মৃত্যু হয়েছে ৮৫৭ জনের। এ নিয়ে মোট ৩৯ হাজার ৭৯৫ জনের প্রাণ গেল করোনায়। অন্যদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ৫১ হাজার ৭০৬ জন। এ নিয়ে মোট ১২ লাখ ৮২ হাজার ২১৫ জন করোনা রোগী সুস্থ হয়ে উঠেছেন।

বিশ্বে করোনায় ১ কোটি ৮০ লাখ আক্রান্ত

করাঙ্গীনিউজ ডেস্ক: বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ আর বেড়েছে। বার্তা সংস্থা এএফপি’র নিজস্ব হিসেব মতে বিশ্বে মোট আক্রান্তের সংখ্যা এরই মধ্যে ১ কোটি ৮০ লাখ ছাড়িয়েছে।

জন্স হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয় ও ওয়ার্ল্ডওমিটারের হিসেবেও আক্রান্তের সংখ্যা ১ কোটি ৮০ লাখ ছাড়ানোর কথা বলা হয়েছে।

এএফপি’র হিসেব মতে আন্তর্জাতিক মান সময় রোববার (২ আগস্ট) রাত সাড়ে দশটার দিকে বিশ্বে কোট আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়ায় ১ কোটি ৮০ লাখ ১১ হাজার ৭৬৩ জন। তাতে বলা হয়েছে সংক্রমণ শনাক্তের হার উঠতির দিকে। মাত্র চার দিনে ১০ লাখের বেশি আক্রান্ত দেখেছে বিশ্ব।

আক্রান্তদের মধ্যে বিশ্বজুড়ে মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে প্রায় ৬ লাখ ৮৮ হাজার মানুষের।

বিশ্বের মোট আক্রান্তের অর্ধের বেশিই যুক্তরাষ্ট্র, লাতিন আমেরিকা ও ক্যারিবীয় অঞ্চলের। এর মধ্যে অবস্থা সবচেয়ে ভয়াবহ যুক্তরাষ্ট্রের। বৈশ্বিক আক্রান্তে শীর্ষে থাকা দেশটিতে শনাক্তের সংখ্যা ৪৬ লাখ ৫৭ হাজার ছাড়িয়েছে; এর মধ্যে মৃত্যু হয়েছে প্রায় ১ লাখ ৫৫ হাজার মানুষের।

আক্রান্ত-মৃত্যুর তালিকায় যুক্তরাষ্ট্রের পরেই রয়েছে ব্রাজিল। দেশটিতে মোট শনাক্তের সংখ্যা ২৭ লাখ ৩৩ হাজার ছাড়িয়েছে। আক্রান্তদের মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ৯৪ হাজার মানুষের।

আক্রান্তে তৃতীয় দেশটি হলো ভারত, সাড়ে ১৭ লাখ ছাড়িয়েছে। আক্রান্তদের মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ৩৭ হাজার মানুষের।

করোনা নিয়ে এএফপি’র এসব তথ্য-উপাত্ত নেওয়া হয়েছে, দেশগুলোর সরকারি কর্তৃপক্ষ ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সরবরাহ করা হিসেব থেকে।

তাতে বলা হয়েছে, অধিকাংশ দেশেই প্রকৃত অবস্থা আরও ভয়াবহ হয়ে থাকতে পারে। কেননা বেশির ভাগ দেশই কেবল যাদের লক্ষণ আছে এবং যাদের অবস্থা জটিল তাদেরও পরীক্ষা করে থাকে।

করোনার বৈশ্বিক হিসেব এএফপি ও জন্স হপকিন্সের তথ্য প্রায় একই। কিন্তু আক্রান্ত-মৃত্যু বেশি দেখানো হয়েছে আন্তর্জাতিক পরিসংখ্যান বিষয়ক ওয়েবসাইটের উপাত্ত অনুযায়ী, বিশ্বে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১ কোটি ৮২ লাখ ছাড়িয়েছে, এর মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ৬ লাখ ৯২ হাজার মানুষের। সুস্থ হয়েছেন ১ কোটি ১৪ লাখ মানুষ।

সূত্র: ইন্টারনেট

হাসপাতাল থেকে ফিরে সৌদির বাদশাহর ঈদ শুভেচ্ছা

করাঙ্গীনিউজ ডেস্ক: সৌদি বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজ হাসপাতাল থেকে বের হওয়ার পর টুইটারে পোস্ট দিয়ে ঈদ মোবারক জানিয়েছেন। বার্তা সংস্থা রয়টার্সের খবরে এমন তথ্য জানা গেছে।

বৃহস্পতিবার কিং ফয়সাল হাসপাতাল থেকে ছাড়া পান ৮৪ বছর বয়সী বাদশাহ। চলতি সপ্তাহে তার পিত্তথলিতে অস্ত্রোপচার হয়েছিল।

করোনা মহামারীর অবসানেও প্রার্থনা করেছেন বিশ্বের সবচেয়ে বড় তেল রফতানিকারক দেশের শাসক বাদশাহ সালমান।

শুক্রবার টুইট পোস্টে তিনি বলেন, সবাইকে ঈদ মোবারক জানাচ্ছি। আমাদের দেশ ও বিশ্ব থেকে করোনা মহামারী উঠিয়ে নিতে সর্বশক্তিমান আল্লাহর কাছে প্রার্থনা করছি।

পিত্তথলিতে প্রদাহ নিয়ে গত ২ জুলাই হাসপাতালে ভর্তি হন তিনি।

সৌদি আরবসহ বিশ্বের ‍অনেক দেশে শুক্রবার মুসলমানদের বৃহৎ ধর্মীয় উৎসব ঈদুল আজহা উদযাপিত হচ্ছে। করোনাভাইরাস মহামারীর কারণে এবারের উৎসব আগের মত রঙিন হয়নি।

বাদশাহ সালমান বৃহস্পতিবার হাসপাতাল থেকে প্রাসাদে ফেরেন বলে জানায় দেশটির সংবাদ সংস্থা এসপিএ।

এসপিএ তে প্রকাশিত এক ভিডিওতে বৃহস্পতিবার বাদশাহ সালমানকে কিং ফয়সাল হাসপাতাল থেকে ছড়িতে ভর দিয়ে হেঁটে বেরিয়ে আসতে দেখা যায়।

সঙ্গে তার ছেলে যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান এবং অন্যান্য সহযোগীরা ছিলেন। তাদের সবার মুখেই মাস্ক ছিল।

যুক্তরাষ্ট্র হবিগঞ্জ সদর সমিতির বৃত্তি প্রদান

নিজস্ব প্রতিনিধি: হবিগঞ্জ-৩ আসনের এমপি অ্যাডভোকেট মোঃ আবু জাহির বলেছেন, প্রবাসীরা বিদেশে থেকে কষ্ট করলেও সবসময় চায় দেশের উন্নয়ন এবং সমৃদ্ধি। বিশেষ করে মানব সম্পদের উন্নয়নের জন্য তারা আন্তরিকভাবে কাজ করে থাকে। হবিগঞ্জ শহরে সরকারি মহিলা কলেজ এবং ডায়াবেটিক হাসপাতাল প্রতিষ্ঠাসহ সমগ্র জেলায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের উন্নয়ন এবং অস্বচ্ছল শিক্ষার্থীদের পাশে থাকার ইতিহাস সকলেই জানেন।

আবু জাহির এমপি বলেন, করোনায় কর্মহীন থাকা সত্ত্বেও আমাদের প্রবাসীরা যেভাবে সহায়তা নিয়ে এগিয়ে এসছেন তা নিঃসন্দেহে প্রসংশনীয়। এই অবস্থায় হবিগঞ্জের এসএসসি পরীক্ষায় দরিদ্র-মেধাবীদেরকে খুঁজে বের করে বৃত্তি প্রদানের উদ্যোগ অনন্য। এই বৃত্তি শহীদ মুক্তিযোদ্ধাদের নামে প্রদান করায় নতুন প্রজন্ম মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস সম্পর্কে জানতে আগ্রহী হবে। যে উদ্দেশ্যে যুক্তরাষ্ট্র হবিগঞ্জ সদর সমিতি এই বৃত্তি প্রদান করেছে সেই উদ্দেশ্য পূরণের জন্য যারা বৃত্তি পেয়েছে তারা তাদেরকে আরও বেশি অধ্যাবসায়ী হতে হবে।

তিনি বৃহস্পতিবার দুপুরে হবিগঞ্জ প্রেসক্লাব মিলনায়তনে যুক্তরাষ্ট্র হবিগঞ্জ সদর সমিতির উদ্যোগে মেধা বৃত্তি বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি’র বক্তব্যে এসব কথা বলেন। তিনি আরো বলেন, এক সময়ের অবহেলিত হবিগঞ্জ এখন আলোকিত জনপদে পরিণত হয়েছে। সরকারি বৃন্দাবন কলেজে অনার্স-মাস্টার্স চালু হওয়ায় ২০ হাজার শিক্ষার্থী অধ্যয়ন করছে। শেখ হাসিনা মেডিক্যাল কলেজ হওয়ায় জেলার গৌরব বৃদ্ধি পেয়েছে বহুল অংশে। কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ও অচিরেই চালু হতে যাচ্ছে। আমরা হবিগঞ্জকে শিক্ষানগরী হিসেবে পরিণত করতে চাই।

মুক্তিযুদ্ধের চারণভূমি হবিগঞ্জ জেলায় রয়েছে অনেক মুক্তিযোদ্ধার গৌরব্বোজ্জ্বল ইতিহাস। মুক্তিযুদ্ধের সেকেন্ড ইন কমান্ড এম এ রব বীর উত্তম ও সেক্টর কমান্ডার সি আর দত্ত বীর উত্তম সহ অনেক খ্যাতিমান মুক্তিযোদ্ধা লড়াই সংগ্রাম করেছেন সামনের সাড়িতে থেকে। হাওর এলাকায় দাস গেরিলা পার্টির প্রধান জগৎ জ্যোতি দাস বীর উত্তমের অবদান কিংবদন্তিতূল্য। এই জেলায় মুক্তিযুদ্ধে শহীদ হয়েছেন ৫১ জন। রয়েছেন অনেক বীরাঙ্গনা আর যুদ্ধ শিশু। কিন্তু নতুন প্রজন্ম জানেনা এই গৌরবোজ্জ্বল ইতিহাস। শহীদ মুক্তিযোদ্ধাদের সেভাবে স্মরণ এবং সম্মাননাও জানানো হয়নি তেমনভাবে। তবে এবার যুক্তরাষ্ট্র হবিগঞ্জ সদর সমিতি শহীদ মুক্তিযোদ্ধাদের স্মরণে মেধাবৃত্তির প্রচলন করে অনন্য উদাহরণ সৃষ্টি করেছে। ২০২০ সালে এসএসসি ও সমমান পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের মাঝে ৩৪জন দরিদ্র ও মেধাবী শিক্ষার্থীকে ৩৪ জন শহীদ মুক্তিযোদ্ধার নামে দেয়া হয় বৃত্তি। প্রত্যক শিক্ষার্থীকে নগদ ৫ হাজার টাকা, একটি ক্রেস্ট, একটি মাস্ক ও একটি সনদপত্র প্রদান করা হয়।

বৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সরকারি বৃন্দাবন কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ অধ্যাপক ইকরামুল ওয়াদুদ। বিশেষ অতিথি ছিলেন হবিগঞ্জ পৌরসভার সাবেক চেয়ারম্যান শহীদ উদ্দিন চৌধুরী, সরকারী মহিলা কলেজের সাবেক উপাধ্যক্ষ মুহম্মদ আব্দুজ জাহের, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. জহিরুল হক শাকিল ও হবিগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি ইসমাইল হোসেন।

রিচি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কাজী কামাল উদ্দিন এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করেন হবিগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি ফজলুর রহমান, হারুনুর রশিদ চৌধুরীম প্রেসক্লাবের সাধারন সম্পাদক সায়েদুজ্জামান জাহির, সাবেক সাধারণ সম্পাদক চৌধুরী মোহাম্মদ ফরিয়াদ, এডভোকেট শাহ ফখরুজ্জামান, বানিয়াচং উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা কাউছার শোকরানা, বক্তারপুর আবুল খায়ের উচ্চবিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কামাল হোসেন, মির্জাপুর উচ্চবিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সেবিকা রাণী রায়, যুক্তরাষ্ট্র হবিগঞ্জ সদর সমিতির আইন সম্পাদক জহিরুল ইসলাম রাহুল প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে জেলার ৯টি উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে আগত শিক্ষার্থীরা বৃত্তি ও পুরস্কার পাওয়ার পাশাপাশি হবিগঞ্জের কৃতি সন্তান শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. জহিরুল হক শাকিল এর সান্নিধ্য পেয়ে আপ্লুত হয়ে পড়ে। শিক্ষার্থীদের আগ্রহে ড. শাকিল তাদের উদ্দেশ্যে উপদেশমূলক বক্তব্যে বলেন, সমাজে প্রতিষ্ঠিত হতে হলে জীবনমুখী শিক্ষার বিকল্প নেই। মনে রাখতে হবে জিপিএ এবং পাস করেই কর্মক্ষেত্রে প্রতিষ্ঠিত হওয়া যায় না। ভাল কর্ম পাওয়ার জন্য গুণগত শিক্ষা এবং কঠোর অধ্যবসায় প্রয়োজন। প্রতিযোগিতাপূর্ণ পৃথিবীতে ঠিকে থাকতে যুগের সাথে তাল মিলিয়ে এগিয়ে যেতে হবে। এর জন্য প্রয়োজন প্রযুক্তির যথাযথ ব্যবহার। কেউ যদি সামনে এগিয়ে যেতে চায় কোন প্রতিবন্ধকতা তাকে দমাতে পারবে না। সরকারের পাশাপাশি যুক্তরাষ্ট্র হবিগঞ্জ সদর সমিতির মতো অনেক ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান রয়েছে যারা এগিয়ে যেতে চায় তাদের পাশে দাঁড়ানোর জন্য।

যুক্তরাষ্ট্র হবিগঞ্জ সদর সমিতির সভাপতি অধ্যাপক আব্দুর রহমান ও সাধারন সম্পাদক আবুল কালাম জানান, হবিগঞ্জের দরিদ্র ও মেধাবী শিক্ষার্থীরা যাতে কলেজে ভর্তি ও বইসহ শিক্ষাউপকরণ ক্রয় করতে পারে তার জন্য কলেজের ভর্তির প্রাক্কালে এই বৃত্তি প্রদান করা হয়েছে। প্রতি বছরই নিয়মিত এই বৃত্তি প্রদানের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। পাশাপাশি আমরা শীঘ্রই কর্মহীনদের মাঝে ত্রাণ ও মাস্ক বিতরণ করব।

এবার হজে অংশ নিয়েছেন ৫ বাংলাদেশি

করাঙ্গীনিউজ ডেস্ক: মহামারির করোনা ভাইরাসের কারণে এবারের হজের জন্য বিশেষ স্বাস্থ্যবিধি জারি করেছে সৌদি আরবের জাতীয় রোগ প্রতিরোধ ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ। সীমিত পরিসরের হজে অংশ নিচ্ছেন ১৬০টি দেশের স্বল্প সংখ্যক হাজি। যাদের মধ্যে বাংলাদেশির সংখ্যা মাত্র ৫ জন।

এবারের হজে যারা অংশ নেওয়ার সুযোগ পাচ্ছেন তারা মক্কায় উপস্থিত হওয়ার পরপরই তাদের দেহের তাপমাত্রা পরীক্ষা ও ভাইরাস পরীক্ষা করা হয়েছে। অংশগ্রহণকারীদের হজ শুরুর আগে ও পরে কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে।

বিধি অনুযায়ী, হজ পালনকারীরা কাবা শরীফে ও কালো পাথরে চুমু খেতে বা স্পর্শ করতে পারবেন না এবং শয়তানের উদ্দেশে পাথর ছুঁড়ে মারার জন্য আগে থেকে জীবাণুমুক্ত প্যাকেটজাত পাথর ব্যবহার করতে হবে। হজ পালনকারী ও হজে দায়িত্ব পালনকারীদের অবশ্যই সুরক্ষা মাস্ক পড়তে হবে এবং তা ব্যবহার শেষে সুনির্দিষ্ট স্থানে ফেলতে হবে। হজ পালনকারীরা যেখানেই সমবেত হোন না কেন দুজনের মধ্যে অন্তত দেড় মিটার দূরত্ব রাখতে হবে।

এবারের ব্যতিক্রমী হজের দৃশ্য

করাঙ্গীনিউজ ডেস্ক: করোনা পরিস্থিতির মধ্যে এবার খুব সীমিত পরিসরে শুরু হয়েছে মুসলিমদের অন্যতম প্রধান ধর্মীয় অনুষ্ঠান হজ। বুধবার সৌদি আরবে মক্কার বাইরে মিনা উপত্যকায় সমবেত হওয়ার মধ্যে দিয়ে এবারের হজের আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়।

প্রতি বছর পুরো বিশ্ব থেকে প্রায় ২৫ লাখ মানুষ হজের জন্য মক্কা ও মদিনায় উপস্থিত হলেও এবার অনুমতি দেয়া হয়েছে ১০ হাজার জনের মতো হাজিকে। করোনা সংক্রমণ থেকে হাজিদের সুরক্ষা দিতে অনুসরণ করা হচ্ছে কঠোর কঠোর স্বাস্থ্যবিধি।

করোনা পরিস্থিতির মধ্যে সামাজিক দূরত্ব রেখে পবিত্র কা’বা ঘর তাওয়াফ করছেন হাজিরা। প্রখর রোদ থেকে রেহাই পেতে অনেককে ছাতা ব্যবহার করতে দেখা যাচ্ছে।

প্রতি বছর লাখ লাখ হাজিদের তালবিয়া পাঠে মুখরিত থাকে পবিত্র কা’বা ঘর। এবার অল্পসংখ্যক মানুষের হজ করার সৌভাগ্য হয়েছে। একজন নারী হাজিকে দেখা যাচ্ছে পবিত্র কা’বা ঘরকে রেখে দোয়া পাঠ করতে।

হাজিদের স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য সৌদি কর্তৃপক্ষ বিশেষ ব্যবস্থা নিয়েছে। প্রতি ৫০ জন হাজির জন্য একজন চিকিৎসককে নিয়োজিত করা হয়েছে সৌদি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে।

এবারের হজে অংশগ্রহণকারীসহ দায়িত্বরত কর্মকর্তাদের জন্য প্রতিটি জায়গায় স্বাস্থ্য সুরক্ষার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

করোনাভাইরাসের এবার হজের আনুষ্ঠানিকতায় নানা ধরনের বিধিনিষেধ রয়েছে। হজের সময় মাস্ক পরতে হবে সবাইকে। জমজমের পবিত্র পানি পানেও থাকছে কঠোরতা।

হজ পালনকারীরা কাবা শরিফে ও হাজরে আসওয়াদ (কালো পাথরে) চুমু খেতে বা স্পর্শ করতে পারবেন না এবং শয়তানের উদ্দেশ্যে পাথর ছুড়ে মারার জন্য আগে থেকে জীবাণুমুক্ত প্যাকেটজাত পাথর ব্যবহার করতে হবে।

করোনা জয় করলেন ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট

করাঙ্গীনিউজ ডেস্ক: অবশেষে করোনা জয় করলেন ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট জায়ের বোলসোনারো। গত ৩ বার করোনা টেস্টের রিপোর্ট পজিটিভ এলেও এবার তার নেগেটিভ এসেছে বলে শনিবার এক টুইট বার্তায় জানিয়েছেন ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট নিজেই।

এর আগে গত ৭ জুলাই বোলসোনারো করোনা আক্রান্ত হওয়ার কথা জানান। এর পর থেকে বাড়িতে কোয়ারেন্টাইনে ছিলেন।
ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার পর চারবার করোনা পরীক্ষা করান। চতুর্থবার তার করোনা পরীক্ষার পল নেগেটিভে এসেছে।

সৌদিতে ঈদুল আজহা ৩১ জুলাই

করাঙ্গীনিউজ ডেস্ক: সৌদি আরবের সুপ্রিম কোর্ট সোমবার জানিয়েছে, আগামী ৩০ জুলাই (বৃহস্পতিবার) হবে আরাফাত দিবস এবং ৩১ জুলাই (শুক্রবার) হবে ঈদুল আজহার প্রথম দিন।

সৌদি প্রেস এজেন্সি (এসপিএ) পরিবেশিত খবরে বলা হয়, দেশটির সুপ্রিম কোর্ট জানিয়েছে ২১ জুলাই (মঙ্গলবার) হচ্ছে জিলকদের ৩০তম দিন।

এ হিসাবে ২২ জুলাই (বুধবার) হবে জিলহজ মাসের প্রথম দিন। সে হিসাবে, সৌদি আরবে ঈদুল আজহা আগামী ৩১ জুলাই (শুক্রবার) অনুষ্ঠিত হবে।

ইসলামিক ক্যালেন্ডারের গত মাসের শুরু নির্ধারণে গঠিত চাঁদ দেখা কমিটি নিশ্চিত করার পর এ ঘোষণা দেয়া হলো।

এ কমিটি আঞ্চলিক বিভিন্ন আদালত এবং চাঁদ দেখা কমিটির কাছ থেকে খবর পাওয়ার পর এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। বাসস