• Youtube
  • English Version
  • মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ০৫:৪৪ পূর্বাহ্ন

করাঙ্গী নিউজ
স্বাগতম করাঙ্গী নিউজ নিউজপোর্টালে। ১৫ বছর ধরে সফলতার সাথে নিরপেক্ষ সংবাদ পরিবেশন করে আসছে করাঙ্গী নিউজ। দেশ বিদেশের সব খবর পেতে সাথে থাকুন আমাদের। বিজ্ঞাপন দেয়ার জন‌্য যোগাযোগ করুন ০১৮৫৫৫০৭২৩৪ নাম্বারে।

দীর্ঘ ৯ বছর পরে জেগে উঠেছে হবিগঞ্জ যুবলীগ

  • সংবাদ প্রকাশের সময়: শুক্রবার, ২৭ অক্টোবর, ২০২৩

এম,এ আহমদ আজাদ,নবীগঞ্জ(হবিগঞ্জ):
দীর্ঘ ৯ বছর পরে জেগে উঠেছে নবীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী যুবলীগ। হবিগঞ্জ জেলায় প্রতিটি ইউনিয়ন ও ওয়ার্ডে সম্মেলন, কর্মী সভা ও সদস্য সংগ্রহ অভিযান চলছে। প্রতিদিন মিটিং ও কর্মী সভায় মুখরিত হয়ে উঠেছে নবীগঞ্জসহ তথা হবিগঞ্জ জেলা।

 

হবিগঞ্জ জেলা যুবলীগের নতুন আংশিক কমিটির সভাপতি উপজেলা চেয়ারম্যান আবুল কাশেম চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক একেএম মাঈনুদ্দিন চৌধুরী সুমন দায়িত্ব পাবার পর প্রতিটি উপজেলায় ও প্রতিটি ইউনিয়নে কর্মী সভা ও বর্ধিত সভা করে উজ্জীবিত করেন।

 

প্রতিটি উপজেলা কমিটিকে নতুন করে ইউনিয়ন কমিটির বর্ধিত সভা ও সদস্য সংগ্রহ অভিযান চালানোর জন্য নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।প্রতিটি উপজেলা কমিটি গঠনের জন্য সিভি সংগ্রহ করা হয়েছে।

 

বিশেষ করে নবীগঞ্জ উপজেলার ১৩টি ইউনিয়নের প্রতিটি কমিটিকে নিয়ে বর্ধিত সভা ও সদস্য সংগ্রহ অভিযান চলছে। হবিগঞ্জ জেলা যুবলীগের নতুন সভাপতি আবুল কাশেম চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক একেএম মাঈনু উদ্দিন চৌধুরী সুমন দায়িত্ব পাবার পর মনে হচ্ছে এ যেন এক নতুন যুবলীগের জন্ম হয়েছে হবিগঞ্জে। যেখানে র্দীঘ নয় বছরে উপজেলা যুবলীগের বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত হয়নি সেখানে প্রতিদিন সভা সমাবেশ হচ্ছে। প্রতিটি ইউনিয়ন কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। কিছুদিনের মধ্যে নবীগঞ্জ উপজেলাসহ হগিঞ্জের ৮টি উপজেলা ও পৌর কমিটি গুলো নতুন ভাবে সাজানোর জন্য সিভি সংগ্রহ করা হয়েছে।

 

নবীগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের এক নেতা বলেন, নবীগঞ্জে যেন এক নতুন যুবলীগের কার্যক্রম শুরু হয়েছে। কখনো এভাবে সক্রিয় কার্যক্রম করতে দেখা যায়নি। হবিগঞ্জ জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক একেএম মাঈনু উদ্দিন চৌধুরী সুমন এর নেতৃত্বে ১৩টি ইউনিয়নের কমিটির বর্ধিত সভা ও সদস্য সংগ্রহ পরিচালিত হচ্ছে। এর আগের দীর্ঘ ৯ বছর নবীগঞ্জ উপজেলা যুবলীগ ঘুমন্ত ছিলো। এখন যুবলীগ কর্মীরা সক্রিয় হচ্ছেন, দলের মধ্যে পদ পদবী পাবার জন্য লবিং গ্রুপিং চলছে এতে করে দলের কার্যক্রমে নতুন গতি এসেছে।

 

এবিষয়ে নবীগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের যুন্ম আহবায়ক লোকমান আহমদ খান বলেন, যুবলীগ আগেও সক্রিয় এখনো নতুন আরও গতি বৃদ্ধি পেয়েছে। নতুন কমিটি আসলে নতুন লোক সংযুক্ত হবে যুবলীগ আরও নতুন ধারা সৃষ্টি হবে। নতুন কমিটির সক্রিয় নেতাকর্মীদের মুল্যায়ন করা হবে সেটাই চাই।

 

নবীগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারন সম্পাদক জাবেদুল আলম চৌধুরী সাজু বলেন আমি আশাবাদী নতুন কমিটির মধ্যে সঠিক কর্মীর মুল্যায়ন করা হবে।
নবীগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক আহবায়ক ও পৌর যুবলীগের সিনিয়র আহবায়ক হাবিবুর রহমান হাবিব বলেন, র্দীঘদিন পর ঘুমন্ত যুবলীগ জেগে উঠেছে। এবার যুবলীগের নতুন কমিটির কাছে দাবি সঠিক কর্মীর মুল্যায়ন করা হবে।

 

হবিগঞ্জ জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক একেএম মাঈনু উদ্দিন চৌধুরী সুমন বলেন, আমরা আগে কি হয়েছে না হয়েছে সেই বিষয় নিয়ে কথা বলতে চাই না। আমরা নতুন দায়িত্ব পাবার পর হবিগঞ্জ জেলায় প্রতিটি ইউনিয়নে সভা সমাবেশ ও সদস্য সংগ্রহ অভিযান চলছে।

 

আগামীতে আমি ও আমার সভাপতির নেতৃত্বে হবিগঞ্জ জেলার প্রতিটি ইউনিয়নের ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে সভা সমাবেশ করবো। আমরা যুবলীগের নতুন ধারা ও ইতিহাস সৃষ্টি করতে চাই। আমি আশাবাদী যুবলীগ হবিগঞ্জে প্রতিটি কর্মীর সঠিক মুল্যায়ন করা হবে, যারা যুবলীগের সঠিক কর্মী তাদেরকে মুল্যায়িত করাই আমাদের কাজ। আওয়ামী যুবলীগের কেন্দ্রীয়কমিটির সাধারণ সম্পাদক মাঈনুল ইসলাম খান নিখিলের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, আমরা অনেক বিচার বিশ্লেষন করে নতুন কমিটি দিয়েছি, আশাবাদী হবিগঞ্জ যুবলীগের নতুন কমিটি আগামীতে দলের স্বার্থ রক্ষায় সক্রিয় দায়িত্ব পালন করবে।

 

এ ব্যাপারে আওয়ামী যুবলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি শেখ ফজলে শামস পরশের ব্যক্তিগত মোবাইলে খুদে বার্তা দেয়া হলে তার পিএস বলেন, হবিগঞ্জ জেলা যুবলীগের সভাপতি আবুল কাশেম ও সাধারন সম্পাদক মাঈনু উদ্দিন সুমন ভালো মানুষ হিসাবে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে, তাদের কাছে কর্মীর সঠিক মুল্যায়ন হবে এটাই আমাদের বিস্বাস।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো সংবাদ