1. nafiz.hridoy285@gmail.com : Hridoy Fx : Hridoy Fx
  2. miahraju135@gmail.com : MD Raju : MD Raju
  3. koranginews24@gmail.com : সম্পাদক : সম্পাদক
বাধা পেরিয়ে অটোরিকশায়, হেঁটে নৌকায় সিলেট সমাবেশে নেতা–কর্মীরা - করাঙ্গীনিউজ
  • Youtube
  • English Version
  • বুধবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২২, ১০:৪৩ অপরাহ্ন

করাঙ্গী নিউজ
স্বাগতম করাঙ্গী নিউজ নিউজপোর্টালে। ১৪ বছর ধরে সফলতার সাথে নিরপেক্ষ সংবাদ পরিবেশন করে আসছে করাঙ্গী নিউজ। দেশ বিদেশের সব খবর পেতে সাথে থাকুন আমাদের। বিজ্ঞাপন দেয়ার জন‌্য যোগাযোগ করুন ০১৮৫৫৫০৭২৩৪ নাম্বারে।

বাধা পেরিয়ে অটোরিকশায়, হেঁটে নৌকায় সিলেট সমাবেশে নেতা–কর্মীরা

  • সংবাদ প্রকাশের সময়: শনিবার, ১৯ নভেম্বর, ২০২২

করাঙ্গীনিউজ:
সুনামগঞ্জের শাল্লা থেকে সিলেট প্রায় ৯৯ কিলোমিটার রাস্তা। মোটরসাইকেল বা নৌকায়, পরে বাসে এই পথ পাড়ি দিয়ে সিলেট পৌঁছাতে একজন যাত্রীর সময় লাগে পৌনে তিন থেকে সাড়ে চার ঘণ্টা। গতকাল শুক্রবার সাইফুর রহমান এই পথ পাড়ি দিয়েছেন ১০ ঘণ্টায়। সকাল সাতটায় রওনা দিয়ে চার জায়গায় বাধা পেয়েছেন। গাড়ি বদল করে অবশেষে বিকেল পাঁচটায় তিনি সিলেটের আলিয়া মাদ্রাসা মাঠে পৌঁছান।

সাইফুর রহমানের মতো রাস্তার বাধা-প্রতিবন্ধকতা এড়িয়ে বিএনপির অনেক নেতা-কর্মী সিলেটের বিভাগীয় গণসমাবেশে উপস্থিত হচ্ছেন।

আজ শনিবার বিকেলে সিলেট নগরের আলিয়া মাদ্রাসা মাঠে এই সমাবেশ হবে।

চট্টগ্রাম ও ময়মনসিংহ ছাড়া অন্যান্য বিভাগীয় সমাবেশের মতো সিলেটেও গণসমাবেশকে কেন্দ্র করে গতকাল থেকে সিলেট ছাড়া অপর তিন জেলায় পরিবহন ধর্মঘট চলছে। আজ অপর তিন জেলার সঙ্গে সিলেটেও সকাল-সন্ধ্যা ধর্মঘট চলবে। সেই সঙ্গে নতুন করে পুলিশের মামলা, গ্রেপ্তার, জায়গায় জায়গায় বাধা এবং শহরে ছাত্রলীগের মোটরসাইকেল মহড়াও আছে। এই সমাবেশকে কেন্দ্র করে হবিগঞ্জ, মৌলভীবাজার ও সুনামগঞ্জ থেকে সিলেট অভিমুখী বাস চলাচল বন্ধ করে দিয়েছে জেলা বাস মালিক সমিতি ও পরিবহন শ্রমিক সংগঠনগুলো। এর ফলে সাধারণ মানুষও চরম দুর্ভোগের মুখে পড়েছেন।

আজ সমাবেশ হলেও পরিবহন ধর্মঘটের কথা মাথায় রেখে বুধবার থেকে বিএনপির নেতা-কর্মীরা সিলেটে আসা শুরু করেন। মোটরসাইকেল, অটোরিকশা, সিএনজিচালিত অটোরিকশায় করে, আবার অনেকে হেঁটে সমাবেশস্থলে জড়ো হচ্ছেন। মূলত হবিগঞ্জ, মৌলভীবাজার ও সুনামগঞ্জ জেলার প্রত্যন্ত উপজেলার নেতা-কর্মীদের একটি অংশ আগেভাগেই সিলেটে পৌঁছায়। তিন দিন ধরে তাঁদের বেশির ভাগ আলিয়া মাদ্রাসা মাঠে ঘুমান। সেখানেই তাঁরা খাওয়াদাওয়া সারেন। গতকাল সন্ধ্যায় আলিয়া মাদ্রাসা মাঠে গিয়ে দেখা যায়, সমাবেশস্থল প্রায় পরিপূর্ণ। নেতা-কর্মীরা মিছিল নিয়ে মাঠে ঢুকছেন।

গণসমাবেশ সফল করতে গতকালও সিলেট শহরে একাধিক প্রচার মিছিল হয়েছে। বিকেল চারটার দিকে বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীর নেতৃত্বে মিছিল বের হয়।

জ্বালানি তেলসহ নিত্যপণ্যের অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধি, দলের পাঁচ নেতা-কর্মীকে গুলি করে হত্যার প্রতিবাদে; বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তি এবং নির্দলীয় ও নিরপেক্ষ সরকারের অধীন সংসদ নির্বাচনের দাবিতে বিএনপি সারা দেশে ধারাবাহিকভাবে গণসমাবেশ করছে। আজ সিলেটে সমাবেশের পর ২৬ নভেম্বর কুমিল্লায় ও ৩ ডিসেম্বর রাজশাহীতে সমাবেশ হবে। সবশেষে ১০ ডিসেম্বর ঢাকায় গণসমাবেশ হওয়ার কথা।

এর আগে ১২ অক্টোবর চট্টগ্রামে প্রথম গণসমাবেশ হয়। এরপর ময়মনসিংহ, খুলনা, রংপুর, বরিশাল ও ফরিদপুরে সমাবেশ হয়। চট্টগ্রাম ছাড়া সব সমাবেশের দুই দিন আগেই পরিবহন ধর্মঘট ডাকা হয়। এর মধ্যে ময়মনসিংহে ধর্মঘট ছিল অঘোষিত।
যেখানেই সমাবেশ, সেখানেই পরিবহন ধর্মঘট কেন?

সিলেটের মতো খুলনা, রংপুর, বরিশাল ও ফরিদপুরে বিএনপির গণসমাবেশের আগেও বাস মালিক ও শ্রমিক সংগঠনগুলো আঞ্চলিকভাবে পরিবহন ধর্মঘট ডেকেছিল। তাদের দাবি ছিল, মহাসড়কে সিএনজিচালিত অটোরিকশা, নছিমন, করিমন, ভটভটিসহ তিন চাকার ছোট যান বন্ধ। সিলেটে বিএনপির সমাবেশ ঘিরে জেলায় আজ সকাল-সন্ধ্যা পৃথকভাবে পরিবহন ধর্মঘট ডেকেছে দুটি সংগঠন। এর একটি সিলেট জেলা সড়ক পরিবহন বাস মালিক সমিতি, অন্যটি সিলেট জেলা শ্রমিক ঐক্য পরিষদ।

এর মধ্যে জেলা সড়ক পরিবহন বাস মালিক সমিতি ধর্মঘট ডেকেছে সিএনজিচালিত অটোরিকশায় যাত্রীদের নিরাপত্তাবেষ্টনী লাগানোসহ দুই দফা দাবিতে। জেলা শ্রমিক ঐক্য পরিষদ ধর্মঘট ডেকেছে সিলেটে বন্ধ থাকা সব কটি পাথর কোয়ারি চালুসহ চার দফা দাবিতে।

বিএনপির সমাবেশের আগে এ দাবি রাস্তায় এল কেন? জবাবে সিলেট জেলা সড়ক পরিবহন বাস মালিক সমিতির সভাপতি মো. আবুল কালাম বলেন, এটা কাকতালীয়, অন্য কোনো কারণ নেই। দিনটি আগেই নির্ধারিত ছিল।

আর সিলেট বিভাগীয় শ্রমিক ঐক্য পরিষদের সভাপতি মো. মইনুল ইসলাম দ বলেন, ‘আমরা অরাজনৈতিক মানুষ। কোনো রাজনৈতিক সংগঠনের কর্মসূচি মাথায় রেখে ধর্মঘট ডাকা হয়নি।’

সংবাদটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো সংবাদ
x