1. nafiz.hridoy285@gmail.com : Hridoy Fx : Hridoy Fx
  2. miahraju135@gmail.com : MD Raju : MD Raju
  3. koranginews24@gmail.com : সম্পাদক : সম্পাদক
চাঁদপুরে ভাতিজীর গর্ভে চাচার সন্তান! - করাঙ্গীনিউজ
  • Youtube
  • English Version
  • মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর ২০২০, ০৫:৪৩ অপরাহ্ন

করাঙ্গী নিউজ
স্বাগতম করাঙ্গী নিউজ নিউজপোর্টালে। ১২ বছর ধরে সফলতার সাথে নিরপেক্ষ সংবাদ পরিবেশন করে আসছে করাঙ্গী নিউজ। দেশ বিদেশের সব খবর পেতে সাথে থাকুন আমাদের। বিজ্ঞাপন দেয়ার জন‌্য যোগাযোগ করুন ০১৮৫৫৫০৭২৩৪ নাম্বারে।

চাঁদপুরে ভাতিজীর গর্ভে চাচার সন্তান!

  • সংবাদ প্রকাশের সময়: বুধবার, ১৮ নভেম্বর, ২০২০
চাঁদপুরে ভাতিজীর গর্ভে চাচার সন্তান!

চাঁদপুরে কচুয়ায় ভাতিজীর গর্ভে চাচার সন্তান জন্মদানের ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। চাচা জাকির হোসেনের যৌন লালসার শিকার তার ভাতিজীর সন্তান প্রসবের পর দত্তক নিয়ে বাক-বিতণ্ডার এক পর্যায়ে পুলিশ জাকিরকে আটক করে।

১৬ বছর বয়সি মেয়েটি কচুয়া উপজেলার জগতপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের ১০ম শ্রেনীর ছাত্রী। তারা আশ্রাফপুর ইউনিয়নের মতুরাপুর গ্রামের মিয়াজীর বাড়ির বাসিন্দা।

স্থানীয়রা জানায়, জাকির হোসেন মেয়েটির সম্পর্কে সৎ চাচা। একই বাড়ির বাসিন্দা ও পাশাপাশি ঘর হওয়ায় জাকির হোসেন যখন তখনই ভাতিজির ঘরে আসা যাওয়া করতো। ভাতিজির সাথে কথাবার্তা বলার একপর্যায়ে বিভিন্ন প্রলোভন দেখিয়ে দৈহিক সম্পর্ক গড়ে তোলে। এতে ভাতিজি অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে।

জানা যায়, অন্ত:সত্ত্বা হওয়ার কয়েকমাস পর মেয়েটি ঢাকার টঙ্গীতে তার নানার বাড়িতে চলে যায়।

সেখানে মাস খানেক পূর্বে ছেলে সন্তান প্রসব করে। সন্তান প্রসবের পর তাকে কুমিল্লা শহরের এক ব্যক্তির নিকট দত্তক দেয়া হয়। দত্তক গ্রহিতা সন্তানটি দত্তক বিষয়ে কাগজপত্র সম্পাদন করতে বলে। এরই পরিপ্রেক্ষিতে গত ১৩ নভেম্বর মেয়েটি কুমিল্লার কুচিয়াতলী হাসপাতালের সামনে কাগজপত্র সম্পাদনের জন্য গেলে সন্তানটির জম্মদাতা পিতার প্রয়োজনীয়তা দেখা দিলে মেয়েটি কৌশল করে জাকির হোসেনকে ঘটনাস্থলে নিয়ে আসে।

এ সময় জাকির হোসেন নিজেকে সন্তানটির পিতা ও সন্তানের মাকে তার স্ত্রী হিসেবে দাবি করলে মেয়েটি বলে-আমি আপনার কীভাবে স্ত্রী হই, আপনি তো আমার চাচা।

এতে উপস্থিত লোকজনের তাদের প্রতি সন্দেহ হলে তারা কুমিল্লার কোতয়ালী থানার পুলিশকে খবর দেয়। পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে জাকির হোসেন ও মেয়েটিকে (সন্তানের মাকে) আটক করে থানায় নিয়ে যায়। পরে তাদেরকে আটক করার বিষয়টি কচুয়া থানাকে অবহিত করলে কচুয়া থানা পুলিশ তাদেরকে নিয়ে এসে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনের ৯(১/১৩) ধারায় মামলা দায়ের করে। মামলা নং-১৪। মামলা দায়েরের পর দিন জাকির হোসেনকে কোর্টে সোপর্দ করার মধ্যে দিয়ে জেলা হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

এদিকে চাচা-ভাতিজির এ দৈহিক সম্পর্কের ঘটনায় এলাকার জনমনে প্রচ- ক্ষোভ ও নিন্দার সৃষ্টি হয়েছে।

আরো পড়ুন:- সোশ্যাল মিডিয়াতে অশ্লীলতা ও আমাদের যুবসমাজ

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো সংবাদ