ব্যাচ ৯৪ চুনারুঘাট এর বর্ণিল যাত্রা শুরু

আবুল কালাম আজাদ ,চুনারুঘাট (হবিগঞ্জ): হবিগঞ্জের চুনারুঘাট উপজেলার সকল বিদ্যালয় ও মাদ্রাসার ৯৪ ব্যাচের শিক্ষার্থীদের নিয়ে ২৬ বছর ব্যাচ-৯৪ এর বর্ণিল যাত্রা শুরু হয়েছে।

শুক্রবার দিনব্যাপী সাতছড়ি জাতীয় উদ্যানে সহপাঠী ৯৪ এর ১ম পুনর্মিলনীর মাধ্যমে এ সংগঠনআত্বপ্রকাশ করে।

চুনারুঘাটের প্রায় সকল বিদ্যালয়ের ৯৪ ব্যাচটি আইকন হিসেবে পরিচিত। কারণ একমাত্র এ ব্যাচেই দেশের নামকরা ডাক্তার, উপ সচিব, ইঞ্জিনিয়ার থেকে শুরু করে দেশ বিদেশের নানা প্রান্তে মেধাবিরা ছড়িয়ে আছে। দীর্ঘদিন এ ব্যাচটি বিদ্যালয় ভিত্তিক আর্তমানবতার সেবা ও সামাজিক নানা কাজে সম্পৃক্ত হলেও এবারই প্রথম অধিকাংশ বিদ্যালয়ের ৯৪ ব্যাচের শিক্ষার্থীদের নিয়ে একসাথে সংগঠনের আত্বপ্রকাশ ঘটলো যা চুনারুঘাটে কোন ব্যাচের এই প্রথম।

শুক্রবার সকাল থেকেই ব্যাচ ৯৪ এর বন্ধুরা চুনারুঘাট শহরে আনন্দ র‌্যালীর মাধ্যমে
তাদের আত্বপ্রকাশ জানান দেন। এরপর দুটি বাসযোগে শতাধিক বন্ধু চা বাগান
পেরিয়ে সকাল সাড়ে ১০টায় পৌছান সাতছড়ি জাতীয় উদ্যানে। নানা হই হুল্লুড় আর  ছুটাছুটির মধ্যেই শুরু হয পরিচয় পর্ব। ব্যাচ ৯৪ এর বন্ধু সরকারের সংস্কৃতি মন্ত্রনালয়ের উপ সচিব মোস্তফা মোর্শেদ এর সঞ্চালনায় পরিচষয় পর্ব শেষে শুরু হয় স্কুল জীবণের নানা স্মৃতিচারণ। বেলা সাড়ে ১২টায় প্রথম পর্বের সমাপ্তি ঘটে।

জুম্মার নামাজ শেষে শুরু হয় খাবার দাবার পর্ব। শুরুতেই যোগ দেন ব্যাচ ৯৪ এর তিন কৃতি ডাক্তার, বিশিষ্ট চক্ষু বিশেষজ্ঞ ও সার্জন ডাঃ আব্দুল মোন্তাকিম সাহিদ, বিশিষ্ট অর্থপেডিক ও সার্জন ডাঃ মোস্তাহিজুর রহমান মোমেন ও আরেক কৃতি বন্ধু চুনারুঘাট উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মোজাম্মেল হোসেন এবং সাবেক ছাত্রনেতা সাইফুল আলমরুবেল।

খাবারের দায়িত্ব পাওয়া ব্যাচ ৯৪ এর আব্দুল মুকিত, খায়রুল হাসান, মোঃ লিটন, মুরাদ, হাফিজসহ কয়েকজন খাসি, চিকেন আর ইলিশ ছাড়াও দই আর ড্রিংস দিয়ে সবার মন জয় করে নেন।

বিকেলে দ্বিতীয় পর্বে ছিল ৯৪ ব্যাচের
যাত্রার প্রাক্ষালের কথা ও নানা পরিকল্পনা এবং আর্তমানবতার সেবায় কল্যাণকর কিছু করা প্রয়াস। সেখানে আলোচনায় অংশ নেন উপ-সচিব মোস্তফা মোর্শেদ, ডাঃ মোজাম্মেল হোসেন, ডাঃ মোস্তাহিজুর রহমান মোমেন, ডাঃ মোন্তাকিম সাহিদ, সাইফুল আলম রুবেল, আমেরিকা প্রবাসী আব্দুর রউফ জলাই, নুরুল গনি সজিব, আকিকুর রহমান মোবেদ, ইঞ্জিনিয়ার দেওয়ান বদরুল আলম, নাসির উদ্দিন চৌধুরী, লুৎফুর রহমান, জাহাঙ্গীর আলম, আজাদ, সোহেল, জাকারিয়া, শফিকুল ইসলাম মনা, ছায়েব আলী, আফজাল চৌধুরী, মোহাম্মদ আলী, টিপুসহ অনেকেই।

সামারান্তে গুরুত্বপুর্ণ বিষয়গুলো কার্যকরের সিদ্ধান্ত হয়।

এরপরই শুরু হয় উপহার প্রদান ও র‌্যাফেল ড্র। এতে মোস্তফা মোর্শেদ, মনিলাল, সজল, সজিব, মুকিতসহ অনেকেই সহযোগিতা করেন।

ব্যাচ ৯৪ এর দিনব্যাপী পুনর্মিলণীর সকল আয়োজনের পেছনে যারা অগ্রণী
ভুমিকা পালন করেছেন তাদের প্রবাসী বন্ধু আব্দুর রউফ জলাই, উপ সচিব মোস্তফা
মোর্শেদ. খায়রুল হাসান, নুরুল গনি সজিব, লিটন, মুকিত, মনিলাল, রাহী, মুরাদ, সোহেলসহ আরও অনেকেই।

রেজিষ্ট্রেশনের অর্থ ছাড়া তাদেরকে মোটা অর্থ দিয়ে সহযোগিতা করেছেন, আমেরিকা প্রবাসী আব্দুর রউফ জলাই, ডাঃ মোস্তাহিজুর রহমান মোমেন, ডাঃ মোন্তাকিম সাহিদ, ডাঃ মোজাম্মেল,
আমেরিকা প্রবাসী তায়েফুর রহমান বায়েস, ফিলিপাইন প্রবাসী মোস্তাফিজ চৌধুরী, প্রবাসী শেখ তাহিরসহ অনেক প্রবাসী বন্ধুরা। তাদের প্রতিও সর্বশেষ কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

four − 4 =