স্বপ্ন পূরন হচ্ছে চিকন আলীর

মো: আক্তার হোসেন : নায়ক হওয়ার স্বপ্ন নিয়ে চলচ্চিত্রে অভিনয় শুরু করেছিলেন চিকন আলী। কিন্তু বনে যান কমেডিয়ান। ৩০০-এর বেশি চলচ্চিত্রে কাজের পর অবশেষে চিকন আলীর স্বপ্নপূরণ হচ্ছে, এবার তিনি নায়ক হচ্ছেন।

চিকন আলী তার স্বপ্নপূরণের কথা জানিয়ে বলেন, ৩০০ চলচ্চিত্রে অভিনয়ের পর এই প্রথমবার নায়ক হিসেবে অভিনয় করতে যাচ্ছি। চলচ্চিত্রের নাম ‘ক্রেজি লাভার’। প্রযোজনা করছেন প্রযোজক পরিবেশক সমিতির সাংস্কৃতিক সম্পাদক মোর্শেদ খান হিমেল।

বর্তমানে এ চলচ্চিত্রের গান কাজের ও গল্পের লাইনআপ করা হচ্ছে। আগামী দুই মাসের মধ্যেই বগুড়ার মহাস্থানগড়, পাহাড়পুর, দিনাজপুরের স্বপ্নপুরীসহ উত্তরবঙ্গের বিভিন্ন এলাকায় শুটিং হবে বলে জানান চিকন আলী।

তিনি বলেন, আমাদের দেশের অনেক নায়ক নাচ, ফাইটিং, অভিনয়ে খুব দুর্বল। কিন্তু আমি অনেক বছর ধরে থিয়েটারে কাজ করেছি, নাটকে কাজ করে ৩০০ এর বেশি চলচ্চিত্রে অভিনয় করে নিজেকে উপযুক্ত করেছি। নায়ক হতে গেলে চেহারার চেয়ে অভিনয়, নাচ, ফাইটিং জানা লাগে। আমি সব বিষয়ে পারদর্শী। একটা সুযোগের অপেক্ষায় ছিলাম। অবশেষে পেলাম।

নায়ক রুবেল ভাইয়ের কাছ থেকে ফাইটিং শিখেছি। আমি অনেক ভালো নাচ করতে পারি। কিন্তু যেসব চলচ্চিত্রে কাজ করেছি সেখানে নিজের এসব গুণ তুলে ধরতে পারিনি। সবসময়ই নায়কদের প্রাধান্য দেয়া হতো। এবার আমি নায়ক হয়ে নিজেকে প্রমাণ করবো। প্রযোজক আমাকে নিয়ে যে ঝুঁকি নিচ্ছেন, তাই পারিশ্রমিকের চেয়ে যাতে তার লোকসান না হয় সেটা খেয়াল রাখবো।

১৮ বছর আগে ‘রঙিন চশমা’ চলচ্চিত্রে প্রথম অভিনয় করেন চিকন আলী। এরপর সুলতান, ধাওয়া পাল্টা ধাওয়াসহ দুই শতাধিক চলচ্চিত্রের ছোট ছোট চরিত্রে অভিনয় করেছেন তিনি। তবে আলোচনা আসেন ‘মনে প্রাণে আছো তুমি’ চলচ্চিত্র দিয়ে। এরপর থেকে নতুন চলচ্চিত্র মানেই ছিলেন চিকন আলীর কমেডি! তার ভাষায়, শাকিব ভাইয়ের সাথেই ৭০টি চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছি।

উদাহরণ টেনে চিকন আলী বলেন, ইন্ডিয়ার জনি লিভার, যশপাল যাদব, সুনিলসহ তামিল-তেলেগুর অনেকে কমেডিয়ান থেকে নায়ক হয়ে সফল হয়েছেন। আমাদের দেশে টেলি সামাদ (দিলদার আলী), দিলদার সাহেব (আবদুল্লাহ) নায়ক হয়ে সুপারহিট চলচ্চিত্র উপহার দিয়েছেন। ইনশাআল্লাহ আমিও পারবো।

চিকন আলীকে নিয়ে এ চলচ্চিত্রের প্রযোজক মোর্শেদ খান হিমেল বলেন, চিকন আলী এর আগে আমার প্রোডাকশনে অনেক চলচ্চিত্রে কমেডিয়ান হিসেবে কাজ করেছে। এবার তাকেই নায়ক বানিয়ে ‘ক্রেজি লাভার’ বানাতে যাচ্ছি। তার বিপরীতে পরিচিত কোনো নায়িকা না পেলে নতুন কাউকে সুযোগ দেব। তবে চিকন আলীকে নিয়ে চলচ্চিত্র করবো এটা কনফার্ম।

তিনি বলেন, কয়েকজনের সাথে আলাপ করলেও পরিচালক এখনও চূড়ান্ত করিনি। তবে ভালো পরিচালকই নেব। এটা হবে মারদাঙ্গা ও কমেডি চলচ্চিত্র। চলচ্চিত্রটি সংলাপ করা হবে কলকাতা থেকে। আমার ঘাসফুল প্রোডাকশন থেকেই চলচ্চিত্রটি নির্মিত হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

4 × 4 =