Oops! It appears that you have disabled your Javascript. In order for you to see this page as it is meant to appear, we ask that you please re-enable your Javascript!
 #  নাসিরনগরে জিপিএ-৫ পেল ১৯ জন #  নবীগঞ্জে আইনশৃঙ্খলা কমিটির সভা অনুষ্ঠিত #  এসএসসিতে জিপিএ-৫ পেল মুনতাহা #  করোনায় বিপন্ন মানুষের পাশে এইড ফর নাসিরনগর #  এনটিভির অনুষ্ঠান বিভাগের প্রধান মোস্তফা কামাল আর নেই #  চুনারুঘাটে কৃষকদের প্রশিক্ষণ #  লাখাইয়ে পরীক্ষায় ফেল করে কিশোরীর আত্মহত্যা #  বাস ভাড়া ৬০ শতাংশ বাড়িয়ে প্রজ্ঞাপন #  দেশে ২৪ ঘন্টায় আক্রান্ত ২৫৪৫, মৃত্যু ৪০ #  শায়েস্তাগঞ্জে জিপিএ ৫ এ ইসলামী একাডেমী সেরা #  দুই মাস পর শায়েস্তাগঞ্জ ছেড়ে গেল ‘কালনী’ #  হবিগঞ্জে পাশের হার ৭২.৭৩ শতাংশ #  সিলেটে পাশের হার ৭৮ দশমিক ৭৯ #  এসএসসি ও সমমান পরীক্ষার ফল আজ #  নবীগঞ্জে ধ্বসে পড়েছে ইউএনও’র বাসার নিরাপত্তা দেয়াল

শিমুল বাগানসহ সুনামগঞ্জের সব স্পটে পর্যটক নিষিদ্ধ

নিজস্ব প্রতিনিধি, সুনামগঞ্জ: বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ মহামারী রূপ নেয়া এবং দেশে করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় সুনামগঞ্জের হাওর ও সীমান্তজনপদ তাহিরপুরে দর্শনীয় স্থানগুলোতে পর্যটক আগমনে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার সকাল ৬টা হতে উপজেলা প্রশাসন এই নিষেধাজ্ঞা জারি করেন।

বৃহস্পতিবার সকালে সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিজেন ব্যানার্জী গণমাধ্যমকে জানান,পরবর্তী নির্দেশনা না দেয়া অবধি এই নিষেধাজ্ঞা বলবৎ থাকবে।

তিনি বলেছেন,করোনা ভাইরাস মোকাবেলা ও ঝুঁকি এড়াতে সারা দেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে দেয়ার সুযোগে হাওর ও ভারত সীমান্তবর্তী জনপদ তাহিরপুরে থাকা ওয়ার্ল্ড হেরিটেইজ অব টাঙ্গুয়ার হাওর,টেকেরঘাট চুনাপাথর খনি প্রকল্প এলাকা থাকা শহীদ সিরাজ (নিলাদ্রী)লেক, লাকমা ছড়া,লালঘাট ঝরণাধারা,সীমান্তঘেষা ক্ষুদ্র-নৃতাত্বিক জনগোষ্ঠী অধ্যুষিত জনপদে থাকা রাজাই ঝরণা, হলহলিয়া রাজবাড়ি দূর্গ,বারেকটিলা,জাদুকাঁটা নদী,হযরত শাহ আরেফিন (রহ.)’র সীমান্তঘেষা আস্থানা, মাণিগাঁও জয়নাল আবেদীন শিমুল বাগানসহ উপজেলার দর্শনীয় ও পর্যটন স্পটে দলবেধে কিছু অতি উৎসাহী ভ্রমণকারী ও পর্যটকগণ ঘুরতে ব্যস্ত হয়ে ছুছছেন প্রতিনিয়ত।

তিনি আরো বলেন, চলতি বছরের ২১ হতে ২৩ মার্চ তিন দিন ব্যাপী তহিরপুরের হযরত শাহ আিেফন (রহ.)’র আস্থানায় বার্ষিক ওরস মোবারক ও শ্রী অদ্বৈত আটার্য’র জন্মধাম রাজারগাঁওস্থ জাদুকাটা নদীর তীরবর্তী পণতীর্থ ধামে বারুণীমেলায় একই সময়ে গঙ্গাস্নানযাত্রা উৎসব বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। এ দুটি ধর্মীয় উৎসবে কমপক্ষে ৪ হতে ৫ লাখ মানুষজনের সমাগম ঘটে অতচ করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় জেলা প্রশাসন ওই দুটি উৎসব বন্ধ করে দিয়েছেন।

বৃহস্পতিবার সকালে তাহিরপুর থানার ওসি মো.আতিকুর রহমান জানান, উপজেলার দর্শনায় স্থানগুলোতে পর্যটক আগমন নিরুৎসাহিত করতে এসব স্থানে পর্যটক পরিবহন কাজে থাকা সব ধরনের যানবাহনে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন উপজেলা প্রশাসন।

ওসি আরো বলেন,নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে পর্যটক পরিবহনকাজে থাকলে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে পর্যটক পরিবাহী সবধরনের তিন-চার চাকার যানবাহন,মোটরসাইকেল,ইঞ্জিন চালিত ট্রলার,স্পীডবোট গুলোকে জব্দ,চালক মালিকদের সাজার মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ এমনকি অর্থদন্ড আদায় করা হতে পারে।
পর্যটকদের থাকা ও অবস্থান নিরুৎসাহিত করতে তাহিরপুর উপজেলা সদর, মাণিগাঁও বাগানবাড়ি, বাণিজ্যিক কেন্দ্র বাদাঘাটের আবাসিক হোটেল মালিকদের সতর্ক করে দেয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আব্দুল আহাদ বলেন, করোনা ভাইরাস ঝুঁকি এড়াতে সুনামগঞ্জের পর্যটন এলাকাগুলোতে পর্যটক সমাগম নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, শুধু সরকার, স্বাস্থ্য বিভাগ, প্রশাসনই যথেষ্ট নয় গোটা দেশবাসী সম্মিলিত হয়ে সবাই সচেতন হলেই কেবল এমন প্রাকৃতিক মহামারীতে আক্রান্ত’ এমনকি প্রাণ হানীর ঝুঁকি কমিয়ে আনা সম্ভব বলে হবে মনে করি আমি।