1. nafiz.hridoy285@gmail.com : Hridoy Fx : Hridoy Fx
  2. miahraju135@gmail.com : MD Raju : MD Raju
  3. koranginews24@gmail.com : সম্পাদক : সম্পাদক
মাধবপুরে এডিপির কাজে হ-য-র-ল-বঃ কাজ বাস্তবায়নে অগ্রগতি নেই - করাঙ্গীনিউজ
করাঙ্গী নিউজ
স্বাগতম করাঙ্গী নিউজ নিউজপোর্টালে। ১৩ বছর ধরে সফলতার সাথে নিরপেক্ষ সংবাদ পরিবেশন করে আসছে করাঙ্গী নিউজ। দেশ বিদেশের সব খবর পেতে সাথে থাকুন আমাদের। বিজ্ঞাপন দেয়ার জন‌্য যোগাযোগ করুন ০১৮৫৫৫০৭২৩৪ নাম্বারে।

মাধবপুরে এডিপির কাজে হ-য-র-ল-বঃ কাজ বাস্তবায়নে অগ্রগতি নেই

  • সংবাদ প্রকাশের সময়: বৃহস্পতিবার, ১২ জুলাই, ২০১৮

মাধবপুর (হবিগঞ্জ) প্রতিনিধি :
চলতি জুলাই মাসে ২০১৮-২০১৯ অর্থ বছর শুরু হয়েছে। কিন্তু ২০১৭-২০১৮ অর্থবছরের ৪ কোটি টাকার বার্ষিক উন্নয়ন প্রকল্প (এডিপি) কাজ এখনো শতভাগ সম্পন্ন হয়নি। সঠিক সময়ে প্রকল্প গ্রহণ না করায় বিগত অর্থ বছর শেষ হলেও এখন পর্যন্ত শতভাগ কাজ সম্পন্ন সম্ভব হয়নি।

গত জুন মাসে শেষের দিকে ভরা বর্ষায় তড়িঘড়ি করে কাজ শেষ করতে গিয়ে অনেক প্রকল্পে নিম্ন মানের উপকরণ দিয়ে কাজ সম্পন্ন করা হয়েছে। প্রকল্প প্রণয়নে দলীয় করণ, স্বজনপ্রীতি এবং দেরীতে প্রকল্প গ্রহণ করায় এমন অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে।

জানা গেছে, ৪ কোটি টাকার সরকারি অনুদান এবং উপজেলা পরিষদের সরকারি অর্থায়নে প্রকল্প প্রণয়ন নিয়ে গত ৪/৫মাস ধরেই রশি টানাটানি চলছিল। উপজেলা পরিষদের সদস্যদের ইউপি চেয়ারম্যানদের বাদ দিয়ে প্রকল্প নেওয়া হলে চেয়ারম্যানরা এতে বাধা দেন।

বহরা ইউপি চেয়ারম্যান আওয়ামীলীগ নেতা আরিফুর রহমান উপজেলা পরিষদের উন্নয়ন সভায় প্রত্যেক ইউপি চেয়ারম্যানকে এডিপি কাজের বরাদ্দ দেওয়ার জোর আবেদন করলে অবশেষে ১১টি ইউনিয়ন চেয়ারম্যানকে ১০ লাখ টাকার প্রকল্প দেওয়া হয়।

মাধবপুর উপজেলার ৫টি চা বাগানে অবহেলিত জনগোষ্ঠীর জন্য এডিপির প্রকল্পে আর্থিক বরাদ্দ দেওয়া হয়নি। প্রকল্প প্রণয়নে এলাকা ভিত্তিক বিমাতা সুলভ আচারণ করা হয়েছে।

গত কয়েক মাস আগে হবিগঞ্জ জেলা প্রশাসক মাহমুদুল কবির মুরাদ মাধবপুরে এক সুধী সমাবেশে কঠোর হুশিয়ারি করেন দেরীতে প্রকল্প প্রণয়ন এবং কাজে বাস্তবায়নে ধীরগতি এবং অনিয়মের অভিযোগ তুলে কঠিন ব্যবস্থা নেওয়ার ঘোষনা দেন। এরপরেও মাধবপুরে এডিপির কাজে বাস্তবায়নে সন্তোষজনক অগ্রগতি নেই।

বহরা ইউনিয়নে জালাল মিয়ার বাড়ি হতে দক্ষিণে ভবানীপুর রাস্তার ইট সলিংয়ের কাজ নকশা পাল্টিয়ে উত্তর দিকে এক সাংবাদিকের নিজস্ব জায়গা দিয়ে পুকুর পাড়ের গাছ কেটে রাস্তা করার উদ্যোগ নিলে এনিয়ে মামলা মোকদ্দমার সৃষ্টি হয়ে সরকারি কাজটি এখন বন্ধ রয়েছে।

জেলা এলজিইডি নির্বাহী কর্মকর্তা জাকির হোসেন সিকান্দার বলেন, এডিপির কাজ ভালোভাবে সম্পন্ন করার জন্য মাধবপুরে এলজিইডি অফিসের অনেক কর্মকর্তা রয়েছেন। কোন অনিয়মের অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো সংবাদ
x