• Youtube
  • English Version
  • শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১০:৪৫ অপরাহ্ন

করাঙ্গী নিউজ
স্বাগতম করাঙ্গী নিউজ নিউজপোর্টালে। ১৫ বছর ধরে সফলতার সাথে নিরপেক্ষ সংবাদ পরিবেশন করে আসছে করাঙ্গী নিউজ। দেশ বিদেশের সব খবর পেতে সাথে থাকুন আমাদের। বিজ্ঞাপন দেয়ার জন‌্য যোগাযোগ করুন ০১৮৫৫৫০৭২৩৪ নাম্বারে।

ব্যক্তিগত আক্রোশে মৌলভীবাজার জাপা নির্বাচনী অফিসে হামলা

  • সংবাদ প্রকাশের সময়: শুক্রবার, ২২ ডিসেম্বর, ২০২৩

মৌলভীবাজার প্রতিনিধি:
মৌলভীবাজারে জাতীয় পার্টির নির্বাচনী কার্যলয়ে হামলার ঘটনা ব্যক্তিগত আক্রোশের জেরে হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। হামলার ঘটনায় এজাহানামীয় সব আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

 

শুক্রবার (২২ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় মৌলভীবাজার সদর মডেল থানায় সংবাদ সম্মেলন করে পুলিশ সাংবাদিকদের জানায়, ২১ ডিসেম্বর মৌলভীবাজার-৩ আসনে জাতীয় পার্টির প্রধান কার্যালয়ে হামলার ঘটনাটি ছিল ব্যক্তিগত আক্রোশ থেকে। এটা রাজনৈতিক কোন হামলা নয়। হামলার ঘটনায় পুলিশ বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে এজাহারনামীয় ৩ আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে।

 

গ্রেপ্তারকৃত আসামিরা হলেন মৌলভীবাজার সদর থানাধীন কাজীরগাঁও এলাকার মৃত ফারুক মিয়ার ছেলে রাজন মিয়া রাজু (৩৫), বড়হাট এলাকার মৃত আরিছ মিয়ার ছেলে আলীম মিয়া (৩৩) এবং বড়কাপন এলাকার তাহের উল্লাহর ছেলে সাহেল মিয়া(২৮)।

 

মৌলভীবাজার সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ কে এম নজরুল জানান, গ্রেপ্তারকৃত ৩ আসামির কোন রাজনৈতিক পরিচয় নেই। আসামি আলীম এবং রাজু পূর্বে জাতীয় পার্টির প্রার্থী আলতাফুর রহমানের প্রতিষ্ঠানে চাকরি করতো। চাকরিকালীন সময়ে করা তাদের মধ্যে ব্যক্তিগত সর্ম্পক অবনতি হয়। গত ২১ ডিসেম্বর রাতে গ্রেফতারকৃত ১। আলীম মিয়া (৩৩), ২। সাহেল মিয়া (২৮) এবং ৩। রাজন মিয়া প্রকাশ রাজু (৩৫) জাতীয় পার্টির নির্বাচনী কার্যালয়ে প্রবেশ করলে গ্রেপ্তারকৃত আসামি আলীম মিয়ার সাথে বেলায়েত আলী জুয়েল এর চেয়ারে বসা ও সিনিয়র-জুনিয়র, সম্মান দেওয়া না দেওয়ার বিষয়কে কেন্দ্র করে কথা-কাটাকাটির এক পর্যায়ে সংঘর্ষ শুরু হয়। এসময় ছুরির আঘাতে বেলায়েত আলী জুয়েলের পেটে কাটা জখম হয় এবং তাতে ১০ টি সেলাই লাগে। এছাড়া খালেদ চৌধুরী এবং আলতাফুর রহমানের ছেলে হানিফ ইবনে আলতাফ আহত হয়।

 

তিনি আরও জানান, এই হামলার সাথে কোন রাজনৈতিক দলের সংশ্লিষ্টতা এখন পর্যন্ত পাওয়া যায়নি। তদন্তপূর্বক ঘটনার সাথে জড়িত কেউ থাকলে তাকে আইনের আওতায় আনা হবে। গ্রেপ্তারকৃত ৩ আসামিসহ অজ্ঞাতনামা ৮/১০ জনকে অভিযুক্ত করে জাতীয় পার্টির প্রার্থী আলতাফুর রহমানের স্ত্রী বাদী হয়ে মৌলভীবাজার সদর মডেল থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। সেই অভিযোগের প্রেক্ষিতে একটি মামলা রুজু করা হয়েছে।

 

সদর থানার এসআই শিপু কুমার দাসকে মামলার তদন্তকারী অফিসার হিসেবে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো সংবাদ