1. nafiz.hridoy285@gmail.com : Hridoy Fx : Hridoy Fx
  2. miahraju135@gmail.com : MD Raju : MD Raju
  3. koranginews24@gmail.com : সম্পাদক : সম্পাদক
লাখাইয়ে স্কুলে ৭১ শতাংশ উপস্থিতি - করাঙ্গীনিউজ
  • Youtube
  • English Version
  • রবিবার, ২৪ অক্টোবর ২০২১, ০২:৪৪ পূর্বাহ্ন

করাঙ্গী নিউজ
স্বাগতম করাঙ্গী নিউজ নিউজপোর্টালে। ১২ বছর ধরে সফলতার সাথে নিরপেক্ষ সংবাদ পরিবেশন করে আসছে করাঙ্গী নিউজ। দেশ বিদেশের সব খবর পেতে সাথে থাকুন আমাদের। বিজ্ঞাপন দেয়ার জন‌্য যোগাযোগ করুন ০১৮৫৫৫০৭২৩৪ নাম্বারে।

লাখাইয়ে স্কুলে ৭১ শতাংশ উপস্থিতি

  • সংবাদ প্রকাশের সময়: শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০২১

নিতেশ দেব, লাখাই(হবিগঞ্জ): দীর্ঘ দেড় বছরের বেশি সময় বন্ধ থাকার পর সারাদেশের ন্যায় লাখাই উপজেলার সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলা হয় রবিবারে। শিক্ষার্থীরা স্বাস্থ্যবিধি মেনেই বিদ্যালয়ে আসে। অনেক শিক্ষার্থী হাল ধরেছে সংসারের। আবার কারু বিয়ে হয়ে গেছে। গত ৫দিনে শিক্ষার্থীদের বিদ্যালয়ের উপস্থিতির হার প্রাথমিক পর্যায়ে ৭১ শতাংশ। মাধ্যমিক পর্যায়ে উপস্থিাতির হার ৫১ শতাংশ।

অনুপস্থিাতির বিষয়ে খোঁজ নিয়ে বিদ্যালয়ে ফিরিয়ে আনার চেষ্টা করেছেন কর্তৃপক্ষ। লাখাই উপজেলায় ৭২ প্রাথমিক বিদ্যালয়, ১১টি মাধ্যমিক বিদ্যালয়, ১টি কলেজ, কেজি স্কুল ও মাদ্রাসা সহ এসব প্রতিষ্ঠানে কমপক্ষে ৩৯ হাজার শিক্ষার্থী পড়াশুনা করে।

সিংহগ্রাম সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৪র্থ শ্রেণির শিক্ষার্থী নুসরাত জাহান মুন্নি জানায় আটকে পড়া পাখির মত বন্দী ছিলাম। স্কুলে আসতে পেরে খুব ভালো লাগছে। তবে এ সময়ের মধ্যে আমাদের অনেক সহপাটিদের দেখতে পাচ্ছিনা।

ফরদাবাদ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক প্রানেশ গোস্বামী বলেন, শিক্ষার্থীরা বেশ আগ্রহ সহকারে বিদ্যালয়ে আসছে । কেউ কেউ আসেনি। হোম ভিজিটের মাধ্যমে তাদের নিয়মিত করা হবে। শিখন ঘাটতি দূরীকরণে যে পরিকল্পনা দেয়া হয়েছে সে অনুযায়ী আমরা পাঠদান দিয়ে আসছি বলে জানান তিনি।

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসের অফিস সহকারী কাম ডাটা-এন্টি অপারেটর মোঃ হারুনুর রশিদ বলেন, করোনায় ছাত্র-ছাত্রীদের ভীতি এখনও কেটে ওঠেনি। কেউ কেউ এ ক্লান্তি লগ্নে পরিবার রক্ষায় হয়েছে উপার্জনের খুঁটি। আমরা অভিভাবকদের সাথে নিয়মিত তদারকি করে শিক্ষার্থীদের স্কুলে ফিরে আনতে কাজ করে যাচ্ছি। পাঁচ দিনে উপস্থিাতি বেড়েছে বলে তিনি জানান এ উপজেলায় ১১টি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে উপস্থিতির হার ৫১ শতাংশ।

লাখাই উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মজনুর রহমান বলেন, উল্ল্যাসের সাথে বিদ্যালয়ে উপস্থিতি হতে দেখা যাচ্ছে ছাত্র-ছাত্রীদের। ক্রমান্বয়ে বেড়েই চলেছে শিক্ষার্থী সংখ্যা। আমরা অভিভাবকদের সাথে কথা বলে তাদের বিদ্যালয়ে ফিরে আনার চেষ্টা করছি। তবে অনুপস্থিতির মধ্যে ছাত্র সংখ্যা বেশী বলে জানান তিনি। এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা লুসিকান্ত হাজং বলেন, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গুলোতে শিক্ষার্থীর উপস্থিতির হার একেবারে কম নয়। আস্তে আস্তে শিক্ষার্থীর সংখ্যা বেড়ে যাবে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গুলো তিনি মনিটরিং করে আসছেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো সংবাদ