1. nafiz.hridoy285@gmail.com : Hridoy Fx : Hridoy Fx
  2. miahraju135@gmail.com : MD Raju : MD Raju
  3. koranginews24@gmail.com : সম্পাদক : সম্পাদক
মাধবপুরে বিয়ে পাগল স্বামীর অত্যাচারে ঘরছাড়া গৃহবধু - করাঙ্গীনিউজ
  • Youtube
  • English Version
  • রবিবার, ২৯ নভেম্বর ২০২০, ০১:০০ অপরাহ্ন

করাঙ্গী নিউজ
স্বাগতম করাঙ্গী নিউজ নিউজপোর্টালে। ১২ বছর ধরে সফলতার সাথে নিরপেক্ষ সংবাদ পরিবেশন করে আসছে করাঙ্গী নিউজ। দেশ বিদেশের সব খবর পেতে সাথে থাকুন আমাদের। বিজ্ঞাপন দেয়ার জন‌্য যোগাযোগ করুন ০১৮৫৫৫০৭২৩৪ নাম্বারে।

মাধবপুরে বিয়ে পাগল স্বামীর অত্যাচারে ঘরছাড়া গৃহবধু

  • সংবাদ প্রকাশের সময়: শুক্রবার, ২০ নভেম্বর, ২০২০

নিজস্ব প্রতিনিধি: হবিগঞ্জের মাধবপুরে বিয়ে পাগল স্বামীর বিরুদ্ধে ৩ সন্তানের জননী নাজমা নামের এক গৃহবধুকে মারপিট করে ঘরে থেকে বেড় করে দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া উঠেছে। নাজমা আক্তার মাধবপুর উপজেলার ধর্মঘ ইউনিয়নের বীরসিহংপুর গ্রামরে মোঃ নুরুল হকের মেয়ে। গৃহনীন নাজমা এখন তার ৩ সন্তান নিয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছে।

জানা যায় গত ১০ বছর আগে শেরপুর জেলার নালিতাবাড়ী উপজেলার জাংগালীয়াকান্দা গ্রামরে আব্দুস সহিদের পুত্র মোঃ আব্দুস সাত্তার এর সাথে বিয়ে হয় নাজমার। বিয়ের সময় স্বামীকে যৌতুক হিসেবে স্বর্ণালঙ্কারসহ প্রায় দেড় লক্ষ টাকা দেয় তার পরিবার। বিয়ের পর দুজনই চাকুরী করত ঢাকার এক কোম্পানিতে। বিয়ের কয়েক বছর ভালোই কাটছিল নাজমার জীবন পরে তাদের কোল জুড়ে ৩ কন্যা সন্তানের জন্ম হয়। পর পর ৩ কন্যা সন্তান জন্ম দেওয়ায় প্রায়ই তাদের মাঝে ঝগড়া বিবাদ লেগেই থাকত বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন অজুহাতে নাজমাকে মারধোর করে তার কাছে টাকা দাবী করতো আব্দুস সাত্তার।

বাবার বাড়ি থেকে টাকা না এনে দিতে চাইলে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতনর পাশাপাশি তালাক দেওয়া ও মেরে ফেলার হুমকী দেয় অভিযুক্ত আব্দুস সাত্তার। নিরূপায় হয়ে নাজমা আক্তার স্বামীর অত্যাচার থেকে মুক্তি পেতে তার ঘর ও ব্যবসায়ের জন্য নাজমা বাবা ও ভাইয়ের নিকট থেকে কয়েক বারে প্রায় ৫ লক্ষ টাকা নিয়ে দেয় তাকে ।

এর পূর্বে এসব নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে বাড়ি চলে আসলে বিয়ে পাগল আব্দুস সাত্তার নাজমার বাবা মাকে বুঝিয়ে আর কোন ঝামেলা হবে না বলে প্রতিশ্রুতি দিয়ে নিয়ে যায়। নিয়ে যাওয়ার দিন থেকেই নির্যাতনের মাত্রা বাড়িয়ে দেয় এবং বেধর মারপিট করে বাড়ী থেকে বেড় করে দেয়, শ্বাসরোধ করে নাজমাকে হত্যার চেষ্টাও করে আব্দুস সাত্তার।

অভিযোগকারী মেয়ের ভাই সায়েদুল ইসলাম বলেন, ঢাকাতে বসবাসরত অবস্থায় প্রায়ই তাদের মাঝে ঝগড়া বিবাদ লেগেই থাকত এবং নাজমাকে যৌতুকের জন্য চাপ সৃষ্টি করত। অহেতুক কারনে আমার বোনকে মারধর করে সংসারে অশান্তি সৃষ্টির পাশাপাশি মানসিক নির্যাতন চালিয়ে আসছিল তার স্বামী। পরবর্তীতে তারা সেখানে খবর নিয়ে দেখতে পান বিয়ে পাগল স্বামী আব্দুস সাত্তার তার বোনের সম্মতি না নিয়ে আরো দুটি বিয়ে করে সুখে দিন যাপন করছে। এব্যাপরে ভোক্তভোগী নাজমার পবিারর প্রশাসনের সু-দৃষ্টি কামনা করেছেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো সংবাদ