1. nafiz.hridoy285@gmail.com : Hridoy Fx : Hridoy Fx
  2. miahraju135@gmail.com : MD Raju : MD Raju
  3. koranginews24@gmail.com : সম্পাদক : সম্পাদক
টমটমের ভাড়া নিয়ে হবিগঞ্জ শহর রণক্ষেত্র, আহত ১৪ - করাঙ্গীনিউজ
  • Youtube
  • English Version
  • মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর ২০২০, ০৪:০৪ পূর্বাহ্ন

করাঙ্গী নিউজ
স্বাগতম করাঙ্গী নিউজ নিউজপোর্টালে। ১২ বছর ধরে সফলতার সাথে নিরপেক্ষ সংবাদ পরিবেশন করে আসছে করাঙ্গী নিউজ। দেশ বিদেশের সব খবর পেতে সাথে থাকুন আমাদের। বিজ্ঞাপন দেয়ার জন‌্য যোগাযোগ করুন ০১৮৫৫৫০৭২৩৪ নাম্বারে।

টমটমের ভাড়া নিয়ে হবিগঞ্জ শহর রণক্ষেত্র, আহত ১৪

  • সংবাদ প্রকাশের সময়: সোমবার, ১৯ অক্টোবর, ২০২০

নিজস্ব প্রতিনিধি, হবিগঞ্জ: টমটম ইজিবাইকের ভাড়া নিয়ে শায়েস্তানগর ও বহুলা এলাকাবাসীর মধ্যে ভয়াবহ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে শহরের শায়েস্তানগর পয়েন্ট রণক্ষেত্রে পরিণত হয়। এ ঘটনায় উভয় পক্ষের অন্তত ১৫ জন আহত হয়েছেন।

রবিবার (১৮ অক্টোবর) সন্ধ্যা ৭টা থেকে রাত সাড়ে ৯টা পর্যন্ত দফায় দফায় এ সংঘর্ষ চলে।

এ সময় আশপাশের দোকান পাট বন্ধ হয়ে যায়, তিন ঘণ্টা শায়েস্তানগরসহ আশপাশের এলাকার বিদ্যুত চলে যায়। ফলে ভীতিকর পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়। খবর পেয়ে ব্যবসায়ি নেতৃবৃন্দ ও সদর থানার একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন।

সূত্রে জানা যায়- শায়েস্তানগর এলাকার আব্দুল আওয়াল শহরের আরডি হল এলাকা থেকে টমটমে উঠে তার স্ত্রীকে নিয়ে শায়েস্তানগর পয়েন্টে নামে এবং ১০ টাকা ভাড়া দেন। এ সময় বহুলা গ্রামের টমটম চালক শাহ আলম ২০ টাকা দাবি করে। এ নিয়ে দুইজনের মধ্যে বাকবিতন্ডা হয়। এক পর্যায়ে টমটম চালক শাহ আলম ক্ষিপ্ত হয়ে উঠেন। এসময় দুইজনের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। পরে খবর পেয়ে শায়েস্তানগর ও বহুলার লোকজন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন। খবর পেয়ে ব্যবসায়ি নেতৃবৃন্দ ও সদর থানার একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন।

সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাসুক আলী বলেন- টমটমের ভাড়া নিয়ে সংঘর্ষ হয়েছে। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এনেছে। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। ফের সংঘর্ষ এড়াতে এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে ব্যাবসায়ি কল্যাণ সমিতি (ব্যক্স) সভাপতি সামছুল হুদা বলেন- টমটম ভাড়া নিয়ে সংঘর্ষের ঘটনাটি ঘটেছে। পুলিশ পরিস্থিতি শান্ত করেছে। সদর থানার ওসি ও আমি উভয় পক্ষের সাথে কথা বলেছি। বিষয়টি সমাধানের উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে। আমরা উভয় পক্ষকে নিয়ে বসে বিষয়টি সমাধান করব।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো সংবাদ