#  আজমিরীগঞ্জে বৃদ্ধ পিতাকে সিলেটে নিয়ে জবাই করে হত্যা #  চুনারুঘাটে ৩ হাজার পিস ভারতীয় কলগেট জব্ধ #  সিলেটে শুরু হচ্ছে হিফজুল কোরআন প্রতিযোগিতা #  সুনামগঞ্জে বিজিবি-বিএসএফ’র বৈঠক #  বাহুবলে করাঙ্গী নদী বাচাঁও কমিটি গঠন #  বানিয়াচংয়ে হাম রুবেলা ক্যাম্পেইন বর্জন #  বাহুবলে মাটিবাহি ট্রাক্টর, শিক্ষার্থীসহ ৮ গ্রামবাসীর দুর্ভোগ #  নারীদের সংসারে বিনা যুুদ্ধে জয় লাভ করতে হবে: হবিগঞ্জের এসপি #  শায়েস্তাগঞ্জে অবহিতকরণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত #  বাহুবলে ট্রেনের নিচে কাটা পড়ে যুবকের মৃত্যু #  মাধবপুরে নিয়োগপ্রাপ্ত শিক্ষকদের বরণ #  খালেদা জিয়ার জামিন আবেদন গ্রহণ, শুনানি রোববার #  চুনারুঘাটে ৫ বছরের সাজাপ্রাপ্ত আসামী গ্রেফতার #  ৩ শতাধিক প্রাণীর অভয়াশ্রয় সাতছড়ি জাতীয় উদ্যান #  বাহুবলের করাঙ্গী নদীতে ফেলা হচ্ছে কেমিক্যাল মিশ্রিত বর্জ্য

হবিগঞ্জের পইল মেলায় ৩৫ কেজির বাঘাইড়

নিজস্ব প্রতিনিধি, হবিগঞ্জ: হবিগঞ্জ সদর উপজেলার পইল গ্রামে চলছে দু’দিনব্যাপী ঐতিহ্যবাহী মাছের মেলা। বুধবার দুপুর থেকে জমতে শুরু করে এ মাছের মেলা।

পৌষ সংক্রান্তি উপলক্ষে প্রায় ২০০ বছর ধরে এ মেলার আয়োজন করেন পইল গ্রামবাসী। মেলায় কয়েক হাজার মানুষের সমাগম ঘটে।

মেলায় প্রায় ৩৫ কেজি ওজনের একটি বাঘাইড় মাছ নিয়ে আসেন আহম্মদ আলী নামে এক মাছ ব্যবসায়ী। মাছটির দাম হাঁকেন তিনি ৬৫ হাজার টাকা।

মেলায় মাছ ছাড়াও বিভিন্ন ধরনের পণ্যের সমাগম ঘটে। ব্যবসায়ীরা শিশুদের খেলনা ছাড়াও বিভিন্ন দেশীয় ঐতিহ্যবাহী পণ্য আর বাহারী সব খাবারের পসরা সাজিয়ে বসেন।

পইলসহ আশপাশের গ্রামগুলোর মানুষ এ মেলাটিকে তাদের পূর্ব পুরুষের ঐতিহ্য বলে ধারণ করেন। মেলা দেখতে বুধবার দুপুরের পর থেকেই বিভিন্ন জায়গা থেকে মানুষ আসতে শুরু করেন।

বিকাল হওয়ার আগেই মেলায় হাজার হাজার মানুষের ঢল নামে। শুধু হবিগঞ্জ জেলাই নয়, সিলেট, মৌলভীবাজার, সুনামগঞ্জ, ব্রাহ্মণবাড়িয়াসহ দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে মেলা দেখতে আসেন নারী-পুরুষরা।

বোয়াল, বাঘাইড়, বড় আকৃতির আইড়, চিতল, গজার, রুই, কাতলাসহ নানা প্রজাতির আকর্ষণীয় মাছ নিয়ে দূরদূরান্ত থেকে আসেন বিক্রেতারাও। প্রত্যেকটি দোকানের সামনেই মানুষের উপচেপড়া ভিড় দেখা গেছে। বেচাকেনাও চলে ব্যাপক।

অনেকে মাছের দাম হাঁকাচ্ছেন, কিনছেন, আবার কেউ কেউ সেলফি তুলতেও ব্যস্ত ছিলেন।

মাছ বিক্রেতা আহম্মদ আলী বলেন, মেলায় আমরাই সবচেয়ে বড় মাছ তুলেছি। ৩৫ কেজি ওজনের বাঘাইড় মাছটি ৬৫ হাজার টাকা দাম চেয়েছি। তবে সর্বনিম্ন ৪০ হাজার হলে বিক্রি করব।

পইল ইউপি চেয়ারম্যান সৈয়দ মঈনুল হক আরিফ বলেন, মাছের মেলা আমাদের এলাকার ঐতিহ্য। এ মেলায় দূরদূরান্ত থেকে দর্শনার্থীরা আসেন। মেলার সার্বিক পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে মেলা কর্তৃপক্ষ সতর্ক অবস্থানে রয়েছে। আশা করি প্রতি বছরের ন্যায় এ বছরও সুন্দরভাবেই মেলা সম্পন্ন হবে।