• Youtube
  • English Version
  • শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০১:৫৮ অপরাহ্ন

করাঙ্গী নিউজ
স্বাগতম করাঙ্গী নিউজ নিউজপোর্টালে। ১৫ বছর ধরে সফলতার সাথে নিরপেক্ষ সংবাদ পরিবেশন করে আসছে করাঙ্গী নিউজ। দেশ বিদেশের সব খবর পেতে সাথে থাকুন আমাদের। বিজ্ঞাপন দেয়ার জন‌্য যোগাযোগ করুন ০১৮৫৫৫০৭২৩৪ নাম্বারে।

চুনারুঘাটে বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে প্রেমিকার অনশন

  • সংবাদ প্রকাশের সময়: রবিবার, ১৫ ডিসেম্বর, ২০১৯

চুনারুঘাট (হবিগঞ্জ) প্রতিনিধি: হবিগঞ্জের চুনারুঘাট জারুলিয়া বিয়ের দাবিতে কনকনে শীত উপেক্ষা করে প্রেমিক স্বাগর (৩৫) এর বাড়িতে অনশনে বসেছেন এক প্রেমিকা (২৫)।

শনিবার (১৪ ডিসেম্বর) বিকেলে উপজেলার গাজিপুর ইউনিয়নের জারুলিয়া এলাকায় এ ঘটনাটি ঘটে।

প্রেমিক সাগর গাজিপুর ইউনিয়নের জারুলিয়ার আব্দুর নুর মিয়ার ছেলে ও প্রেমিকা কুমিল্লা জেলার মুরাদ নগর থানার হীরাপুর গ্রামের।

অনশনকারী যুবতী তার প্রেমিককে কাছে পেতে গত ১৩ডিসেম্বর চুনারুঘাট থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, যুবতীর এক আত্নয়ীর মাধ্যমে প্রেমিক সাগরের সাথে পরিচয় হয়। এর পর হইতে মোবাইল ফোনে কথাবার্তা হয়। সাগর তার প্রেমিকাকে জানায় চুনারুঘাট বাজারে রকমারি নামে একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান রয়েছে। প্রেমিক সাগর তার প্রেমিকাকে মাঝেমধ্যে তার দোকানে নিমন্ত্রণ জানায়।

গত ১৫ অক্টোবর সাগর প্রেমিকাকে চুনারুঘাট আসতে বলে তার কথামতে এসে যুবতী পৌরসভাধীন সতং রোডস্থ ভুমি অফিসের ফিছনে জৈনিক মেজরের বাসায় নিয়ে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে রাত কাটায় এবং ব্যবসায়ীক ব্যস্ততার অযুহাতে পরে একটি সময় করে কোর্টে নিয়ে বিয়ের আশ্বাস দিয়ে তার বাড়ি পাঠিয়ে দেয়। এছাড়া সাগর ওই যুবতীকে নিয়ে জেলার বিভিন্ন স্থানে বিভিন্ন সময় প্রমোদ ভ্রমণ করে।

কিছুদিন যেতেই যুবতীর সাথে সাগর যোগাযোগ বন্ধ করে দেয় এবং সাগর তাকে বিয়ে করতে পারবেনা বলে জানায়। তার বিয়ের খবর শুনে যুবতী প্রথমে চুনারুঘাট সাগরের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান রকমারি দোকানে আসে। এসে সাগরকে না পেয়ে শনিবার বিকেলে প্রেমিক স্বাগরের গ্রামের বাড়ি জারুলিয়া বিয়ের দাবীতে অনশন করে।যুবতীর অনশনের খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে প্রেমিক স্বাগরের বাড়িতে ভিড় জমান এলাকাবাসী।

খবর পেয়ে চুনারুঘাট থানা পুলিশ ও এলাকার নেতৃস্থানীয় লোকজন ওই যুবতীকে বুঝানোর চেষ্টা করেন। এদিকে সাগর তার নববধূকে নিয়ে তার শশুর বাড়িতে রয়েছে বলে জানাগেছে। এ নিয়ে এলাকায় জনসাধারণের মধ্যে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়।

প্রেমিকা বলেন, গত তিন মাস ধরে আগেথেকেই সাগরের সঙ্গে আমার প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে।পারিবারিকভাবে আমার বিয়ের প্রস্তাব দেয়া হলেও সাগর আমাকে বিয়ে না করার জন্য চাপ দিত।আমার দাবি, সাগরসহ তার পরিবারের লোকজন বিয়ের বিষয়টির সুরাহা দিতে হবে। তা না করা পর্যন্ত আমার অনশন চলবে বলে জানান প্রেমিকা।

এ বিষয়ে চুনারুঘাট থানার এএসআই ইমন জানান , উভয় পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ করে স্থানীয় লোকজনের সঙ্গে কথা বলে স্থানীয় মহিলা ইউপি সদস্য মিনারা বেগমের জিম্মায় ওই যুবতীকে রাখা হয়েছে। বিষয়টির সমাধানের লক্ষে রবিবার স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদে উভয় পক্ষকে নিয়ে বসা হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো সংবাদ