Oops! It appears that you have disabled your Javascript. In order for you to see this page as it is meant to appear, we ask that you please re-enable your Javascript!
 #  বাংলাদেশ দলে সিলেটের নাঈম #  সিলেট সিক্সার্সের সাথে বৈঠক আজ #  হবিগঞ্জে জ্যোতির্বিজ্ঞান বিষয়ক কর্মশালা সম্পন্ন #  পালিয়ে গিয়ে শেষ রক্ষা হল না প্রেমিক-প্রেমিকার #  মাধবপুরে গাছ থেকে পড়ে স্কুল ছাত্রের মৃত্যু #  চুনারুঘাটে বনগাঁও গ্রামের রাস্তার বেহাল দশা: সংস্কার দাবী #  পুওর কেয়ার কুইক রেসপন্স টিমের সভা অনুষ্ঠিত #  আজমিরীগঞ্জে হাওর থেকে নারীর মরদেহ উদ্ধার #  মাধবপুরে চা শ্রমিককে কুপিয়ে হত্যা #  হবিগঞ্জে মানবিক, উন্নয়ন, স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা শীর্ষক সভা #  শায়েস্তাগঞ্জে দলীয় নেতাকর্মীদের সাথে জি কে গউছের মতবিনিময় #  চুনারুঘাট পৌর শহরে উচ্ছেদ অভিযানে যানজটমুক্ত সড়ক #  শায়েস্তাগঞ্জে আ’লীগের বর্ধিত সভায় এমপি আবু জাহির #  বাহুবলে প্রাইভেটকার চাপায় পুলিশ সদস্যের মৃত্যু #  বিয়ানীবাজারে স্কুল ছাত্রী ধর্ষণের ঘটনায় মামলা

নবীগঞ্জে দেড় কোটি টাকার সম্পত্তির দলিল সম্পাদন

শাহ সুলতান আহমেদ, নবীগঞ্জ (হবিগঞ্জ): হবিগঞ্জ জেলার নবীগঞ্জ উপজেলায় যৌথ সম্পত্তির অংশিদার রেখে ছলচাতুরীর আশ্রয় নিয়ে ওয়ারিশানদের বঞ্চিত করে দেড় কোটি টাকার সম্পত্তির দলিল সম্পাদনের ঘটনা ঘটেছে। একদিকে ভূমি দলিল সম্পাদন করতে পেরে আনন্দে দিন কাটাচ্ছেন ওয়ারিশানদের বঞ্চিত করে দলিল দাতারা।

অপরদিকে ভূমির ন্যায্য প্রাপ্য থেকে বঞ্চিতরা সমাজ পতিদের দ্বারে দ্বারে ঘুরে নালিশ করছেন। এদিকে স্থানীয় চেয়ারম্যানের দেয়া সঠিক ওয়ারিশান সার্টিফিকেটে তথ্য ফাঁস হওয়ায় এলাকায় তীব্র সমালোচনা চলছে।

অভিযোগ উঠেঁছে দলিল লেখককে মোটা অংকের টাকায় ম্যানেজ করে দলিল সম্পাদন করেছেন লন্ডনী আব্দুল হামিদ গংরা।

সুত্রে প্রকাশ, নবীগঞ্জ উপজেলার কুর্শি ইউনিয়নের বাজকাশারা গ্রামের মাওলানা আব্দুল বারি মিয়া তার ৩ পুত্র হাজ্বী আঃ রফিক, আব্দুল হামিদ ও আব্দুল মুনিমকে রেখে মারা যান। ইতোমধ্যে তিন ভাইয়ের মধ্যে আঃ রফিক ও আব্দুল মুনিমও মৃত্যু বরণ করেন। প্রায় কয়েক বছর যাবত তাদের যৌথ সম্পত্তি নিয়ে বিরোধ চলে আসছিলো। এক পর্যায়ে ভাগবাটোয়ারা করার সিদ্ধান্ত হয়। কিন্তু সুচতুর লন্ডন প্রবাসী আব্দুল হামিদ তার ভাই মৃত হাজী আঃ রফিক এর ৩ স্ত্রীর ছেলে-মেয়েদের কয়েকজনকে তার পক্ষে নিয়ে ফঁন্দি করে নবীগঞ্জ সাবরেজিষ্টার অফিসের অধীনের দলিল লেখক আলতাফ হোসেনকে মোটা অংকের টাকায় ম্যাানেজ করে গত ৩১ জুলাই ২০১৯ ইং নবীগঞ্জ সাবরেজিষ্টারী অফিসে ৩৪০৫/২০১৯ নং দলিলে ৩ ভাইয়ের যৌথ সম্পত্তির কয়েকটি দাগের প্রায় দেড় কোটি টাকা মূল্যের ভূমির বেশীরভাগ ওয়ারিশানদের বাদ দিয়ে বাটোয়ারা দলিল সম্পাদন করেন।

স্থানীয় ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আলী আহমেদ মুসার দেয়া ওয়ারিশান সার্টিফিকেট এর তথ্যের ভিত্তিতে জানাযায়, ওই বাটোয়ারা দলিল সম্পাদন করায় মৃত হাজী আঃ রফিক মিয়ার সম্পত্তির ন্যায্য অংশ থেকে বঞ্চিত হয়েছেন তার ৩ স্ত্রীর ছেলে মেয়েদের মধ্যে আব্দুল হান্নান, আফজল মিয়া, সুফিয়া বেগম, রফু মিয়া, মতিউর রহমান, আছিয়া বেগম, নাছরিন বেগম, নাজমা বেগম, জুবায়েল মিয়া, জুনেদ মিয়া ও কামরুল মিয়া। যেখানে এক জন ওয়ারিশানকে বাদ দিয়ে বাটোয়ারা দলিল বৈধ নয় সেখানে ১১ জন ওয়ারিশানকে বাদ দিয়ে তড়িগড়ি করে সুচতুর লন্ডন প্রবাসী আব্দুল হামিদ বাটোয়ারা দলিল সম্পাদন করায় বঞ্চিত ওয়ারিশানদের মাঝে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়।

এ খবর এলাকায় জানাজানি হলে তোলপাড় সৃষ্টি হয়। এ ব্যাপারে ভূমির অংশ থেকে বঞ্চিত মৃত আঃ রফিক মিয়ার পুত্র আফজল মিয়া জানান, তার পিতার যৌথ সম্পত্তির ন্যায্য অংশ থেকে ছলচাতুরীল মাধ্যমে বাটোয়ারা দলিল সম্পাদন করায় তাদের অনেককেই ন্যায্য সম্পত্তি থেকে বঞ্চিত হয়েছেন। এতে তিনিসহ সকলে মিলে আইনের আশ্রয় নিবেন বলে এ প্রতিনিধিকে জানান।

এব্যাপারে দলিল লেখক আলতাফ হোসেনের মোবাইল ফোনে একাধিকবার ফোন করলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।দলিল দাতা আব্দুল হামিদ মিয়ার মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে ফোন রিসিভ করে এক মহিলা জানান তিনি বাড়িতে রয়েছেন তবে কথা বলতে পারবেন না। ১১ ওয়ারিশানদের দাবি তাদের ন্যায্য ভূমি থেকে যারা তাদেরকে বঞ্চিত করার হীন উদ্দ্যেশে বাটোয়ারা দলিল সম্পাদন করেছেন তাদের বিরুদ্ধে আইনের মাধ্যমে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করবেন সংশ্লিষ্ট প্রশাসন।

এ ব্যাপারে ইউপি চেয়ারম্যান আলী আহমদ মুছার সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি মৃত হাজী আঃ রফিকের ৩ স্ত্রীসহ ২১ জনের ওয়ারিশান সার্টিফিকেট দিয়েছেন বলে সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

editor masum